অসীম উকিলকে এমপি বানিয়ে মন্ত্রীত্ব উপহার পেতে চায় কেন্দুয়া-আটপাড়াবাসী

Print

মাঈন উদ্দিন সরকার রয়েলঃ সংসদীয় ১৫৯, নেত্রকোনা-৩ আসন । নির্বাচনী এলাকা আটপাড়া ও কেন্দুয়া উপজেলা । দুই উপজেলার সর্বত্রই বইছে ভোটের হাওয়া । চলছে নানান আলাপ-আলোচনা । এরই মাঝে জমে উঠেছে কেন্দুয়া পৌর সদরের সাউদপাড়াস্থ উকিলবাড়ী । উকিলবাড়ীর কর্তা এবার নৌকা প্রতীকের প্রার্থী । তিনি বাংলাদেশ আওয়ামীলীগের সাংস্কৃতিক সম্পাদক । তিনি কেন্দুয়ার কৃতি সন্তান অসীম কুমার উকিল । তিনি এমপি –মন্ত্রী না হয়েও গন-মানুষের অনেক উপকার করেছেন এবং করছেন । নির্বাচনকে ঘিরে প্রতিদিন কেন্দুয়া-আটপাড়ার অগনিত নেতাকর্মীদের আসা=যাওয়া চলছে উকিলবাড়ীতে । তাদের সাথে ভোটের বিষয়ে চলছে মত বিনিময়সহ কুশলবিনিময় । উকিল বাড়ির পাশেই নির্বাচন পরিচালনার প্রধান অফিস । প্রতিদিনই আওয়ামীলীগসহ সকল সহযোগী সংগঠনের নেতৃবৃন্দের সমাগম ঘটছে এ অফিসে । চলছে নির্বাচনী দিক-নির্দেশনা মূলক বক্তব্য । সকলের মুখে মুখে উচ্চারিত হচ্ছে । অসীম কুমার উকিল এমপি হলে মন্ত্রী হবে । কেন্দুয়া –আটপাড়া উন্নয়নে সয়লাব হয়ে যাবে । তাই ৩০ ডিসেম্বরের নির্বাচনে দলমত নির্বিশেষে অসীম কুমার উকিলকে বিজয়ী করা উচিৎ । কেন্না অসীস কুসার কেন্দুয়ার কৃতি সন্তান । তিনি আওয়ামীলীগেরে অনেক বড় একটা পদে আছেন । এটা কেন্দুয়া-আটপাড়াবাসীর গর্বের বিষয় । তার সহধর্মীনি অধ্যাপক অপু উকিল । তিনিও অনেক বড় একটা পদে আছেন । বাংলাদেশ যুবমহিলালীগের সাধারণ সম্পাদক । একবার সংরক্ষিত আসনের এমপিও হয়েছেন তিনি । অপু উকিল খুব সহজেই গণ-মানুষের সাথে একাত্মাতা হয়ে মিশে যায় । তাই তার কেন্দুয়ায়-আটপাড়ায় রয়েছে অগনিত ভক্ত । মানুষের আপদে-বিপদে পাশে থাকা , অসুস্থ ব্যাক্তিকে চিকিৎসা সহায়তা, প্রতিবন্ধীদের সহায়তা,বেকারত্ব ঘুচানো, রাস্তা-ঘাটের উন্নয়নসহ অনেক কাজই ইতোমধ্যে করেছেন অসীম-অপু দম্পতি । রাজনৈতিক,সামাজিক,সাংস্কৃতিকসহ সমাজের বিভিন্নস্তরের অসচ্ছল .অসুস্থ্য ব্যাক্তিদের প্রধানমন্ত্রীর ত্রাণ তহবিল থেকে এনে দিয়েছেন আর্থিক অনুদানের চেক । কেন্দুয়া-আটপাড়ার অগনিত পরিবারের বেকার ছেলে-মেয়েদেরকে কর্মময় জীবন গড়ে দিতে অসীম-অপু দম্পতির রয়েছে ব্যাপক ভূমিকা । অনেকের কাছে অসীম কুমার উকিল কেমন মানুষ ? এমন প্রশ্ন জিজ্ঞেস করলে-তারা বলেন- অসীম উকিল সৎ মানুষ । রাজনৈতিকভাবে সকল পরীক্ষায় তিনি উর্ত্তীন ।
তার কাছে যে কোন সহযোগিতার জন্য গেলে তিনি স্পষ্ট জবাবে কথা বলেন । শৃংখলা প্রিয় সাংগঠনিক ব্যাক্তিত্ব অসীম উকিল-সব সময় ভাবাবেগের চেয়ে নীতিবোধটাকে প্রাধান্য দেয় । তিনি এ আসনে গন-মানুষের ভোটে এমপি নির্বাচিত হলে তিনি আরও বেশী সেবা করবেন । অনেকেই বলেছেন-তিনি সারাজীবন মানুষের উপকারই করে এসেছেন । জন প্রতিনিধি হলে তিনি গন-মানুষের সেবায় নিজেকে উৎসর্গ করে এলাকার সার্বিক উন্নয়নে ভূমিকা রাখবে । তবে কেন্দুয়া –আটপাড়া নির্বাচনী এলাকায় সবচেয়ে বেশী আলোচিত হচ্ছে – দলমত নির্বিশেষে অসীম কুমার উকিলকে নৌকা ভোট দিয়ে ৩০ ডিসেম্বরের নির্বাচনে বিজয়ী করা উচিৎ । কেননা কেন্দুয়া-আটপাড়াবাসীর প্রয়োজন এলাকা ও গণ-মানুষের সার্বিক উন্নয়ন । তাই অসীম কুমার উকিল ভোটের মাধ্যমে বিজয়ী করে সংসদে পাঠাতে পারলে তিনি মন্ত্রীত্ব পেতে পারেন । আর একজন মন্ত্রী এলাকার যে উন্নয়ন করতে পারবে ,তা অন্য কেউ পারবে না । অনেকদিন পর এ আসনে একটি সুবর্ণ সুযোগ এসেছে বলে মনে করেন সুশীল সমাজ । তারা মনে করেন-শিক্ষা-দিক্ষায়,জ্ঞানে-গুণে,মেধা-দক্ষতায়, রাজনৈতিক বিচক্ষনতা,দূরদর্শিতা ও চৌকুস বুদ্ধিদীপ্ত অসীম কুমার উকিলকে ভোট যুদ্ধে বিজয়ী করাও এখন সময়ের দাবী । কেন্দুয়া-আটপাড়াকে উন্নয়নের রোল মডেলে পরিণত করতে ; সংসদ সদস্য বানানোর যোগ্য ব্যাক্তি হিসেবে অসীম কুমার উকিলের বিকল্প নেই ।
গত রবিবার ও সোমবার কেন্দুয়া –আটপাড়ার বিভিন্ন গণমানুষের সাথে কথা বললে; অনেকেই বিচ্ছিন্নভাবে ভোটের নানা বিষয় নিয়ে মন্তব্য করলেও-সকলেই একটি বিষয়ে একমত হন । সে বিষয়টি হল তাদের ভাষায় -‘আমরা অইলাম খেটে খাওয়া সাধারণ মানুষ। ভোট নিয়া চিন্তা করার সময় নাই । তবে আমরার এমন একজন লোকরে এমপি বানানির দরহার । যে মানুষটা এমপি হইলে মন্ত্রী অইতে পারবো । আমরা কিছু পাইলে পাইলাম । না পাইলে নাই । এইতা লইয়া আমরার কোনো চিন্তা নাই।’ তবে গর্ব কইরা কইতাম তো পারাম আমরা এলাকারলোকটা মন্ত্রী অইছে । আমরা দেশের যেহানই যাই ,সেইহানই পরিচয় দিতারাম আমরার অমুক মন্ত্রীর এলাকার লোক । আর এই এলাকার একজন মন্ত্রী অইলে এলাকার উন্নয়ন তো অইবো । এলাকার উন্নয়র অইলে বেক দলের লোকই তো উপকার পাইবো । তবে খেটে খাওয়া সাধারণ মানুষের অনেকে মত প্রকাশ করে বলে, আমরার ভোটটা নষ্ট করতাম না । আমরা আওয়ামীলীগ-বিএনপি চিনিনা । যারে ভোটটা দিলে কামে লাগবো তারেই দিয়াম ।

