ঘুষখোর চিহ্নিত করতে ‘ঘুষ বোর্ড’!

Print

‘এই অফিসে যদি কাউকে ঘুষ দিয়ে থাকেন, তবে এই বোর্ডে বিবরণ লিখে যাবেন’। হাটহাজারী উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তার কার্যালয়ে দেয়ালে বসানো ‘ঘুষ বোর্ড’-এ লেখা আছে এই উক্তি।

কার্যালয়ের ঘুষখোর কর্মচারী চিহ্নিত করা এবং ঘুষের বিরুদ্ধে সামাজিক আন্দোলন গড়ে তুলতে এ ধরণের উদ্যোগের প্রশংসা করেছেন সুশীল সমাজের প্রতিনিধিরা।

নিজের কার্যালয়ে ‘ঘুষ বোর্ড’ লাগানোর কারণ ব্যাখ্যা করে উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা মো. রুহুল আমিন বাংলানিউজকে বলেন, সেবাপ্রার্থীরা সেবা নিতে এসে এ ধরণের অনৈতিক প্রস্তাব পেতেই পারেন। কিন্তু সেবা না পাওয়ার ভয়ে অনিচ্ছাসত্ত্বেও অনেকে এই প্রস্তাবে রাজি হতে বাধ্য হন। তাদের সহায়তার জন্যই এই ‘ঘুষ বোর্ড’।

তিনি বলেন, সেবা পাওয়া নাগরিক অধিকার। সেবা দেওয়ার বিনিময়ে কেউ ঘুষ চাইলে বা ঘুষ দিতে বাধ্য করলে সেবাপ্রার্থী বিষয়টি এই বোর্ডে লিখে যেতে পারেন। এতে অসৎ কর্মচারীকে আমরা চিহ্নিত করতে পারবো। যদি একজনও এ ধরণের অনিয়মের কথা লিখে যেতে পারেন, তবেই আমাদের সফলতা। এতে অন্তত ঘুষখোরদের পরিচিতি প্রকাশ করা যাবে।

মো. রুহুল আমিন বলেন, ঘুষ লেনদেনে জড়িত কাউকে ছাড় দেওয়া হবে না। পর্যায়ক্রমে ভূমি অফিস, পৌরসভা সহ সব সরকারি কার্যালয়ে ‘ঘুষ বোর্ড’ বসানোর পরিকল্পনা আছে।

[ প্রিয় পাঠক, আপনিও বিডিসারাদিন24 ডট কম অনলাইনের অংশ হয়ে উঠুন। লাইফস্টাইল, স্বাস্থ্য, ভ্রমণ, ক্যারিয়ার, পরামর্শ, রান্নার রেসিপি, ফ্যাশন-রূপচর্চা ও ঘরোয়া টিপস নিয়ে লিখুন এবং সংশ্লিষ্ট বিষয়ে ছবিসহ মেইল করুন- bdsaradin24@gmail.com-এ ঠিকানায়। লেখা আপনার নামে প্রকাশ করা হবে। নারীকন্ঠ এবং মত-দ্বিমত বিভাগে প্রকাশিত লেখার বিষয়, মতামত, মন্তব্য লেখকের একান্ত নিজস্ব। লেখকের মতামত, বক্তব্যের বিষয়বস্তু বা এর যথার্থতা নিয়ে  bdsaradin24.com আইনগত বা অন্য কোনো ধরণের দায় গ্রহণ করে না। ]

প্রতি মুহুর্তের সর্বশেষ খবর পেতে এখানে ক্লিক করে আমাদের ফেইসবুক পেইজে লাইক দিন

(লেখাটি পড়া হয়েছে 71 বার)


Print
এই পাতার আরও সংবাদ
bdsaradin24.com