কালাচাঁদপুর সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ের স্টুডেন্টস কাউন্সিল নির্বাচন-২০১৯ অনুষ্ঠিত

Print

কালাচাঁদপুর সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ের স্টুডেন্টস কাউন্সিল নির্বাচন-২০১৯ অনুষ্ঠিত

-এম.সোহেল রানা; মেহেরপুর প্রতিনিধিঃ “কৈশোর থেকে গণতন্ত্রের চর্চা”এই কথাটা সামনে রেখে, আজ (২০ফেব্রুয়ারী-১৯ইং) রোজ বুধবার, সারা দেশের ন্যায় মেহেরপুরেও কালাচাঁদপুর সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ের স্টুডেন্টস কাউন্সিল নির্বাচন-২০১৯ অনুষ্ঠিত হয়েছে। স্টুডেন্টস কাউন্সিল নির্বাচনে ভোট গ্রহন চলে সকাল ৯টা থেকে বিরতিহীন ভাবে দুপুর ১টা পর্যন্ত।

প্রধান শিক্ষক মোঃ ইকাব আলী, সহকারি শিক্ষক মোঃ জাহান আলী, সারমিন ফারহানা, আসমা খন্দকার ও কামরুল স্যারের তত্ত্বাবধানে প্রধান নির্বাচন কমিশনার (৫ম শ্রেণীর ছাত্র) মোঃ সোহানুর রহমানের নেতৃত্বে প্রিজাইডিং অফিসার মোছাঃ সাথী খাতুন ও সহকারী প্রিজাইডিং অফিসার মোছাঃ মাফিজা খাতুন এবং পোলিং অফিসার মোছাঃ সামিয়া খাতুন স্টুডেন্টস কাউন্সিলের ভোটারদের ভোট গ্রহন করে, স্টুডেন্টস কাউন্সিলের সকল ভোটাররা আনন্দঘন পরিবেশে মূল্যবান ভোট তাদের পছন্দনীয় প্রার্থীদের প্রদান করে থাকে।

স্টুডেন্টস কাউন্সিলর পদপ্রার্থী ৩য়, ৪র্থ ও ৫ম শ্রেণি থেকে ৪জন করে মোট ১২জন শিক্ষার্থী অংশ গ্রহন করে। স্টুডেন্টস কাউন্সিলর পদ প্রার্থীরা হলোঃ- ৩য় শ্রেণি হতে; রিনা, অনামিকা, তামিম, রকি। ৪র্থ শ্রেণি হতে; ফাহমিদা, সুরভী, মহিদুল, আহসান হাবিব। ৫ম শ্রেণি হতে; রিয়া, নিম্মি, ফয়সাল, রামিম।
এদের মধ্যে স্টুডেন্টস কাউন্সিলর নির্বাচনে বিজয় লাভ করে ৭ জন প্রার্থী তাঁরা হলো- ফাহমিদা, অনামিকা, রিনা, ফয়সাল, রিয়া, রামিম, সুরভী। স্টুডেন্টস কাউন্সিলের নিকটস্থ প্রতিদ্বন্দ্বি পরাজিত হয়েছে- ৫জন প্রার্থী।

বিদ্যালয়ের উন্নয়নে শিক্ষকদের সহযোগীতায় ৭জন বিজয়ীকে তাদের কর্মপরিধির দায়িত্ব বুঝিয়ে দেওয়া হবে। স্টুডেন্টস কাউন্সিলরদের কর্মপরিধিতে দায়িত্বগুলো হলো-
১। অভ্যার্থনা ও আপ্যায়ন,
২। স্বাস্থ্য,
৩। পানি সম্পদ,
৪। পরিবেশ সংরক্ষণ,
৫। বৃক্ষরোপণ,
৬। ক্রীড়া ও সাংস্কৃতি,
৭। পুস্তক ও শিখন সামগ্রী ইত্যাদি।

কৈশোর থেকে গণতন্ত্রের চর্চা, অন্যের মতামতের প্রতি সহিষ্ণুতা এবং শ্রদ্ধা, শিক্ষকদের সহায়তা, শিক্ষা প্রতিষ্ঠানের পরিবেশ উন্নয়ন কর্মকাণ্ডে শিক্ষার্থীদের অংশগ্রহণ এছাড়াও ক্রীড়া, সংস্কৃতি ও সহশিক্ষা কার্যক্রমে শিক্ষার্থীদের অংশগ্রহণ নিশ্চিত করাই হচ্ছে সারাদেশে সরকারি বেসরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয় সমূহের স্টুডেন্টস কাউন্সিল নির্বাচনের উদ্দেশ্য। রাজনীতির চর্চা মানে তো আসলেই গণতান্ত্রিক মূল্যবোধের চর্চা, অন্যের মতামতকে মূল্যায়ন করার শিক্ষা লাভ করা, আত্ম ও মনোবিকাশের চর্চা করা। এই চর্চার মাধ্যমেই দেশ ও জাতির উন্নয়ন করা সম্ভব।

বিভিন্ন পর্যায়ের অভিভাবকরা স্টুডেন্টস কাউন্সিল সম্পর্কে মতামত জানতে চাইলে তারা জানাই- শিক্ষার্থীদের মধ্যে গণতান্ত্রিক মূল্যবোধ এবং শৃঙ্খলা চর্চা ছোটবেলা থেকেই শুরু হোক। আমরাও তা-ই চাই। আমাদের প্রজন্ম গণতান্ত্রিক এবং সুশৃঙ্খল মনোভাবাপন্ন হয়ে গড়ে উঠুক। ছাত্র রাজনীতির গৌরবোজ্জ্বল ইতিহাস আরও সমৃদ্ধ করুক। বাংলাভাষা, বাংলাদেশ প্রতিষ্ঠায় ছাত্র রাজনীতির যে অবদান তা হৃদয়ে ধারণ করে দেশপ্রেম পুঁজি করে তারা এক একজন বড়মাপের নেতা হবে– এমন পবিত্র আশা আমাদের সবার। এ কথা গুলো বললেন -এম.সোহল রানা, সাহিত্য পত্রিকা “মোমেনশাহী দর্পণ”র সহ-সম্পাদক ও সহ-সভাপতি, প্যারেন্টস টিচার্স এসোসিয়েশন (পিটিএ) কমিটি কালাচাঁদপুর সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়।

[ প্রিয় পাঠক, আপনিও বিডিসারাদিন24 ডট কম অনলাইনের অংশ হয়ে উঠুন। লাইফস্টাইল, স্বাস্থ্য, ভ্রমণ, ক্যারিয়ার, পরামর্শ, রান্নার রেসিপি, ফ্যাশন-রূপচর্চা ও ঘরোয়া টিপস নিয়ে লিখুন এবং সংশ্লিষ্ট বিষয়ে ছবিসহ মেইল করুন- bdsaradin24@gmail.com-এ ঠিকানায়। লেখা আপনার নামে প্রকাশ করা হবে। নারীকন্ঠ এবং মত-দ্বিমত বিভাগে প্রকাশিত লেখার বিষয়, মতামত, মন্তব্য লেখকের একান্ত নিজস্ব। লেখকের মতামত, বক্তব্যের বিষয়বস্তু বা এর যথার্থতা নিয়ে  bdsaradin24.com আইনগত বা অন্য কোনো ধরণের দায় গ্রহণ করে না। ]

প্রতি মুহুর্তের সর্বশেষ খবর পেতে এখানে ক্লিক করে আমাদের ফেইসবুক পেইজে লাইক দিন

(লেখাটি পড়া হয়েছে 72 বার)


Print
এই পাতার আরও সংবাদ
bdsaradin24.com