অঞ্জলি সারানোর ঘরোয়া প্রতিষেধক

Print

জেনে নিন চোখের পাতার অঞ্জলি দ্রুত দূর করার কার্যকরী দারুণ উপায়

অনেকেই চোখের পাতায় ফোঁড়ার মতো গুটি উঠার সমস্যায় ভুগে থাকেন যাকে আমরা মূলত অঞ্জলি হিসেবে জানি। এটি মূলত আইলিড সিস্ট যার মেডিক্যাল নাম ক্যালাজিয়ন। এটি সাধারণত চোখের পাতার কোনো গ্ল্যান্ডে তেল জমে বন্ধ হয়ে যাওয়ার কারণে হয়ে থাকে। এই সমস্যা হওয়ার কারণ অপরিষ্কার হাতে চোখ ধরা। সাধারণত এই সমস্যাটি খুব বড় কোনো সমস্যা নয় কিন্তু এর থেকে চোখে ব্যথা হওয়া বা পুঁজ পড়ার যন্ত্রণাও ভোগ করতে হতে পারে। এই সমস্যাটি আপনাআপনি সেরে যেতে প্রায় ২ থেকে ৮ সপ্তাহ লাগে। কিন্তু আপনি চাইলে ঘরোয়া কিছু উপায়ে এই সমস্যা থেকে দ্রুত মুক্তি পেতে পারেন। চলুন জেনে নেয়া যাক এই যন্ত্রণাদায়ক অঞ্জলি থেকে দ্রুত মুক্তি পাওয়ার ঘরোয়া সহজ কিছু উপায়।

১) চোখে গরম ভাপ নিন

চোখে গরম ভাপ নিয়মিত নিলে এই যন্ত্রণা থেকে দ্রুত মুক্তি পেতে পারেন। গরম ভাপ নেয়া রক্ত সঞ্চালন বৃদ্ধি করে এবং বন্ধ হয়ে যাওয়া গ্ল্যান্ড খুলতে সহায়তা করে। এটি ব্যথা ও প্রদাহ দূর করতেও সহায়তা করে। যেভাবে করবেনঃ

  • – একটি নরম সাদা ধরণের পরিষ্কার কাপড় গরম পানিতে ভিজিয়ে ভালো করে চিপে নিন।
  • – এই গরম ভেজা কাপড়টি আক্রান্ত চোখের উপরে আলতো চেপে ধরে রাখুন ৫-১০ মিনিট করে।
  • – প্রতিদিন ৩-৪ বার করুন ঠিক হওয়া পর্যন্ত।

২) পেয়ারা পাতার ব্যবহার

পেয়ারার পাতায় রয়েছে অ্যান্টিইনফ্লেমেটরি উপাদান যা ব্যথা ও ফুলে যাওয়া দূর করতে সহায়তা করবে এবং এর প্রাকৃতিক ঔষধি ক্ষমতা দ্রুত সমস্যা সমাধানে কাজ করে। যেভাবে করবেনঃ

  • – ৫-৬ টি পেয়ারা পাতা ভালো করে ধুয়ে নিন।
  • – মাইক্রোওয়েভ ওভেনে বা একটি গরম পানির পাত্রের উপরে বাটি রেখে তাতে পাতা রেখে গরম করে নিন পেয়ারা পাতা গুলো।
  • – এরপর গরম পেয়ারা পাতাগুলো একটি পরিষ্কার নরম কাপড়ে রেখে মুড়ে নিন।
  • – পাতা সহ এই কাপড় আক্রান্ত স্থানে আলতো চেপে ধরে রাখুন। ঠাণ্ডা হলে আবার পাতা গরম করে নিন।
  • – এভাবে দিনে ২ বার করুন ঠিক হওয়া পর্যন্ত। দ্রুত সেরে যাবে।

৩) ক্যাস্টর অয়েল

ক্যাস্টর অয়েলে রয়েছে উচ্চমাত্রার অ্যান্টিইনফ্লেমেটরি উপাদান যা ব্যাথা ও প্রদাহ দূর করে এবং এটি দ্রুত অঞ্জলির আকার কমিয়ে আনতেও সক্ষম। যেভাবে করবেনঃ

  • – প্রথমে যেভাবে গরম ভাপ নিয়েছিলেন সেভাবে আক্রান্ত চোখে গরম ভাপ নিন ৫ মিনিট। এরপর একটি তুলোর বলে ক্যাস্টর অয়েল লাগিয়ে নিয়ে চোখে লাগান। এভাবে প্রতিদিন ২ বার করুন সেরে যাওয়া পর্যন্ত।
  • – অথবা, হলুদ বেটে নিন, আধা চা চামচ হলুদে আধা চা চামচ ক্যাস্টর অয়েল মিশিয়ে পেস্টের মতো তৈরি করুন। চোখ কুসুম গরম পানিতে ধুয়ে এই পেস্টটি অঞ্জলির উপর লাগিয়ে রাখুন ১৫ মিনিট। এরপর কুসুম গরম পানিতে চোখ ধুয়ে নিন। দিনে ৩ বার এটি ব্যবহার করুন। তবে সতর্ক থাকবেন পেস্টটি যেনো চোখের ভেতরে চলে না যায়।

