এবার ‘ধবধবে ঝরঝরে লবণ’ নিয়ে ভয়ংকর তথ্য প্রকাশ

Print

বাজারে যে ধবধবে ঝরঝরে লবণ বিক্রি হচ্ছে, তাতে মানবদেহের জন্য ক্ষতিকর সোডিয়াম সালফেট রয়েছে বলে দাবি করেছে বাংলাদেশ লবণ মিল মালিক সমিতি। তাই লবণে ব্যবহৃত সোডিয়াম সালফেট আমদানি নিষিদ্ধের দাবি জানিয়েছে সংগঠনটি।

মঙ্গলবার রাজধানীর জাতীয় প্রেসক্লাবে বাংলাদেশ লবণ মিল সমিতি আয়োজিত ‘বিসিক’র তথ্য বিভ্রাট ও লবণ মিশ্রিত সোডিয়াম সালফেট আমদানি বন্ধকরণ’ শীর্ষক এক সংবাদ সম্মেলনে এসব দাবি জানানো হয়।

সংবাদ সম্মেলনে লিখিত বক্তব্যে সমিতির সভাপতি নুরুল কবির বলেন, সোডিয়াম সালফেট এক ধরনের কেমিক্যাল। এটা সাধারণত পোশাক শিল্পসহ বিভিন্ন শিল্পে ব্যবহৃত হয়। এ খাতে বছরে এই পণ্যটির চাহিদা রয়েছে ২৫ থেকে ৩০ হাজার টন। কিন্তু বিসিকের প্ররোচনায় একটি চক্র বছরে ৯ লাখের বেশি সোডিয়াম সালফেট আমদানি করে।

‘এই সোডিয়াম সালফেট এর সাথে আয়োডিন মিশিয়ে তা খাবার লবণ হিসেবে বাজারজাত করছে। এটি স্বাস্থ্যের জন্য মারাত্মক ক্ষতিকর। ইতিমধ্যে মানুষ নানাবিধ রোগে আক্রান্ত হচ্ছে।’

তিনি বলেন, ‘বিএসটিআইয়ের ভ্রাম্যমান আদালত সোডিয়াম সালফেট মেশানো লবণ জব্দ করলেও এক্ষেত্রে বিসিক কোনো পদক্ষেপ নেয়নি।’

লবণ মিল বন্ধ হয়ে যাচ্ছে জানিয়ে তিনি বলেন, ২০১৭ সালের আগ পর্যন্ত দেশের গার্মেন্টস, ডাইং, প্রিন্টিং, ডিটারজেন্টসহ বিভিন্ন পণ্যের কারখানায় দেশে উৎপাদিত লবণ সরবরাহ করা হতো। কিন্তু বিসিকের শিল্প বিদ্বেষী মনোভাবের কারণে দেশিয় লবণ এসব ক্ষেত্রে এখন আর ব্যবহৃত হচ্ছে না। ফলে লবণ ব্যবসায়ীরা হারিয়েছে তাদের শত বছরের লবণের বাজার। বন্ধ হয়ে যাচ্ছে লবণের কারখানা। বেকারত্ব বরণ করছে হাজার লবণ চাষী।

এই সংবাদ সম্মেলনে সরকারের কাছে ৪টি দাবি তুলে ধরা হয়। এগুলো হলো- উৎপাদন ও চাহিদা সঠিক তথ্য নির্ধারণ করা, বাণিজ্যের জন্য আনা সোডিয়াম সালফেট আমদানি নিষিদ্ধ করা, লবণ মিল মালিকদের ইস্যুকৃত বন্ড লাইসেন্স বাতিল ও নতুন কোনো লাইসেন্স না দেওয়া এবং দেশীয় লবণ চাষিদের রক্ষায় দ্রুত প্রধানমন্ত্রীর হস্তক্ষেপ করা।

সংবাদ সম্মেলনে সংগঠনের অন্যান্য নেতারাও উপস্থিত ছিলেন।

[ প্রিয় পাঠক, আপনিও বিডিসারাদিন24 ডট কম অনলাইনের অংশ হয়ে উঠুন। লাইফস্টাইল, স্বাস্থ্য, ভ্রমণ, ক্যারিয়ার, পরামর্শ, রান্নার রেসিপি, ফ্যাশন-রূপচর্চা ও ঘরোয়া টিপস নিয়ে লিখুন এবং সংশ্লিষ্ট বিষয়ে ছবিসহ মেইল করুন- bdsaradin24@gmail.com-এ ঠিকানায়। লেখা আপনার নামে প্রকাশ করা হবে। নারীকন্ঠ এবং মত-দ্বিমত বিভাগে প্রকাশিত লেখার বিষয়, মতামত, মন্তব্য লেখকের একান্ত নিজস্ব। লেখকের মতামত, বক্তব্যের বিষয়বস্তু বা এর যথার্থতা নিয়ে  bdsaradin24.com আইনগত বা অন্য কোনো ধরণের দায় গ্রহণ করে না। ]

প্রতি মুহুর্তের সর্বশেষ খবর পেতে এখানে ক্লিক করে আমাদের ফেইসবুক পেইজে লাইক দিন

(লেখাটি পড়া হয়েছে 31 বার)


Print
এই পাতার আরও সংবাদ
bdsaradin24.com