ইবির ৪ শিক্ষককে শাস্তি

Print

ইবির ৪ শিক্ষককে শাস্তি

ইবি প্রতিনিধি-
ইসলামী বিশ্ববিদ্যালয়ের (ইবি) ৪ শিক্ষককে বিভিন্ন মেয়াদে শাস্তি দিয়েছে প্রশাসন। এদের মধ্যে দু’জনের পদাবনতি, একজনের বাধ্যতামূলক অবসর এবং অপরজনকে চাকুরিচ্যুত করা হয়েছে। বিশ্ববিদ্যালয়ের রেজিস্ট্রার এসএম আব্দুল লতিফ বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন।

জানা যায়, উপাচার্যের বাংলোয় শুক্রবার বেলা ১১টা থেকে অনুষ্ঠিত ২৪৪তম সিন্ডিকেট সভায় এসব সিন্ধান্ত নেয়া হয়েছে। সিন্ধান্ত অনুযায়ী, বিশ্ববিদ্যালয়ের শিক্ষক নিয়োগ বাণিজ্যের অভিযোগ প্রমানিত হওয়ায় ইংরেজি বিভাগের অধ্যাপক ড. শাহাদাত হোসেন আজাদ ও বাংলা বিভাগের সহযোগী অধ্যাপক বাকী বিল্লাহ বিকুলকে পদাবনিত করা হয়েছে। এতে ড. আজাদকে সহযোগী অধ্যাপক এবং ড. বিকুলকে সহকারী অধ্যাপকে নামিয়ে আনা হয়েছে। এদিকে গত ৫/৬ বছর ধরে অনুমতিহীনভাবে ছুটি নিয়ে কানাডায় অবস্থানের অভিযোগে আইন বিভাগের অধ্যাপক ড. গাজী ওমর ফারুককে বাধ্যাতামূলক অবসর এবং ইনফরমেশন এন্ড কমিউনিকেশন ইঞ্জিনিয়ারিং (আইসিই) বিভাগের সহযোগী অধ্যাপক ড. মো: তারিকুজ্জামানকে চাকুরিচ্যুত করা হয়েছে।

এছাড়া ফিন্যান্স এন্ড ব্যাংকিং বিভাগের সহকারী অধ্যাপক সঞ্জয় কুমারের বিরুদ্ধে নিজ ছাত্রীর অভিযোগে সিদ্ধান্ত নিয়েছে প্রশাসন। নারী নির্যাতন ও যৌন নিপীড়ন সেলের প্রতিবেদন অনুযায়ী ওই ছাত্রীর কোন প্রকার ক্লাস-পরীক্ষা না নেবার আদেশ দিয়েছে সিন্ডিকেট। এদিকে বিশ্ববিদ্যালয়ের গাড়ির তেল চুরির অভিযোগে মনসুর রহমানকেও বাধ্যতামূলক অব্যহতি দেয়া হয়েছে। তবে তেল বাবদ ১৪ লক্ষ এবং ঋণ নেয়া ২৮ লক্ষ টাকা ফেরত দিয়ে তার অব্যহতি চূড়ান্ত করা হবে। এছাড়াও শিক্ষকদের সাজাসহ গবেষণা নীতিমালা মূল্যায়ন, প্রমোশনসহ বেশ কিছু সিদ্ধান্ত নেয়া সিন্ডিকেট সভায়।

উপাচার্য অধ্যাপক ড. রাশিদ আসকারী বলেন, ‘তদন্ত ও পর্যালোচনা কমিটির প্রতিবেদন অনুযায়ী সাজা দিয়েছে বিজ্ঞ সিন্ডিকেট। কারো প্রতি অনুরাগ বা বিরাগভাজন হয়ে আমি কোন সিদ্ধান্ত নেইনি। যে কারও দুর্নিতি প্রমানিত হলে বর্তমান প্রশাসন তার বিরুদ্ধে অবশ্যই কঠোর ব্যবস্থা নেবে।’

[ প্রিয় পাঠক, আপনিও বিডিসারাদিন24 ডট কম অনলাইনের অংশ হয়ে উঠুন। লাইফস্টাইল, স্বাস্থ্য, ভ্রমণ, ক্যারিয়ার, পরামর্শ, রান্নার রেসিপি, ফ্যাশন-রূপচর্চা ও ঘরোয়া টিপস নিয়ে লিখুন এবং সংশ্লিষ্ট বিষয়ে ছবিসহ মেইল করুন- bdsaradin24@gmail.com-এ ঠিকানায়। লেখা আপনার নামে প্রকাশ করা হবে। নারীকন্ঠ এবং মত-দ্বিমত বিভাগে প্রকাশিত লেখার বিষয়, মতামত, মন্তব্য লেখকের একান্ত নিজস্ব। লেখকের মতামত, বক্তব্যের বিষয়বস্তু বা এর যথার্থতা নিয়ে  bdsaradin24.com আইনগত বা অন্য কোনো ধরণের দায় গ্রহণ করে না। ]

প্রতি মুহুর্তের সর্বশেষ খবর পেতে এখানে ক্লিক করে আমাদের ফেইসবুক পেইজে লাইক দিন

(লেখাটি পড়া হয়েছে 57 বার)


Print
এই পাতার আরও সংবাদ
bdsaradin24.com