অগ্রিমের টাকা নিয়ে সটকে পড়েছেন দখলদারেরা

Print

বুড়িগঙ্গা নদী ও বুড়িগঙ্গার আদি চ্যানেল ঘিরে উচ্ছেদ অভিযানে ক্ষতির মুখে পড়েছেন দখলদারদের কাছে ভাড়া নিয়ে ব্যবসা পরিচালনা করা ব্যবসায়ীরা।

কারণ, তারা দৈনিক ভাড়া ছাড়াও এককালীন অগ্রিম সেলামি হিসেবে বিপুল পরিমাণ টাকা দিয়েছিলেন ভবনমালিকদের। কিন্তু উচ্ছেদের পর আর দখলদারদের খুঁজে পাচ্ছেন না তারা। এই টাকা আর উদ্ধার হবে কি না, তা নিয়ে চিন্তিত ব্যবসায়ীরা।

বুড়িগঙ্গা নদীতে উচ্ছেদ অভিযানে যেসব স্থাপনা ভাঙা হয়েছে, তার সবই স্থানীয়ভাবে প্রভাবশালীদের। তবে এসব স্থাপনা ভাড়া দিয়ে বিপুল পরিমাণ টাকা তারা ভাড়াটিয়াদের কাছ থেকে নিয়ে যাওয়ায় তাদের ক্ষতির পরিমাণ কম। ব্যবসা হারানোর পাশাপাশি অগ্রিম টাকা না পেয়ে ক্ষতির মুখে ঘুরেফিরে ব্যবসায়ীরাই।

বুড়িগঙ্গা নদীর দুই পাড়ে সাড়ে তিন কিলোমিটার জায়গা এবং দুই যুগেরও বেশি সময় ধরে দখলদারদের কব্জায় ছিল বুড়িগঙ্গার আদি চ্যানেল। বিআইডব্লিউটিএ গত ছয় দিনের অভিযানে উচ্ছেদ করেছে ১ হাজার ১৯৯টি স্থাপনা। ভেঙে দেওয়া হয়েছে ১০৭টি পাকা ভবন, ১২১টি আধা পাকা ভবন, ৮০টি স-মিল, আটটি ছোট-বড় কারখানা এবং ৮৮৩টি টিনের ঘর ও টংঘর।

[ প্রিয় পাঠক, আপনিও বিডিসারাদিন24 ডট কম অনলাইনের অংশ হয়ে উঠুন। লাইফস্টাইল, স্বাস্থ্য, ভ্রমণ, ক্যারিয়ার, পরামর্শ, রান্নার রেসিপি, ফ্যাশন-রূপচর্চা ও ঘরোয়া টিপস নিয়ে লিখুন এবং সংশ্লিষ্ট বিষয়ে ছবিসহ মেইল করুন- bdsaradin24@gmail.com-এ ঠিকানায়। লেখা আপনার নামে প্রকাশ করা হবে। নারীকন্ঠ এবং মত-দ্বিমত বিভাগে প্রকাশিত লেখার বিষয়, মতামত, মন্তব্য লেখকের একান্ত নিজস্ব। লেখকের মতামত, বক্তব্যের বিষয়বস্তু বা এর যথার্থতা নিয়ে  bdsaradin24.com আইনগত বা অন্য কোনো ধরণের দায় গ্রহণ করে না। ]

প্রতি মুহুর্তের সর্বশেষ খবর পেতে এখানে ক্লিক করে আমাদের ফেইসবুক পেইজে লাইক দিন

(লেখাটি পড়া হয়েছে 26 বার)


Print
এই পাতার আরও সংবাদ
bdsaradin24.com