‘এলআরবির’ই জয় হলো

Print

অনেক নাটকীয়তার পর ভাঙনের হাত থেকে রক্ষা পাচ্ছে দেশের অন্যতম জনপ্রিয় ব্যান্ড ‘এলআরবির’। ১৯৯০ সালের ৫ এপ্রিল যে নাম ও স্বপ্ন নিয়ে ব্যান্ডটি গঠিত হয়েছিলো, গত এক সপ্তাহের চড়াই-উতড়াই এর পর সেটাই বহাল থাকলো।

এলআরবির ব্যবস্থাপক শামীম আহমেদ বলেন, ‘বালাম অ্যান্ড দ্য লিগ্যাসি নয়, আমরা এলআরবিতে ছিলাম, আছি এবং থাকব। বস (আইয়ুব বাচ্চু) যেমনটা চেয়েছিলেন, এই ব্যান্ড নিয়ে তিনি যেভাবে ভেবেছিলেন, যে স্বপ্ন দেখেছিলেন, তা বাস্তবে রূপ দেওয়ার জন্য আমরা কাজ করে যাব।’

শামীম আহমেদ বলেন, ‘আমাদের প্রাথমিক সিদ্ধান্ত হয়ে গেছে। এখন থেকে পরিবারকে বাদ দিয়ে আর কিছুই হবে না। তাদের সঙ্গে আলোচনা করে গুরুত্বপূর্ণ কাজগুলো করা হবে।’

এদিকে, আইয়ুব বাচ্চুর পরিবার থেকে আপত্তি করে বলা হয়, এলআরবি নামটি আর কেউ ব্যবহার করতে পারবে না। এরপর গত সোমবার এলআরবির সদস্যরা ব্যান্ডটির নতুন নাম দেন বালাম অ্যান্ড দ্য লিগ্যাসি।

এরপরই, এলআরবির ভেঙে যাওয়ার খবরটি ভাক্তদের মধ্যে বিরূপ প্রভাব ফেলে। আইয়ুব বাচ্চু ও এলআরবির অসংখ্য ভক্ত সামাজিক যোগাযোগমাধ্যম ফেসবুকে এই সিদ্ধান্তের সমালোচনা করেন। তারা ব্যান্ডটিকে ভাঙনের হাত থেকে রক্ষার জন্য এই সিদ্ধান্ত আবারও বিবেচনার আহ্বান জানান।

পরিবারের আপত্তি আর এলআরবির নতুন নামকরণের পর মঙ্গলবার (১৬ এপ্রিল) দুপুরে সামাজিক যোগাযোগমাধ্যম ফেসবুকে একটি স্ট্যাটাস দেন আইয়ুব বাচ্চুর ছেলে আহনাফ তাজওয়ার আইয়ুব। তিনি লিখেছেন, ‘এলআরবি অথবা বালাম অ্যান্ড দ্য লিগ্যাসির (তারা এখন এই নামে গান করতে চান) সদস্যদের বলতে চাই, তারা চাইলে এলআরবি নামে গান করতে পারেন। এ নিয়ে আমাদের কোনো বাধা নেই। প্রাথমিকভাবে তারা যেভাবে এলআরবি নামে গান করতে চেয়েছিলেন, সেভাবেই গান চালিয়ে যেতে পারেন। তাদের জন্য শুভকামনা রইল। আশা করি, তারা সফল হবেন এবং বাবার গান নিয়ে এগিয়ে যাবেন। আমার চাওয়া, এলআরবি সব সাফল্য অর্জন করবে।’

শামীম আহমেদ জানান, প্রাথমিক সিদ্ধান্ত অনুযায়ী এলআরবি এখন যে আয় করবে, তা থেকে একটা অংশ পাবে আইয়ুব বাচ্চুর পরিবার। তবে ডিজিটাল প্ল্যাটফর্মে এলআরবির কনটেন্ট থেকে আইয়ুব বাচ্চুর পরিবার যা পাচ্ছে, তা তারা পাবে।

[ প্রিয় পাঠক, আপনিও বিডিসারাদিন24 ডট কম অনলাইনের অংশ হয়ে উঠুন। লাইফস্টাইল, স্বাস্থ্য, ভ্রমণ, ক্যারিয়ার, পরামর্শ, রান্নার রেসিপি, ফ্যাশন-রূপচর্চা ও ঘরোয়া টিপস নিয়ে লিখুন এবং সংশ্লিষ্ট বিষয়ে ছবিসহ মেইল করুন- bdsaradin24@gmail.com-এ ঠিকানায়। লেখা আপনার নামে প্রকাশ করা হবে। নারীকন্ঠ এবং মত-দ্বিমত বিভাগে প্রকাশিত লেখার বিষয়, মতামত, মন্তব্য লেখকের একান্ত নিজস্ব। লেখকের মতামত, বক্তব্যের বিষয়বস্তু বা এর যথার্থতা নিয়ে  bdsaradin24.com আইনগত বা অন্য কোনো ধরণের দায় গ্রহণ করে না। ]

প্রতি মুহুর্তের সর্বশেষ খবর পেতে এখানে ক্লিক করে আমাদের ফেইসবুক পেইজে লাইক দিন

(লেখাটি পড়া হয়েছে 18 বার)


Print
এই পাতার আরও সংবাদ
bdsaradin24.com