করজোড়ে ক্ষমা চাইলেন অধ্যক্ষ

Print

ভিকারুননিসা নূন স্কুল অ্যান্ড কলেজের ৯ম শ্রেণির শিক্ষার্থী অরিত্রি অধিকারীর আত্মহত্যার ঘটনায় করজোড়ে ক্ষমা চেয়েছেন অধ্যক্ষ নাজনীন ফেরদৌস।

মঙ্গলবার (৪ ডিসেম্বর) সকালে গণমাধ্যমকর্মীরা বেইলি রোডের স্কুল প্রাঙ্গণে তার কার্যালয়ে গেলে সবার সামনে হাত জোর করে ক্ষমা চান তিনি। তবে এ ঘটনায় শিক্ষা প্রতিষ্ঠানটির প্রভাতী শাখার প্রধান শিক্ষক জিন্নাত আরাকে সাময়িক বরখাস্ত করা হয়েছে।

অধ্যক্ষ নাজনীন ফেরদৌস ‘বিষয়টিকে অনাকাক্ষিত’ উল্লেখ করে সাংবাদিকদের বলেন, ‘ঘটনাটি এতদূর গড়াবে তা অনুধাবন করতে পারিনি। এরই মধ্যে তদন্ত কমিটি গঠন করা হয়েছে। রিপোর্ট হাতে পাওয়ার পর কী ব্যবস্থা নেওয়া হবে তা মন্ত্রণালয় নির্ধারণ করে দেবে। অরিত্রির আত্মহত্যার ঘটনায় আমি সবার কাছে হাত জোড় করে ক্ষমা চাচ্ছি।’

এদিকে অরিত্রির আত্মহত্যার ঘটনায় মঙ্গলবার সকালে স্কুল পরিদর্শনে গিয়ে শিক্ষক-শিক্ষার্থী ও অভিভাবকদের সঙ্গে কথা বলেন শিক্ষামন্ত্রী নুরুল ইসলমা নাহিদ।

বেশ কিছুক্ষণ সেথানে থাকার পর শিক্ষামন্ত্রী সাংবাদিকদের বলেন, ‘এ ঘটনায় তিন সদস্য বিশিষ্ট একটি তদন্ত কমিটি গঠন করা হয়েছে। একজন শিক্ষার্থী কতটা অপমানিত হলে, কতটা কষ্ট পেলে আত্মহত্যার মত পথ বেছে নেয়… যে ঘটনাগুলো আমরা শুনেছি, এর পেছনের কথা শুনছি। ঘটনার পেছনে বা ঘটনার সঙ্গে যারাই জড়িত থাকুক, যদি প্রমাণ পাওয়া যায়, জড়িত ব্যক্তিদের বিরুদ্ধে শাস্তিমূলক ব্যবস্থা নেয়া হবে।’

এদিকে অরিত্রির আত্মহত্যার ঘটনায় মঙ্গলবার সকাল ৭টা থেকেই স্কুল গেটের সামনে অবস্থান নেন শিক্ষার্থী ও অভিভাবকরা। ঘটনার সুষ্ঠু তদন্ত ও বিচার না হওয়া পর্যন্ত ক্লাসে না ফেরার ঘোষণা দেন শিক্ষার্থীরা।

শিক্ষামন্ত্রী জানিয়েছেন, আগামী তিনদিনের মধ্যে তদন্ত প্রতিবেদন হাতে পাওয়া যাবে। স্কুল কর্তৃপক্ষের কোনও ত্রুটি পেলে তাদের বিরুদ্ধে ব্যবস্থা নেয়া হবে।

উল্লেখ্য, গতকাল সোমবার রাজধানীর শান্তিনগর এলাকার বাসা থেকে ফ্যানের সঙ্গে ঝুলন্ত অবস্থায় অরিত্রির মরদেহ উদ্ধার করা হয়।

অরিত্রির বাবা দিলীপ অধিকারীর অভিযোগ, স্কুলের পরীক্ষায় মোবাইল ব্যবহার করে নকলের অভিযোগে অরিত্রিকে পরীক্ষা হল থেকে বের করে দেয়া হয়। এর পর সোমবার সে আবারও পরীক্ষায় অংশ নিতে গেলে স্কুল কর্তৃপক্ষ তার বাবা-মাকে ডেকে পাঠায়। এতে অপমান বোধ করে আত্মহত্যার পথ বেছে নেয় অরিত্রি।

[ প্রিয় পাঠক, আপনিও বিডিসারাদিন24 ডট কম অনলাইনের অংশ হয়ে উঠুন। লাইফস্টাইল, স্বাস্থ্য, ভ্রমণ, ক্যারিয়ার, পরামর্শ, রান্নার রেসিপি, ফ্যাশন-রূপচর্চা ও ঘরোয়া টিপস নিয়ে লিখুন এবং সংশ্লিষ্ট বিষয়ে ছবিসহ মেইল করুন- bdsaradin24@gmail.com-এ ঠিকানায়। লেখা আপনার নামে প্রকাশ করা হবে। নারীকন্ঠ এবং মত-দ্বিমত বিভাগে প্রকাশিত লেখার বিষয়, মতামত, মন্তব্য লেখকের একান্ত নিজস্ব। লেখকের মতামত, বক্তব্যের বিষয়বস্তু বা এর যথার্থতা নিয়ে  bdsaradin24.com আইনগত বা অন্য কোনো ধরণের দায় গ্রহণ করে না। ]

প্রতি মুহুর্তের সর্বশেষ খবর পেতে এখানে ক্লিক করে আমাদের ফেইসবুক পেইজে লাইক দিন

(লেখাটি পড়া হয়েছে 20 বার)


Print
এই পাতার আরও সংবাদ
bdsaradin24.com