কাশ্মীরে অসহযোগ আন্দোলনের ডাক

Print

যুদ্ধের ডাক আগেই দেয়া হয়েছে কাশ্মীরে। এবার দেয়া হল অসহযোগ আন্দোলনের। দোকানপাট ও ব্যবসাপ্রতিষ্ঠান সব বন্ধ করে দিতে বলা হয়েছে।

অফিস-আদালত না যেতে নির্দেশ দেয়া হয়েছে সরকারি কর্মকর্তা-কর্মচারীদের। ভারত সরকার ও সেনা-পুলিশকে কোনো ধরনের সহযোগিতা না করার আহ্বান জানানো হয়েছে।

উপত্যকার স্বায়ত্তশাসন ও বিশেষ মর্যাদা কেড়ে নেয়ার সিদ্ধান্ত বাতিল না করা পর্যন্ত কাশ্মীরের সর্বস্তরের মানুষকে সর্বশক্তি দিয়ে আন্দোলন চালিয়ে যেতে বলা হয়েছে।

বিশেষ মর্যাদা বাতিল ও লাখ লাখ সেনা দিয়ে অবরোধ আরোপের এক মাসের মাথায় উপত্যকাজুড়ে হাজার হাজার পোস্টার মেরে এই অসহযোগ আন্দোলনের ডাক দেয়া হয়েছে।

তবে কে বা কারা এসব পোস্টার ছড়িয়েছে, তা জানা যায়নি। ভারতের গোয়েন্দা সূত্রগুলো বলছে, উপত্যকার জনগণের মধ্যে ভয় ছড়ানোর চেষ্টা করছে বিচ্ছিন্নতাবাদী গোষ্ঠীগুলো। খবর ইন্ডিয়া টুডে ও রয়টার্সের।

অবরুদ্ধ কাশ্মীরে কড়াকড়ি কিছুটা শিথিল হলেও উপত্যকাজুড়ে থমথমে অবস্থা বিরাজ করছে। এমন পরিস্থিতির মধ্যে গত সপ্তাহে কাশ্মীরজুড়ে ছড়িয়ে পড়ে ‘যুদ্ধ পোস্টার’।

এতে শেষ বুলেট পর্যন্ত সেনাদের লড়াইয়ের আহ্বান জানানো হয়। পোস্টারে নির্দিষ্ট কোনো গোষ্ঠীর নাম না থাকায় এ ঘটনায় পাকিস্তানের দিকেই অভিযোগের তীর ছুড়ছে ভারত।

[ প্রিয় পাঠক, আপনিও বিডিসারাদিন24 ডট কম অনলাইনের অংশ হয়ে উঠুন। লাইফস্টাইল, স্বাস্থ্য, ভ্রমণ, ক্যারিয়ার, পরামর্শ, রান্নার রেসিপি, ফ্যাশন-রূপচর্চা ও ঘরোয়া টিপস নিয়ে লিখুন এবং সংশ্লিষ্ট বিষয়ে ছবিসহ মেইল করুন- bdsaradin24@gmail.com-এ ঠিকানায়। লেখা আপনার নামে প্রকাশ করা হবে। নারীকন্ঠ এবং মত-দ্বিমত বিভাগে প্রকাশিত লেখার বিষয়, মতামত, মন্তব্য লেখকের একান্ত নিজস্ব। লেখকের মতামত, বক্তব্যের বিষয়বস্তু বা এর যথার্থতা নিয়ে  bdsaradin24.com আইনগত বা অন্য কোনো ধরণের দায় গ্রহণ করে না। ]

প্রতি মুহুর্তের সর্বশেষ খবর পেতে এখানে ক্লিক করে আমাদের ফেইসবুক পেইজে লাইক দিন

(লেখাটি পড়া হয়েছে 47 বার)


Print
এই পাতার আরও সংবাদ
bdsaradin24.com