চুয়াডাঙ্গায় ছাত্রীকে বাঁচাতে গিয়ে মামা নিহত

Print

চুয়াডাঙ্গায় মধ্যরাতে ঘরে ঢুকে স্কুলছাত্রীকে শ্লীলতাহানির চেষ্টার সময় বাধা দিতে গিয়ে বখাটের ছুরিকাঘাতে ওই ছাত্রীর মামা হাসান আলী নিহত হয়েছেন।

এ সময় স্কুলছাত্রীর মামা হাসান আলী ছাড়াও তার নানা শারীরিক প্রতিবন্ধী হামিদুর রহমান গুরুতর জখম হয়েছেন।

এ সময় প্রতিবেশীদের হাতে গণপিটুনিতে নিহত হয় হামলাকারী বখাটে আকবর আলীও। তিনি দামুড়হুদা উপজেলার মদনা গ্রামের আবুল কাশেমের ছেলে।

চুয়াডাঙ্গা সদর উপজেলার আমিরপুর গ্রামে শুক্রবার গভীররাতে এ ঘটনা ঘটে।

পুলিশ ও এলাকাবাসী সূত্রে জানা গেছে, আমিরপুর রেলগেটপাড়ার হামিদুর রহমানের বাড়িতে শুক্রবার রাতে সবাই ঘুমিয়ে ছিল। রাত সাড়ে ১২টার দিকে বখাটে আকবর আলী ছুরি নিয়ে বাড়িতে ঢোকে।

এ সময় হামিদুরের ভাগ্নি ওই স্কুলছাত্রীকে শ্লীলতাহানির চেষ্টা করে আকবর। ছাত্রীটির চিৎকার শুনে ছুটে যান মামা হাসান আলী ও তার পিতা শারীরিক প্রতিবন্ধী হামিদুর রহমান।

এ সময় বখাটে আকবর তিনজনকে ধারালো ছুরি দিয়ে এলোপাতাড়ি কোপাতে থাকে। তাদের চিৎকার চেঁচামেচি শুনে প্রতিবেশীরা ছুটে এসে বখাটে আকবরকে গণপিটুনি দেয়। সেখানেই নিহত হয় আকবর আলী।

মামা হাসান আলী ও নানা হামিদুর রহমানকে চুয়াডাঙ্গা সদর হাসপাতালে নেয়া হলে হাসান আলীকে (২৫) মৃত বলে ঘোষণা করেন জরুরি বিভাগের ডাক্তার।

বৃদ্ধ হামিদুর রহমানকে (৬০) গুরুতর আহত অবস্থায় ঢাকা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে পাঠানো হয়েছে। স্কুলছাত্রীর শরীরেও কয়েকটি ধারালো অস্ত্রের কোপের চিহ্ন আছে। তাকে চুয়াডাঙ্গা সদর হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে।

[ প্রিয় পাঠক, আপনিও বিডিসারাদিন24 ডট কম অনলাইনের অংশ হয়ে উঠুন। লাইফস্টাইল, স্বাস্থ্য, ভ্রমণ, ক্যারিয়ার, পরামর্শ, রান্নার রেসিপি, ফ্যাশন-রূপচর্চা ও ঘরোয়া টিপস নিয়ে লিখুন এবং সংশ্লিষ্ট বিষয়ে ছবিসহ মেইল করুন- bdsaradin24@gmail.com-এ ঠিকানায়। লেখা আপনার নামে প্রকাশ করা হবে। নারীকন্ঠ এবং মত-দ্বিমত বিভাগে প্রকাশিত লেখার বিষয়, মতামত, মন্তব্য লেখকের একান্ত নিজস্ব। লেখকের মতামত, বক্তব্যের বিষয়বস্তু বা এর যথার্থতা নিয়ে  bdsaradin24.com আইনগত বা অন্য কোনো ধরণের দায় গ্রহণ করে না। ]

প্রতি মুহুর্তের সর্বশেষ খবর পেতে এখানে ক্লিক করে আমাদের ফেইসবুক পেইজে লাইক দিন

(লেখাটি পড়া হয়েছে 31 বার)


Print
bdsaradin24.com