অনুমতি ছাড়াই গ্রাহকদের ইমেইল সংগ্রহ করলো ফেসবুক

Print

অনুমতি ছাড়াই ১৫ লাখ গ্রাহকের ইমেইল সংগ্রহ করেছে ফেসবুক। ২০১৬ সাল থেকে এগুলো সংগ্রহের কাজ শুরু হয় যা গত মাস পর্যন্তও দেখা গেছে। নতুন করে এ তথ্য সামনে আসার পর আবারও সমালোচনা শুরু হয়েছে ফেসবুকের।

প্রযুক্তিবিষয়ক গণমাধ্যম দ্য ভার্জ এক প্রতিবেদনে জানায়, গ্রাহকদের কাছ থেকে ইমেইল সংগ্রহ করেছে ফেসবুক। তবে তা অনুমতি নিয়ে করা হয়নি। বিশেষ এক পদ্ধতির মাধ্যমে কাজটি করেছে ফেসবুক কর্তৃপক্ষ।

বিজনেস ইনসাইডারের বরাত দিয়ে ভার্জ বলছে, ফেসবুকের পক্ষ থেকে এর নতুন গ্রাহকদেরকে ইমেইলের মাধ্যমে ভেরিফিকেশনের জন্য বলা হতো। ভেরিফিকেশন সম্পন্ন না করলে ফেসবুকে প্রবেশ করতে পারতেন না তারা।

আর ভেরিফিকেশন করার সঙ্গে সঙ্গেই গ্রাহকদের ইমেইল অ্যাড্রেস সংরক্ষণ করতো ফেসবুক। এমনকি তখন বাড়তি কিছু তথ্যও সংগ্রহ করা হয়েছে বলে দাবি করছে বিশ্লেষকরা।

এই দাবির বিপরীতে ফেসবুকের এক মুখপাত্র বলেন, একটি প্রক্রিয়ার অংশ হিসেবে গ্রাহকদের ইমেইল এবং তথ্য ‘অনিচ্ছাকৃতভাবে’ নিয়ে নেয়া হয়েছে। তবে এগুলো কখনোই কারও সঙ্গে শেয়ার করা হয়নি। ফেসবুক এখন সংগৃহীত এসব তথ্য ডিলিট করছে।

[ প্রিয় পাঠক, আপনিও বিডিসারাদিন24 ডট কম অনলাইনের অংশ হয়ে উঠুন। লাইফস্টাইল, স্বাস্থ্য, ভ্রমণ, ক্যারিয়ার, পরামর্শ, রান্নার রেসিপি, ফ্যাশন-রূপচর্চা ও ঘরোয়া টিপস নিয়ে লিখুন এবং সংশ্লিষ্ট বিষয়ে ছবিসহ মেইল করুন- bdsaradin24@gmail.com-এ ঠিকানায়। লেখা আপনার নামে প্রকাশ করা হবে। নারীকন্ঠ এবং মত-দ্বিমত বিভাগে প্রকাশিত লেখার বিষয়, মতামত, মন্তব্য লেখকের একান্ত নিজস্ব। লেখকের মতামত, বক্তব্যের বিষয়বস্তু বা এর যথার্থতা নিয়ে  bdsaradin24.com আইনগত বা অন্য কোনো ধরণের দায় গ্রহণ করে না। ]

প্রতি মুহুর্তের সর্বশেষ খবর পেতে এখানে ক্লিক করে আমাদের ফেইসবুক পেইজে লাইক দিন

(লেখাটি পড়া হয়েছে 53 বার)


Print
এই পাতার আরও সংবাদ
bdsaradin24.com