একের পর এক লাশের সারি, মাদকের গ্রাসে বাড়ছে হত্যাকান্ড!

Print

রাজশাহী মেডিকেল কলেজ (রামেক) হাসপাতালের মর্গের সামনে সোমবার সকালে কান্না করছিলেন নিহত রাখির মা লিলা বেগম। এক সময় কান্না থামিয়ে বললেন, জামাই সোহেল প্রায় নেশা করে এসে রাখিকে (২৯) মারধর করত। মারতে মারতে অসুস্থ করে দিত। রাখিকে অনেক বলেছি, সোহেলকে ছেড়ে চলে আয়। আমার কথা শুনলে মেয়েটা মরত না।

রাখি মারা যাওয়ার ঘটনা রবিবার রাতের। নগরীর ডিঙ্গাডোবা এলাকার স্বামী সোহেলের বাড়িতে ঝুলন্ত অবস্থায় উদ্ধার করা হয় রাখিকে। পরে এলাকাবাসী হাসপাতালে নিয়ে যাওয়ার সময় রাস্তায় মৃত্যু হয় রাখির। রাখির মা লিলা বেগম ও আশপাশের লোকজন জানান, রাখির স্বামী সোহেল মাদকাসক্ত। সামান্য কারণেই রাখির ওপরে সে নির্যাতন করত। একই রাতে রাজশাহীর গোদাগাড়ী পৌরসভার আরিজপুর গ্রামে আরও একটি রোমহর্ষক ঘটনা ঘটে। ওই এলাকার অবসরপ্রাপ্ত শিক্ষক শাহাবুদ্দীনের মাদকাসক্ত ছেলে সালেক আহমেদ হাতুড়ি দিয়ে পিটিয়ে তার মা সেলিনা বেগমকে (৫০) হত্যা করে। সোমবার দুপুরে চাঁপাইনবাবগঞ্জের ভোলাহাটে মাদকাসক্ত স্বামী তার স্ত্রীকে প্রকাশ্যে কুপিয়ে হত্যা করে।

শহর, গ্রাম সব জায়গায় ছড়িয়ে পড়েছে মাদক। প্রতিনিয়ত ঘটছে খুন, ধর্ষণ, ছিনতাই, চুরির ঘটনা। রাজশাহী ও আশপাশের এলাকাগুলোতে প্রায় দিনই ঘটছে খুন, আত্মহত্যা, ছিনতাইয়ের মতো ঘটনা।

[ প্রিয় পাঠক, আপনিও বিডিসারাদিন24 ডট কম অনলাইনের অংশ হয়ে উঠুন। লাইফস্টাইল, স্বাস্থ্য, ভ্রমণ, ক্যারিয়ার, পরামর্শ, রান্নার রেসিপি, ফ্যাশন-রূপচর্চা ও ঘরোয়া টিপস নিয়ে লিখুন এবং সংশ্লিষ্ট বিষয়ে ছবিসহ মেইল করুন- bdsaradin24@gmail.com-এ ঠিকানায়। লেখা আপনার নামে প্রকাশ করা হবে। নারীকন্ঠ এবং মত-দ্বিমত বিভাগে প্রকাশিত লেখার বিষয়, মতামত, মন্তব্য লেখকের একান্ত নিজস্ব। লেখকের মতামত, বক্তব্যের বিষয়বস্তু বা এর যথার্থতা নিয়ে  bdsaradin24.com আইনগত বা অন্য কোনো ধরণের দায় গ্রহণ করে না। ]

প্রতি মুহুর্তের সর্বশেষ খবর পেতে এখানে ক্লিক করে আমাদের ফেইসবুক পেইজে লাইক দিন

(লেখাটি পড়া হয়েছে 41 বার)


Print
এই পাতার আরও সংবাদ
bdsaradin24.com