অধিভুক্তি বাতিল হলে ‘ঢাকা অচল’ আন্দোলন!

Print

সেশনজট, গণহারে ফেল, নিজস্ব প্রশাসনিক ভবন এবং রুটিন প্রকাশ— এমন নানা দাবি নিয়ে ক’দিন পরপরই আন্দোলনে নামা সাত কলেজের সমস্যা যেন সমাধান হওয়ার নয়। দু’বছরের বেশি সময় ধরে ‘অধিভুক্তি সমস্যা’ চলে আসলেও নতুন বিপত্তিটা ঘটেছে অন্যখানে। সাত কলেজ শিক্ষার্থীদের চাওয়া— অধিভুক্তি বহাল রেখে সব ধরণের সমস্যা সমাধান হোক, যদিও ঢাবি শিক্ষার্থীদের দাবি, কলেজগুলোকে আলাদা করে চলমান সংকট নিরসন। অর্থ্যাৎ ভিন্ন দুই দাবি নিয়ে উভয় পক্ষ আন্দোলনে যাওয়ায় ‘বড় ধরণের সংকট’ তৈরি হয়েছে উচ্চশিক্ষার এই খাতটিতে।

বিশ্ববিদ্যালয় ও কলেজ সংশ্লিষ্টরা বলছেন, অবিলম্বে এই সমস্যা সমাধান না হলে যে কোনো সময় অনাকাঙ্ক্ষিত ঘটনার পাশাপাশি অস্থিতিশীল পরিবেশ তৈরির সম্ভাবনাও রয়েছে। সবার উচিত- শান্তিপূর্ণ সমাধানে আসা।

জানা যায়, ২০১৭ সালের ১৬ ফেব্রুয়ারি রাজধানীর সাত সরকারি কলেজকে ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের (ঢাবি) অধিভুক্ত করা হয়। এগুলো হচ্ছে-ঢাকা কলেজ, ইডেন মহিলা কলেজ, সরকারি শহীদ সোহরাওয়ার্দী কলেজ, কবি নজরুল কলেজ, বেগম বদরুন্নেসা সরকারি মহিলা কলেজ, মিরপুর সরকারি বাঙলা কলেজ ও সরকারি তিতুমীর কলেজ। অধিভুক্ত হওয়ার পর থেকেই নানা সংকট লেগেই আছে এসব কলেজের। ফলে লাখেরও বেশি শিক্ষার্থী উদ্বেগের মধ্যে রয়েছে। এ কারণে তারা কখনও পরীক্ষার রুটিন, কখনও ফলের দাবিতে রাজধানীর নীলক্ষেত ও শাহবাগের মোড় অবরোধ করছে শিক্ষার্থীরা। এ আন্দোলনে অংশ নিতে গিয়ে তিতুমীর কলেজের আবু বকর সিদ্দিক নামে এক শিক্ষার্থী চোখও হারিয়েছে। তবুও সুফল পায়নি সাত কলেজের লক্ষাধিক শিক্ষার্থীর। তাই বারবার রাস্তায় নামতে বাধ্য হচ্ছে তারা।

এদিকে ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয় ও সাত কলেজ শিক্ষার্থীদের চলমান আন্দোলনের মধ্যেই আগামী ১৫দিনের মধ্যে সংকট দূর করার আশ্বাস দিয়েছেন উপাচার্য অধ্যাপক ড. মো. আখতারুজ্জান। বলেছেন, অবৈজ্ঞানিক পদ্ধতিতে সাত কলেজের অধিভুক্তি হয়েছে। তাই সাত কলেজের সুষ্ঠু সমাধান ও বিশ্ববিদ্যালয়ের স্বার্থ রক্ষা হয় এই জন্য বৈজ্ঞানিক উপায়ে এটির সমাধান করা হবে। এছাড়া সাত কলেজের সমস্যা সমাধানে কমিটি গঠনের সিদ্ধান্ত নেয়া হয়েছে বলে জানান ঢাবি উপাচার্য।

[ প্রিয় পাঠক, আপনিও বিডিসারাদিন24 ডট কম অনলাইনের অংশ হয়ে উঠুন। লাইফস্টাইল, স্বাস্থ্য, ভ্রমণ, ক্যারিয়ার, পরামর্শ, রান্নার রেসিপি, ফ্যাশন-রূপচর্চা ও ঘরোয়া টিপস নিয়ে লিখুন এবং সংশ্লিষ্ট বিষয়ে ছবিসহ মেইল করুন- bdsaradin24@gmail.com-এ ঠিকানায়। লেখা আপনার নামে প্রকাশ করা হবে। নারীকন্ঠ এবং মত-দ্বিমত বিভাগে প্রকাশিত লেখার বিষয়, মতামত, মন্তব্য লেখকের একান্ত নিজস্ব। লেখকের মতামত, বক্তব্যের বিষয়বস্তু বা এর যথার্থতা নিয়ে  bdsaradin24.com আইনগত বা অন্য কোনো ধরণের দায় গ্রহণ করে না। ]

প্রতি মুহুর্তের সর্বশেষ খবর পেতে এখানে ক্লিক করে আমাদের ফেইসবুক পেইজে লাইক দিন

(লেখাটি পড়া হয়েছে 17 বার)


Print
এই পাতার আরও সংবাদ
bdsaradin24.com