ইবতেদায়ি পরীক্ষা এড়াতে চায় গণশিক্ষা মন্ত্রণালয়

Print

পঞ্চম শ্রেণির ইবতেদায়ি সমাপনী পরীক্ষা আর নিতে চায় না প্রাথমিক ও গণশিক্ষা মন্ত্রণালয়। জনবল ও অবকাঠামো সংকটে এ পরীক্ষা শিক্ষা মন্ত্রণালয়ের অধীনে হস্তান্তরের সিদ্ধান্ত নেয়া হয়েছে। ইতোমধ্যে প্রাথমিক প্রক্রিয়া শুরু হয়েছে। আগামী বছর থেকে এটি কার্যকর হতে পারে।

জানা গেছে, পঞ্চম শ্রেণির পাবলিক পরীক্ষা হিসেবে ২০০৯ সাল থেকে সমাপনী পরীক্ষা শুরু হলেও ইবতেদায়ি পরীক্ষা চালু হয় ২০১০ সালে। প্রথম দুই বছর বিভাগভিত্তিক ফল দেয়া হলেও ২০১১ সাল থেকে ইবতেদায়ি পরীক্ষার গ্রেডিং পদ্ধতিতে ফল ও পরীক্ষার সময় আধাঘণ্টা বাড়িয়ে আড়াই ঘণ্টা করা হয়। প্রাথমিক ও গণশিক্ষা মন্ত্রণালয়ের অধীনে প্রাথমিক শিক্ষা অধিদফতর (ডিপিই) এর আয়োজন করে থাকে। পরীক্ষায় পাসের মাধ্যমে নিম্ন মাধ্যমিক স্তরে শিক্ষার্থীরা ভর্তি হয়ে থাকে। পাশাপাশি ফলাফলের ভিত্তিতে সারাদেশে ক্ষুদে শিক্ষার্থীদের বৃত্তিও দেয়া হয়।

প্রাথমিক ও গণশিক্ষা মন্ত্রণালয় সূত্রে জানা গেছে, প্রতি বছর সারাদেশ ৩০ লাখ পরীক্ষার্থী পঞ্চম শ্রেণির সমাপনী ও ইবতেদায়ি পরীক্ষায় অংশ নিয়ে থাকে। নিজস্ব শিক্ষা বোর্ড ও পর্যাপ্ত জনবল না থাকায় এ বিশাল কর্মযজ্ঞ সম্পন্ন করতে হিমশিম খাচ্ছে প্রাথমিক ও গণশিক্ষা মন্ত্রণালয়। প্রশাসনিক কাজ বন্ধ রেখে প্রতি বছর এ পরীক্ষা আয়োজন এবং খাতা মূল্যায়ন করে ফলাফল প্রকাশ করতে হয়।

জানা গেছে, সমাপনী পরীক্ষা আয়োজনে আলাদা একটি শিক্ষা বোর্ড গঠনের নীতিগত সিদ্ধান্ত নিয়েছে প্রাথমিক ও গণশিক্ষা মন্ত্রণালয়। এছাড়া ইবতেদায়ি পরীক্ষাটি শিক্ষা মন্ত্রণালয়ের মাদরাসা ও কারিগরি বিভাগের অধীনে দেয়ার প্রক্রিয়া শুরু হয়েছে।

এ বিষয়ে জানতে চাইলে প্রাথমিক ও গণশিক্ষা মন্ত্রণালয়ের সচিব আকরাম আল হোসেন বলেন, ‘আমাদের মন্ত্রণালয়ের অধীনে কোনো শিক্ষা বোর্ড না থাকার পরও প্রতি বছর ৩০ লাখ শিক্ষার্থীর পঞ্চম শ্রেণির সমাপনী ও ইবতেদায়ি পরীক্ষার আয়োজন করতে হচ্ছে। পরীক্ষা শেষে শিক্ষার্থীদের খাতা মূল্যায়ন ও ফলাফল প্রকাশ করতে হয়। এতে আমাদের নিয়মিত কার্যক্রম নির্ধারিত সময়ে শেষ করা অসম্ভব হয়ে পড়ছে। এটিকে গুরুত্ব দিয়ে পঞ্চম শ্রেণির ইবতেদায়ি পরীক্ষাটি হস্তান্তরের সিদ্ধান্ত নেয়া হয়েছে।’

[ প্রিয় পাঠক, আপনিও বিডিসারাদিন24 ডট কম অনলাইনের অংশ হয়ে উঠুন। লাইফস্টাইল, স্বাস্থ্য, ভ্রমণ, ক্যারিয়ার, পরামর্শ, রান্নার রেসিপি, ফ্যাশন-রূপচর্চা ও ঘরোয়া টিপস নিয়ে লিখুন এবং সংশ্লিষ্ট বিষয়ে ছবিসহ মেইল করুন- bdsaradin24@gmail.com-এ ঠিকানায়। লেখা আপনার নামে প্রকাশ করা হবে। নারীকন্ঠ এবং মত-দ্বিমত বিভাগে প্রকাশিত লেখার বিষয়, মতামত, মন্তব্য লেখকের একান্ত নিজস্ব। লেখকের মতামত, বক্তব্যের বিষয়বস্তু বা এর যথার্থতা নিয়ে  bdsaradin24.com আইনগত বা অন্য কোনো ধরণের দায় গ্রহণ করে না। ]

প্রতি মুহুর্তের সর্বশেষ খবর পেতে এখানে ক্লিক করে আমাদের ফেইসবুক পেইজে লাইক দিন

(লেখাটি পড়া হয়েছে 31 বার)


Print
এই পাতার আরও সংবাদ
bdsaradin24.com