আশুলিয়া থানার ডিজিটাল নিরাপত্তা আইনে দায়ের করা মামলার আসামী আটক

Print

খোরশেদ আলম, ঢাকা,জেলা প্রতিনিধি

আশুলিয়া থানার ডিজিটাল নিরাপত্তা আইনে দায়ের করা মামলার আসামী বগুড়া থেকে আটক
সাভার প্রতিনিধিঃ
রাজধানী ঢাকার অদূরে শিল্পাঞ্চল আশুলিয়ায় স্মীকে  তালাক দেয়ায় স্ত্রীর ছবি সম্পাদন করে জনদের মুঠোফোনসহ বিভিন্ন সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে ভাইরালের অভিযোগে এক বখাটে হ্যাকারকে আটক করেছে পলিশ। মঙ্গলবার ভোরে আশুলিয়া থানা পুলিশ মুঠোফোনে আধুনিক প্রযুক্তি ব্যবহারের মাধ্যমে আসামীর অবস্থান সনাক্তের পর তাকে বগুড়া সদর থানা এলাকা থেকে আটক করেছে। আটককৃত তানভীর হোসেন নাঈম (২৫) বগুড়া জেলার সদর থানাদীন ফুলবাড়ী গ্রামের আবু তালেবের ছেলে।
আশুলিয়া থানা পুলিশের উপ-পরিদর্শক ও মামলার তদন্ত কর্মকর্তা রাম কৃষ্ণ দাস বলেন, ২০০১৬ সালে তানভীরের সাথে কাজী ফারিয়া ইয়াসমিন শান্তার প্রেমের সম্পর্কের মাধমে বিয়ে হয়। বিয়ের পর থেকেই তাদের মধ্যে বনিবনা না হওয়ায় চলতি বছরের আগস্ট মাসের ৯ তারিখ শান্তা তাকে তালাক প্রদান করে। স্ত্রী তালাক প্রদানের পর থেকেই পূর্বের ধারনকৃত বিভিন্ন ছবি সম্পাদন করে সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যম- ফেইসবুক, ইমু ও ম্যাসেঞ্জারে ছড়িয়ে শান্তা ও তার পরিবারকে ব্ল্যাকমেইল করতে থাকে। এই ঘটনার পর শান্তা বাদী হয়ে ৩০ আগস্ট আশুলিয়া থানায় ডিজিটাল নিরাপত্তা আইনে একটি মামলা (৭১ নং) দায়ের করেন।
তিনি আরো জানান, জব্ধকৃত আলামত পরীক্ষার জন্য সিআইডির ফরেনসিক শাখায় প্রেরনের পাশাপাশি আটককৃত আসামীকে পুলিশি জিজ্ঞাসাবাদের জন্য ১০ দিনের সময় চেয়ে বুধবার সকালে ঢাকার চীফ জুডিশিয়াল ম্যাজিষ্ট্রেটের আদালতে প্রেরন করা হবে।
আশুলিয় থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা শেখ রিজাউল হক দিপু বলেন, থানায় অভিযোগ দায়েরের পর থেকেই মুঠোফোনে আধুনিক প্রযুক্তি ব্যবহারের মাধ্যমে আসামীর অবস্থান সানাক্ত করে মঙ্গলবার ভোরে বগুড়া সদর থানা পুলিশকে সাথে নিয়ে অভিযান চালিয়ে আশুলিয়া থানার উপ-পরিদর্শক (এস.আই) রাম কৃষ্ণ দাস তাকে আটক করেন। এসময় তার নিকট থেকে ২টি মুঠোফোন, এটি পেন ড্রাইভ ও একটি মেমোরি কার্ড জব্ধ করা হয়। আসামী তানভীর হোসেন নাঈম একজন হ্যাকার। সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যম, ই-মেইলসহ বিভিন্ন ফেইসবুক আইডি অতি সহজেই হ্যাক করতো।
[ প্রিয় পাঠক, আপনিও বিডিসারাদিন24 ডট কম অনলাইনের অংশ হয়ে উঠুন। লাইফস্টাইল, স্বাস্থ্য, ভ্রমণ, ক্যারিয়ার, পরামর্শ, রান্নার রেসিপি, ফ্যাশন-রূপচর্চা ও ঘরোয়া টিপস নিয়ে লিখুন এবং সংশ্লিষ্ট বিষয়ে ছবিসহ মেইল করুন- bdsaradin24@gmail.com-এ ঠিকানায়। লেখা আপনার নামে প্রকাশ করা হবে। নারীকন্ঠ এবং মত-দ্বিমত বিভাগে প্রকাশিত লেখার বিষয়, মতামত, মন্তব্য লেখকের একান্ত নিজস্ব। লেখকের মতামত, বক্তব্যের বিষয়বস্তু বা এর যথার্থতা নিয়ে  bdsaradin24.com আইনগত বা অন্য কোনো ধরণের দায় গ্রহণ করে না। ]

প্রতি মুহুর্তের সর্বশেষ খবর পেতে এখানে ক্লিক করে আমাদের ফেইসবুক পেইজে লাইক দিন

(লেখাটি পড়া হয়েছে 145 বার)


Print
এই পাতার আরও সংবাদ
bdsaradin24.com