স্বাস্থ্যবিষয়ক একটি ওয়েবসাইটের প্রতিবেদনে জানানো হয়, চোখের পাতার ভেতরের অংশে লাল হয়ে ফুলে ওঠা প্রদাহের নাম অঞ্জলি। ডাক্তারি ভাষায় একে বলা হয় ‘হোরডিওলাম’। চোখে পাতায় থাকা তেলগ্রন্থিতে হওয়া প্রদাহ এই সমস্যার কারণ।

চিন্তিত হওয়ার মতো কোনো শারীরিক সমস্যা না হলেও এটা বেশ যন্ত্রনাদায়ক এবং বিব্রতকর। ব্যক্তিগত পরিচ্ছন্নতা অভাব, মানসিক চাপ, হরমোন পরিবর্তন ইত্যাদিও এই সমস্যার কারণ হতে পারে।

চোখে ব্যথা, ফোলাভাব, সংবেদনশীলতা, জ্বালা করা, চুলকানি, পলক ফেলতে সমস্যা, চোখে প্রচুর ময়লা জমা ইত্যাদি চোখে অঞ্জলি হওয়ার লক্ষণ।

৭ থেকে ১০ দিনের মধ্যেই চোখের অঞ্জলি ভালো হয়ে যায়। তবে প্রক্রিয়াটি ত্বরান্বিত করার কিছু ঘরোয়া উপায়ও রয়েছে।

গ্রিন টি: আক্রান্ত চোখে কুসুম গরম কাপড়ের পরিবর্তে কুসুম গরম গ্রিন টি’য়ের ব্যাগ দিয়ে ভাপ দিতে পারেন। এতে থাকা প্রদাহরোধী উপাদান ব্যথা ও জ্বলুনি কমাতে সাহায্য করবে। পাশাপাশি গ্রিন টি’তে থাকা ‘ট্যানিক অ্যাসিড’ সংক্রমণ দমাতে সাহায্য করবে।

ধনিয়া সিদ্ধ: ব্যথা, লালচেভাব এবং ফোলা কমাতে বেশ উপকারী প্রদাহরোধী উপাদানযুক্ত ধনিয়া। এক টেবিল-চামচ ধনিয়া পানিতে সিদ্ধ করুন। তারপর ঠাণ্ডা হলে ধনিয়াগুলো ফেলে শুধু পানি দিয়ে আক্রান্ত চোখটি ধুতে হবে। ভালো উপকার পেতে দিনে দুতিন বার এভাবে চোখ ধুতে পারেন।

অ্যালোভেরা: এতে থাকে চোখে আরামদায়ক, ব্যাক্টেরিয়ারোধী এবং প্রদাহরোধী উপাদান, যা চোখের লালচেভাব, ফোলাভাব ও জ্বলুনি কমাতে এবং চোখ দ্রুত সারিয়ে তুলতে উপকারী।

একটি অ্যলোভেরার পাতা কেটে ভেতরের জেলিজাতীয় উপাদানটি বের করে আক্রান্ত চোখে মাখিয়ে নিতে হবে। ১০ মিনিট রেখে কুসুম গরম পানি দিয়ে ধুয়ে ফেলতে হবে।

পার্সলি: এই সুগন্ধি মসলা-পাতা চোখ পরিষ্কার রাখতে উপকারী। ফলে চোখ দ্রুত সেরে ওঠে। একমুঠ পার্সলি নিয়ে পানিতে ফুটিয়ে নিতে হবে। পরে এই পানিতে পরিষ্কার কাপড় ভিজিয়ে আক্রান্ত চোখ মুছে নিতে হবে।

আলু: খোসা ছাড়িয়ে গোল পাতলা করে আলু কেটে নিয়ে আক্রান্ত চোখের উপর দিয়ে রাখতে হবে। ফলে চোখের ফোলাভাব ও ব্যথা কমবে। ভালো উপকার পেতে দিনে দুবার ব্যবহার করতে হবে। এতে মাত্র এক দিনেই লক্ষণীয় উপকার পেতে পারেন।

[ প্রিয় পাঠক, আপনিও বিডিসারাদিন24 ডট কম অনলাইনের অংশ হয়ে উঠুন। লাইফস্টাইল, স্বাস্থ্য, ভ্রমণ, ক্যারিয়ার, পরামর্শ, রান্নার রেসিপি, ফ্যাশন-রূপচর্চা ও ঘরোয়া টিপস নিয়ে লিখুন এবং সংশ্লিষ্ট বিষয়ে ছবিসহ মেইল করুন- bdsaradin24@gmail.com-এ ঠিকানায়। লেখা আপনার নামে প্রকাশ করা হবে। নারীকন্ঠ এবং মত-দ্বিমত বিভাগে প্রকাশিত লেখার বিষয়, মতামত, মন্তব্য লেখকের একান্ত নিজস্ব। লেখকের মতামত, বক্তব্যের বিষয়বস্তু বা এর যথার্থতা নিয়ে  bdsaradin24.com আইনগত বা অন্য কোনো ধরণের দায় গ্রহণ করে না। ]

প্রতি মুহুর্তের সর্বশেষ খবর পেতে এখানে ক্লিক করে আমাদের ফেইসবুক পেইজে লাইক দিন

(লেখাটি পড়া হয়েছে 91 বার)


Print
bdsaradin24.com