আন্তর্জাতিক সহযোগিতা কামনা ফিলিস্তিনির

Print

অধিকৃত বায়তুল মুকাদ্দাস বা জেরুজালেমে ফিলিস্তিনিদের বাড়িঘর ধ্বংসের তীব্র নিন্দা জানিয়েছে ফিলিস্তিন স্বশাসন কর্তৃপক্ষ। ফিলিস্তিনের পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয় এক বিবৃতিতে বলেছেন, ইসরায়েলের অপরাধযজ্ঞের বিষয়ে গোটা বিশ্ব নীরব রয়েছে। তাদের এই নিরবতা ইহুদিবাদীদের অপরাধ করার ক্ষেত্রে আরও বেশি উৎসাহিত করেছে। অবিলম্বে ধ্বংসযজ্ঞ থামাতে ইসরায়েলের ওপর চাপ প্রয়োগের জন্য আন্তর্জাতিক সমাজের প্রতি আহ্বান জানিয়েছে স্বশাসন কর্তৃপক্ষ।

স্থানীয় সময় সোমবার ভোররাত ৪টার দিকে থেকে পূর্ব বায়তুল মুকাদ্দাস বা পূর্ব জেরুজালেমের উপকণ্ঠে ফিলিস্তিনিদের বাড়িঘর ভেঙে ফেলতে শুরু করে ইসরায়েল। বাড়িঘরগুলো পূর্ব জেরুজালেমের শেষ প্রান্ত ‘সুর বাহার’ এলাকায় অবস্থিত। সেখানকার বাসিন্দারা বলছেন, তারা ফিলিস্তিন স্বশাসন কর্তৃপক্ষের অনুমতি নিয়েই বাড়িঘর নির্মাণ করেছিলেন। কিন্তু ইসরা‌য়েল পশ্চিম তীরের অবশিষ্ট ভূমিও দখলে নিতে বাড়িঘর ভেঙে দিচ্ছে।

সুর বাহারের সীমানা ঘেঁষা গ্রাম ওয়াদি হুমুসে সোমবার সাতশ’ ইসরায়েলি পুলিশ ও দুইশ’ সেনা বাড়িঘর ধ্বংসের অভিযানে অংশ নিয়েছে। দখলদাররা কয়েকটি স্ক্যাভেটর নিয়ে অভিযান শুরু করে এবং সেখানে অন্তত ১০টি বাড়ি ভেঙে ফেলা হয়েছে। যাদের ঘরবাড়ি ভাঙা হয়েছেন তাদের একজন হলেন ইসমাইল আবাদিয়েহ।

আবাদিয়েহ সাংবাদিকদের বলেছেন, তিনি পরিবার নিয়ে পথে বসে গেছেন। ফাদি আল-ওয়াহাশ নামে অন্য একজন সবে তার বাড়ি নির্মাণ শুরু করছিলেন। তার মধ্যেই সেটি ভেঙে ফেলা হয়েছে।

তিনি বলেন, ফিলিস্তিন স্বশাসন কর্তৃপক্ষের কাছ থেকে প্রয়োজনীয় অনুমতি নিয়েছিলাম। আমি ভেবেছিলাম,আমি ঠিকঠাক নিয়ম মেনেই বাড়ি নির্মাণ করছি। কিন্তু তারা আমার নির্মাণাধীন বাড়ি ভেঙে দিয়েছে।

[ প্রিয় পাঠক, আপনিও বিডিসারাদিন24 ডট কম অনলাইনের অংশ হয়ে উঠুন। লাইফস্টাইল, স্বাস্থ্য, ভ্রমণ, ক্যারিয়ার, পরামর্শ, রান্নার রেসিপি, ফ্যাশন-রূপচর্চা ও ঘরোয়া টিপস নিয়ে লিখুন এবং সংশ্লিষ্ট বিষয়ে ছবিসহ মেইল করুন- bdsaradin@gmail.com-এ ঠিকানায়। লেখা আপনার নামে প্রকাশ করা হবে। নারীকন্ঠ এবং মত-দ্বিমত বিভাগে প্রকাশিত লেখার বিষয়, মতামত, মন্তব্য লেখকের একান্ত নিজস্ব। লেখকের মতামত, বক্তব্যের বিষয়বস্তু বা এর যথার্থতা নিয়ে  bdsaradin24.com আইনগত বা অন্য কোনো ধরণের দায় গ্রহণ করে না। ]

প্রতি মুহুর্তের সর্বশেষ খবর পেতে এখানে ক্লিক করে আমাদের ফেইসবুক পেইজে লাইক দিন

(লেখাটি পড়া হয়েছে 46 বার)


Print
এই পাতার আরও সংবাদ
bdsaradin24.com