আবরার হত্যায় জড়িতদের নাম-পরিচয়

Print

দেশব্যাপী আলোচিত বাংলাদেশ প্রকৌশল বিশ্ববিদ্যালয়ের (বুয়েট) শিক্ষার্থী আবরার ফাহাদ হত্যা মামলার আসামিদের পরিচয় পাওয়া গেছে। এই হত্যাকাণ্ডের ঘটনায় দায়ের করা মামলার এজাহার বিশ্লেষণ করে এসব তথ্য পাওয়া যায়। হত্যার সঙ্গে জড়িতদের সংক্ষিপ্ত পরিচয় এ প্রতিবেদনে তুলে ধরা হলো-

মামলার ১ নম্বর আসামি হলেন বুয়েট ছাত্রলীগের বহিষ্কৃত সাধারণ সম্পাদক মেহেদী হাসান রাসেল (২৪)। তিনি ফরিদপুরের সালথা উপজেলার রাংগারদিয়া গ্রামের মো. রুহুল আমিন ও ঝর্না আমিনের ছেলে। রাসেল বুয়েটের সিভিল ইঞ্জিনিয়ারিং বিভাগের ১৩তম ব্যাচের ছাত্র। তিনি বুয়েটের শেরেবাংলা হলের ৩০১২ নম্বর কক্ষের বাসিন্দা।

২ নম্বর আসামি মুহতাসিম ফুয়াদ (২৩) হলেন বুয়েট ছাত্রলীগের বহিষ্কৃত সহ-সভাপতি। তিনি ফেনীর ছাগলনাইয়া উপজেলার লাঙ্গলমোড়া গ্রামের মো. আবু তাহের ও সালমা ইয়াসমিনের ছেলে। ফুয়াদ বুয়েটের সিভিল ইঞ্জিনিয়ারিং বিভাগের ১৪তম ব্যাচের ছাত্র। তিনি শেরেবাংলা হলের ২০১০ নম্বর কক্ষের বাসিন্দা।

মামলার ৩ নম্বর আসামির নাম মো. অনিক সরকার (২২)। তিনি বুয়েট ছাত্রলীগের বহিষ্কৃত তথ্য ও গবেষণা সম্পাদক। তিনি রাজশাহীর মোহনপুর উপজেলার বড়ইকুড়ি গ্রামের মো. আনোয়ার হোসেন ও শাহিদা বেগমের ছেলে। শেরেবাংলা হলের ছাত্র অনিক বুয়েটের মেকানিক্যাল ইঞ্জিনিয়ারিং বিভাগের চতুর্থ বর্ষে পড়েন।

মামলার ৪ নম্বর আসামি হলেন মো. মেহেদী হাসান রবিন (২২)। তিনি বুয়েট ছাত্রলীগের বহিষ্কৃত সাংগঠনিক সম্পাদক। তিনি রাজশাহীর পবা উপজেলার কাপাসিয়া গ্রামের মো. মাকসুদ আলী ও রাশিদা বেগমের ছেলে। শেরেবাংলা হলের এই বাসিন্দা কেমিক্যাল ইঞ্জিনিয়ারিং বিভাগের ১৫তম ব্যাচের ছাত্র।

মামলার ৫ নম্বর আসামি হলেন ইফতি মোশাররফ সকাল (২১)। তিনি বুয়েট ছাত্রলীগের বহিষ্কৃত উপসমাজসেবা সম্পাদক। বায়ো মেডিকেল ইঞ্জিনিয়ারিং বিভাগের তৃতীয় বর্ষে পড়েন। আবরার ফাহাদকে যে রুমে নিয়ে পিটিয়ে হত্যা করা হয় তিনি সেই ২০১১ নম্বর রুমের বাসিন্দা। ইফতি রাজবাড়ী সদর উপজেলার ১ নম্বর ওয়ার্ডের ৩৯৫ নম্বর বাড়ির ফকির মোশাররফ হোসেন ও রাবেয়া মোশাররফের ছেলে।

[ প্রিয় পাঠক, আপনিও বিডিসারাদিন24 ডট কম অনলাইনের অংশ হয়ে উঠুন। লাইফস্টাইল, স্বাস্থ্য, ভ্রমণ, ক্যারিয়ার, পরামর্শ, রান্নার রেসিপি, ফ্যাশন-রূপচর্চা ও ঘরোয়া টিপস নিয়ে লিখুন এবং সংশ্লিষ্ট বিষয়ে ছবিসহ মেইল করুন- bdsaradin24@gmail.com-এ ঠিকানায়। লেখা আপনার নামে প্রকাশ করা হবে। নারীকন্ঠ এবং মত-দ্বিমত বিভাগে প্রকাশিত লেখার বিষয়, মতামত, মন্তব্য লেখকের একান্ত নিজস্ব। লেখকের মতামত, বক্তব্যের বিষয়বস্তু বা এর যথার্থতা নিয়ে  bdsaradin24.com আইনগত বা অন্য কোনো ধরণের দায় গ্রহণ করে না। ]

প্রতি মুহুর্তের সর্বশেষ খবর পেতে এখানে ক্লিক করে আমাদের ফেইসবুক পেইজে লাইক দিন

(লেখাটি পড়া হয়েছে 37 বার)


Print
এই পাতার আরও সংবাদ
bdsaradin24.com