কেন্দুয়া-আটপাড়ার দুর্গোৎসবের পূঁজারীরা মনোনয়ন প্রত্যাশী মানিকের প্রতি  সন্তুষ্টি

Print

 

মাঈন উদ্দিন সরকার রয়েলঃ নেত্রকোনা-৩ (আটপাড়া-কেন্দুয়ায়) আসনে আওয়ামীলীগের দলীয় প্রতীক নৌকার মনোনয়ন প্রত্যাশী বঙ্গবন্ধু হত্যার প্রথম প্রতিবাদকারীদের মধ্যে অন্যতম প্রতিবাদকারী বীর মুক্তিযোদ্ধা এডভোকেট সাইদুর রহমান মানিক কেন্দুয়া-আটপাড়ার অধিকাংশ পূঁজারীদের মন জয় করে তাদের হৃদয়ে ঠাঁই করে নিয়েছেন নিজগুণে,স্বমহিমায় । তাঁর সাবলীল আচরণের মাধ্যমে সকলের প্রাণে প্রাণে মিশে যাওয়ার ঐশী গুণ হিন্দু-মুসলিম গনমানুষকে করেছে মুগ্ধ । ফলে কেন্দুয়া-আটপাড়ার অধিকাংশ পূঁজারীরা সাইদুর রহমান মানিকের প্রতি সন্তুষ্টি প্রকাশ করেছেন ।

সম্প্রতি অনুষ্ঠিত হয়ে যাওয়া শারদীয় দূর্গোৎসবে তিনি কেন্দুয়া-আটপাড়ার বিভিন্ন পূঁজো মন্ডপে ঘুরে বেড়িয়েছেন ,পরিদর্শন করেছেন, পূঁজারীদের সাথে করেছেন মত বিনিময় । সিংহভাগ পূঁজা মন্ডপে করেছেন উপহার প্রদান ।

সনাতন ধর্মালম্বীদের ধর্মীয় উৎসবে সকলের সাথে তিনি মেতেছেন আনন্দে । সাইদুর রহমানকে মানিককেও তারা গ্রহণ করেছেন সানন্দে । আনন্দ হিলোল আর অগাধ শাস্ত্রীয় জ্ঞান গর্ভ প্রাঞ্জল বক্তব্যে পূঁজারীরা হয়েছে অভিভূত ।

অপরাপর মনোনয়ন প্রত্যাশীরাও পূঁজা মন্ডপ পরিদর্শন করেছেন । তবে অনেক মনোনয়ন প্রত্যাশীদের ভীড়ে পূঁজারীদের কাছে সাইদুর রহমান মানিককে প্রকৃত গণমানুষের নেতা বলে মনে হয়েছে-এমন মন্তব্য প্রকাশ করেছেন কেন্দুয়া-আটপাড়ার অধিকাংশ পূঁজারী ।

অনেকেই বলেছেন আমাদের পূঁজা উপলক্ষে ঊঁনার সাথে মিশতে পেরে বুঝতে পেরেছি-উঁনার উপহার প্রদান বা দানের হাত যেমন বড়,তার চেয়ে আরও বেশী বড় সােইদুর রহমান মানিকের মন ।

আটপাড়া উপজেলার হিন্দু সম্প্রদায়ের একজন ইউনিয়ন আওয়ামীলীগের পদবীধারী নেতা চোখের অশ্রু জড়িয়ে বলেন- এ আসনে আমাদের সম্প্রদায়ের কযেকজন নেতাও রয়েছেন মনোনয়ন প্রত্যাশী । তবে কষ্টে বুক ফেটে যায়-তারা শ্লোগান  দিয়ে আমাদের পূঁজা মন্ডপের সামনে দিয়ে অন্য পূঁজা মন্ডপে এসেছে এবং গেছে । কিন্তু আমাদের পূঁজা মন্ডপে আসেন নি । অথচ সাইদুর রহমান মানিক প্রায় সকল মন্ডপে যেমন গেছেন,তেমন আমাদের মন্ডপেও এসেছেন এবং আমাদেরকে সর্বোর্চ্চ সম্মানিত করে এক অনন্য সম্প্রীতির মেল বন্ধনে আবদ্ধ করেছেন । আমাদেরকে সাইদুর রহমান মানিক কৃতজ্ঞতার বন্ধনে আবদ্ধ করেছেন । তাই দূর্গা মায়ের কাছে প্রার্থনা করি তিনি যেন তাঁর মনোবাসনা পূর্ণ করেন ।

কেন্দুয়া উপজেলার বেশ কয়েকজন পূঁজারী বলেছেন-আমরা অভিভূত হয়েছি সাইদুর রহমান মানিকের আচার আচরণে । তিনি আমাদেরকে বুকে টেনে নিয়েছেন । আমাদের সাথে এক সাথে বসে উপভোগ করেছেন সার্বজনীন দূ্র্গোৎসব । পূঁজা-অর্চনার জ্ঞানগর্ভ আলোচনায় আমাদেরকে করেছেন তিনি বিমোহিত । প্রকৃত পক্ষে গনমানুষের নেতা হিসেবে সাইদুর রহমান মানিককেই বেশী মানায় ।

অপর এক পূঁজারী বলেছেন-শারদীয় দূ্র্গোৎসবকে ঘিরে সাইদুর রহমান মানিক সম্পর্কে আমার অনেক জ্ঞান হয়েছে । তিনি হলেন এমনই একজন মানুষ-যাকে কাঁটার আঘাত দিলে তিনি ফুলের মালা উপহার দেন । পল্লী কবি জসীম উদ্দিনের প্রতিদান কবিতার মতই আমার এ ঘর ভাঙ্গিয়াছে যেবা,আমি বাঁধি তার ঘর । এ কবিতার যথার্থ ভাব মানিক সাহেবের মধ্যে বিদ্যমান । এমন মানুষই গণমানুষের নেতা হওয়ার যোগ্য । তাই কেন্দুয়া-আটপাড়া পল্লী জনপদের নেতা হিসেবে সাইদুর রহমান মানিককে আগামীদিনে মনোনয়ন দিলে পল্লীবাসী ও হিন্দু মুসলিম গণমানুষ নিরাপদে সার্বজনীন সম্প্রীতি বজায় রেখে উন্নয়নের ছোঁয়া পাওয়ার সম্ভাবনা বেশী ।

 

 

[ প্রিয় পাঠক, আপনিও বিডিসারাদিন24 ডট কম অনলাইনের অংশ হয়ে উঠুন। লাইফস্টাইল, স্বাস্থ্য, ভ্রমণ, ক্যারিয়ার, পরামর্শ, রান্নার রেসিপি, ফ্যাশন-রূপচর্চা ও ঘরোয়া টিপস নিয়ে লিখুন এবং সংশ্লিষ্ট বিষয়ে ছবিসহ মেইল করুন- bdsaradin24@gmail.com-এ ঠিকানায়। লেখা আপনার নামে প্রকাশ করা হবে। নারীকন্ঠ এবং মত-দ্বিমত বিভাগে প্রকাশিত লেখার বিষয়, মতামত, মন্তব্য লেখকের একান্ত নিজস্ব। লেখকের মতামত, বক্তব্যের বিষয়বস্তু বা এর যথার্থতা নিয়ে  bdsaradin24.com আইনগত বা অন্য কোনো ধরণের দায় গ্রহণ করে না। ]

প্রতি মুহুর্তের সর্বশেষ খবর পেতে এখানে ক্লিক করে আমাদের ফেইসবুক পেইজে লাইক দিন

(লেখাটি পড়া হয়েছে 149 বার)


Print
এই পাতার আরও সংবাদ
bdsaradin24.com