৩০ ডিসেম্বরের একাদশ জাতীয় সংসদ নির্বাচনে কেন্দুয়া-আটপাড়ায় আওয়ামীলীগ না বিএনপি বিজয়ী হবে ? এমন প্রশ্নের জবাবে কেন্দুয়া-আটপাড়ার উল্লেখযোগ্য আওয়ামীলীগ নেতৃবৃন্দ বলেন-আমরা দলীয় নেতাকর্মীদেরকে এক্যবদ্ধ করাসহ বিএনপির নেতাকর্মীদেরকে বুঝাচ্ছি যে–আমাদের প্রয়োজন উন্নয়ন । তাই আগামীদিনে আওয়ামীলীগ সরকার গঠন করবে এমন লক্ষণ টের পাচ্ছি । তাই এলাকার উন্নয়নের স্বার্থে অসীম কুমার উকিলকে ভোটের মাধ্যমে বিজয়ী করে এমপি বানিয়ে আমরা মন্ত্রীত্ব উপহার পেতে চাই । তাই দলমত নির্বিশেষে সকলে মিলে নৌকা প্রতীকে ভোট দিয়ে অসীম কুমার উকিলকে আমরা বিজয়ী করতে চাই । তাঁরা আরও বলেন-৩০ ডিসেম্বরের নির্বাচনে নেত্রকোনা-৩ (আটপাড়া-কেন্দুয়া) আসনে বিপুল ভোটে নৌকা প্রতীকেরই বিজয় হবে ।

[ প্রিয় পাঠক, আপনিও বিডিসারাদিন24 ডট কম অনলাইনের অংশ হয়ে উঠুন। লাইফস্টাইল, স্বাস্থ্য, ভ্রমণ, ক্যারিয়ার, পরামর্শ, রান্নার রেসিপি, ফ্যাশন-রূপচর্চা ও ঘরোয়া টিপস নিয়ে লিখুন এবং সংশ্লিষ্ট বিষয়ে ছবিসহ মেইল করুন- bdsaradin24@gmail.com-এ ঠিকানায়। লেখা আপনার নামে প্রকাশ করা হবে। নারীকন্ঠ এবং মত-দ্বিমত বিভাগে প্রকাশিত লেখার বিষয়, মতামত, মন্তব্য লেখকের একান্ত নিজস্ব। লেখকের মতামত, বক্তব্যের বিষয়বস্তু বা এর যথার্থতা নিয়ে  bdsaradin24.com আইনগত বা অন্য কোনো ধরণের দায় গ্রহণ করে না। ]

প্রতি মুহুর্তের সর্বশেষ খবর পেতে এখানে ক্লিক করে আমাদের ফেইসবুক পেইজে লাইক দিন

(লেখাটি পড়া হয়েছে 305 বার)


Print
এই পাতার আরও সংবাদ
bdsaradin24.com