গরিব স্কুল শিক্ষক থেকে বিশ্বের শীর্ষ ধনী!

Print

জ্যাক মা-এর জীবন নিয়ে লেখা ‘আলিবাবা: দ্যা হাউস দ্যাট জ্যাক মা বিল্ট’ বইয়ে বলা হয়েছে ১৯৯৯ সালে নিজের অ্যাপার্টমেন্টে জ্যাক যখন আলিবাবা নামে সংস্থা খুলেছিলেন তখন সকলে তাকে সন্দেহের চোখে দেখতেন। প্রতারক ভাবতেন অনেকেই।

পরে অবশ্য মানুষ বুঝতে পেরেছিলেন যে তিনি প্রতারক নয়। বরং তার উদ্যোগে সাধারণ মানুষের জীবনে অনেক কিছু আরও সহজ হয়ে উঠতে চলেছে।

মাইক্রোসফটের প্রতিষ্ঠাতা বিল গেটস বা অ্যাপল কম্পিউটারের প্রতিষ্ঠাতা স্টিভ জবসের মতো কম্পিউটার সায়েন্সের কোনো ব্যাকগ্রাউন্ড তার নেই। ছোটবেলায় কোনোদিন তিনি কম্পিউটার ব্যবহার করেননি। অঙ্কে একবার তিনি ১২০ তে ১ পেয়েছিলেন। ১৯৮০ সালে স্কুল শিক্ষকের চাকরি করা সেই জ্যাক মা এখন বিশ্বের ১৬তম শীর্ষ ধনী।

ব্যবসার কারণে ১৯৯৪ সালে তিনি যখন আমেরিকায় গিয়েছিলেন তখন ইন্টারনেট পরিষেবা দেখে চমকে গিয়েছিলেন। কীভাবে মানুষ বাড়িতে বসেও বন্ধু ও আত্মীয়দের সঙ্গে ইন্টারনেটের মাধ্যমে যোগাযোগ রাখতে পারেন তা জ্যাক মা-কে বিস্মত করেছিল।

এরপর ২১ ফেব্রুয়ারি ১৯৯৯ সালে জ্যাক মা আলিবাবা শুরু করেন। এর জন্য ১৭ জন বন্ধুকে তৈরি করেছিলেন। এরপর আর ফিরে তাকাতে হয়নি তাকে। এখন বিশ্বে ই কামর্স সাইটের মধ্যে অন্যতম জনপ্রিয় ‘আলিবাবা’।

[ প্রিয় পাঠক, আপনিও বিডিসারাদিন24 ডট কম অনলাইনের অংশ হয়ে উঠুন। লাইফস্টাইল, স্বাস্থ্য, ভ্রমণ, ক্যারিয়ার, পরামর্শ, রান্নার রেসিপি, ফ্যাশন-রূপচর্চা ও ঘরোয়া টিপস নিয়ে লিখুন এবং সংশ্লিষ্ট বিষয়ে ছবিসহ মেইল করুন- bdsaradin24@gmail.com-এ ঠিকানায়। লেখা আপনার নামে প্রকাশ করা হবে। নারীকন্ঠ এবং মত-দ্বিমত বিভাগে প্রকাশিত লেখার বিষয়, মতামত, মন্তব্য লেখকের একান্ত নিজস্ব। লেখকের মতামত, বক্তব্যের বিষয়বস্তু বা এর যথার্থতা নিয়ে  bdsaradin24.com আইনগত বা অন্য কোনো ধরণের দায় গ্রহণ করে না। ]

প্রতি মুহুর্তের সর্বশেষ খবর পেতে এখানে ক্লিক করে আমাদের ফেইসবুক পেইজে লাইক দিন

(লেখাটি পড়া হয়েছে 240 বার)


Print
এই পাতার আরও সংবাদ
bdsaradin24.com