এক মাসে ইন্টারনেটের গ্রাহক বেড়েছে ২০ লাখ!

Print

এ বছরের জুলাই মাসের শেষে টেলিযোগাযোগ নিয়ন্ত্রক সংস্থা বিটিআরসি প্রকাশিত এক প্রতিবেদনে বলা হয়েছে, দেশের ইন্টারনেট ব্যবহারকারীর সংখ্যা ৯ কোটি ৬১ লাখ ৭৬ হাজার। তার ঠিক এক মাস পরে (গত ৩১ আগস্ট পর্যন্ত) এ সংখ্যা গিয়ে দাঁড়ায় ৯ কোটি ৮১ লাখ ৩৬ হাজারে। এক মাসের ব্যবধানে দেশে ইন্টারনেট ব্যবহারকারী বেড়েছে ২০ লাখ ৪০ হাজার। শুধু ইন্টারনেট ব্যবহারকারীই নয়, দেশে ব্যান্ডউইথের ব্যবহারও বেড়েছে। বর্তমানে দেশে এক হাজার ৪০০ জিবিপিএস (গিগাবিটস পার সেকেন্ড) ব্যান্ডউইথ ব্যবহার হচ্ছে।

দেশে ব্যান্ডউইথের ব্যবহার বাড়ার পাশাপাশি ইন্টারনেট ব্যবহারকারীর সংখ্যাও বাড়ছে। তবে এক মাসে ২০ লাখ গ্রাহক বাড়ার কারণ সম্পর্কে সংশ্লিষ্টরা ঠিক বুঝে উঠতে পারছেন না বলে জানিয়েছেন। সংশ্লিষ্টরা এও বলছেন, গত এক মাসে বা কিছু সময় আগে ব্রডব্যান্ড গ্রাহকের সংখ্যা সেভাবে বাড়েনি। গ্রোথ একই রয়েছে, যা গ্রাহক বেড়েছে তার সবই মোবাইল ইন্টারনেট ব্যবহারকারী। প্রতিবেদন ও সংশ্লিষ্টদের বক্তব্য অনুসারে মোবাইল ইন্টারনেটের ব্যবহারকারীই বেড়েছে ২০ লাখ।

যদিও এ সময়ে দেশের দুটি মোবাইল ফোন অপারেটরের ওপরে বকেয়া অর্থ আদায়ের ক্ষেত্রে এক প্রকার নিষেধাজ্ঞা দিয়ে রেখেছে বিটিআরসি। দুটি অপারেটরেরই এনওসি বন্ধ রয়েছে। ফলে বেশ কিছুদিন ধরে অপারেটর দুটি তাদের নতুন প্যাকেজ (ভয়েস কল ও ইন্টারনেট) ছাড়তে পারছে না। পুরনো প্যাকেজ দিয়েই অপারেশন চালাচ্ছে অপারেটর দুটি। ফলে এই সময়ে মোবাইল ইন্টারনেটের গ্রাহক তথা ব্যবহারকারী বাড়ার কারণে বিস্ময় প্রকাশ করেছেন সংশ্লিষ্টরা।

জানা যায়, দেশের প্রথম সাবমেরিন ক্যাবল সি-মি-ইউ-৪ এর মাধ্যমে দেশে ব্যান্ডউইথ আসছে ৪০০ জিবিপিএস। অন্যদিকে সেকেন্ড সাবমেরিন ক্যাবল সি-মি-ইউ-৫ এর মাধ্যমে আছে ৭০০ জিবিপিএস ব্যান্ডউইথ। অবশিষ্ট ৩০০ জিবিপিএস ব্যান্ডউইথ আসছে পার্শ্ববর্তী দেশ ভারত থেকে আইটিসির (ইন্টারন্যাশনাল টেরেস্ট্রিয়াল ক্যাবল) মাধ্যমে। প্রসঙ্গত, দেশের ৬টি আইটিসি হলো— সামিট কমিউনিকেশন লিমিটেড, ফাইবার অ্যাট হোম, নভোকম লিমিটেড, ওয়ান এশিয়া, বিডি লিংক কমিউনিকেশন লিমিটেড ও ম্যাংগো টেলিসার্ভিসেস লিমিটেড।

[ প্রিয় পাঠক, আপনিও বিডিসারাদিন24 ডট কম অনলাইনের অংশ হয়ে উঠুন। লাইফস্টাইল, স্বাস্থ্য, ভ্রমণ, ক্যারিয়ার, পরামর্শ, রান্নার রেসিপি, ফ্যাশন-রূপচর্চা ও ঘরোয়া টিপস নিয়ে লিখুন এবং সংশ্লিষ্ট বিষয়ে ছবিসহ মেইল করুন- bdsaradin24@gmail.com-এ ঠিকানায়। লেখা আপনার নামে প্রকাশ করা হবে। নারীকন্ঠ এবং মত-দ্বিমত বিভাগে প্রকাশিত লেখার বিষয়, মতামত, মন্তব্য লেখকের একান্ত নিজস্ব। লেখকের মতামত, বক্তব্যের বিষয়বস্তু বা এর যথার্থতা নিয়ে  bdsaradin24.com আইনগত বা অন্য কোনো ধরণের দায় গ্রহণ করে না। ]

প্রতি মুহুর্তের সর্বশেষ খবর পেতে এখানে ক্লিক করে আমাদের ফেইসবুক পেইজে লাইক দিন

(লেখাটি পড়া হয়েছে 41 বার)


Print
এই পাতার আরও সংবাদ
bdsaradin24.com