চোখের মনি বা কর্নিয়া মিথ্যা বললে প্রসারিত হয়

Print

 

মানুষ তাদের চোখের pupil এর আকার নিয়ন্ত্রণ করতে পারে না, এটি সম্পূর্ণ অনৈচ্ছিক(involuntary) । মিথ্যা বললে এটি প্রসারিত(dilates) হয়।
স্বায়ত্তশাসিত স্নায়ুতন্ত্র ( autonomic nervous system) সচেতন নিয়ন্ত্রণ (অনৈচ্ছিক ক্রিয়া) ছাড়াই ঘটে এমন শারীরিক ক্রিয়াকে নিয়ন্ত্রণ করে। এই সিস্টেমটি দুটি শাখায় বিভক্ত: সিমপ্যাথেটিক(sympathetic) স্নায়ুতন্ত্র এবং প্যারাসিমপ্যাথেটিক(parasympathetic) স্নায়ুতন্ত্র। প্রত্যেককে একটি সংক্ষিপ্ত সাধারণ বিবৃতি দিয়ে বর্ণনা করা যায়:
সিমপ্যাথেটিক(sympathetic) সিস্টেমটি “লড়াই বা পলায়ন” পরিস্থিতিতে বেশি সক্রিয় থাকে।
প্যারাসিমপ্যাথেটিক(parasympathetic) সিস্টেমটি “বিশ্রাম ও হজম” অবস্থায় বেশি সক্রিয় থাকে। অন্য কথায়, সিমপ্যাথেটিক(sympathetic) স্নায়ুতন্ত্র আপনার দেহটিকে আপনার সুরক্ষার জন্য একধরণের হুমকির সাথে মোকাবিলা করতে সামঞ্জস্য করে, যেখানে প্যারাসিমপ্যাথেটিক(parasympathetic) স্নায়ুতন্ত্র আপনার শরীরকে শক্তি সংরক্ষণ এবং বিশ্রামের সময় দক্ষ হওয়ার জন্য সামঞ্জস্য করে (যেমন ভাল ঘুম, ভাল হজম ইত্যাদি)।
এখন, মিথ্যা বলতে সাধারণত কিছুটা চাপ বা উদ্বেগ জড়িত থাকে (যদি আপনি খুব ভাল মিথ্যাবাদী না হয়ে থাকেন), কারণ আপনি একটি নির্দিষ্ট মাত্রায় উদ্বিগ্ন হতে পারেন যে মিথ্যাটি প্রকাশিত হবে। এই টানটি অবচেতনভাবে সিমপ্যাথেটিক(sympathetic) স্নায়ুতন্ত্রকে ট্রিগার করে, যা আপনার সারা শরীরে নির্দিষ্ট প্রভাব ফেলবে। সিমপ্যাথেটিক(sympathetic) উদ্দীপনা চোখের আইরিস এ র‌্যাডিয়ালি অরিয়েন্টেড পিওপিলারি ডাইলেটর পেশী তন্তুগুলির সংকোচন ঘটায় এবং এর ফলে মাইড্রিয়াসিস হবে- অর্থাৎ pupil প্রসারিত(dilates) হবে । বিপরীত প্রভাব ঘটে যখন চোখ প্যারাসিমপ্যাথেটিক(parasympathetic) স্টিমুলেশন পায় (যেমন আপনি যখন শান্ত হন, সম্ভবত সত্যকে স্বীকার করার পরে ), এবং তখন মিয়োসিস (pupil এর সংকোচন) ঘটে।
সংক্ষেপে, যেহেতু মিথ্যা বলতে সাধারণত উত্তেজনা জড়িত থাকে এবং উত্তেজনা সিমপ্যাথেটিক(sympathetic) ক্রিয়াকলাপ বৃদ্ধি করে তাই pupil প্রসারিত(dilates) হবে ।
Medical Science, Why do pupils dilate when someone says a lie? Other physical symptoms when someone is lying?, 2016

সংক্ষেপে, চোখের pupil মিথ্যা বললে প্রসারিত(dilates) হয়।
মিথ্যাবাদীরা তাদের দেহের ভাষা নিয়ন্ত্রণ করতে পারে কিন্তু তারা তাদের pupil নিয়ন্ত্রণ করতে পারে না। তাদের pupil তাদের প্রকাশ করে দেয়।
১৪০০ বছর আগে এটি কুরআনে চিত্রিত হয়েছিল:
৪০.১৯
١٩ يَعْلَمُ خَائِنَةَ الْأَعْيُنِ وَمَا تُخْفِي الصُّدُورُ
তিনি জানেন চোখের বিশ্বাসঘাতকতা এবং হৃদয় যা গোপন করে।

[ প্রিয় পাঠক, আপনিও বিডিসারাদিন24 ডট কম অনলাইনের অংশ হয়ে উঠুন। লাইফস্টাইল, স্বাস্থ্য, ভ্রমণ, ক্যারিয়ার, পরামর্শ, রান্নার রেসিপি, ফ্যাশন-রূপচর্চা ও ঘরোয়া টিপস নিয়ে লিখুন এবং সংশ্লিষ্ট বিষয়ে ছবিসহ মেইল করুন- bdsaradin24@gmail.com-এ ঠিকানায়। লেখা আপনার নামে প্রকাশ করা হবে। নারীকন্ঠ এবং মত-দ্বিমত বিভাগে প্রকাশিত লেখার বিষয়, মতামত, মন্তব্য লেখকের একান্ত নিজস্ব। লেখকের মতামত, বক্তব্যের বিষয়বস্তু বা এর যথার্থতা নিয়ে  bdsaradin24.com আইনগত বা অন্য কোনো ধরণের দায় গ্রহণ করে না। ]

প্রতি মুহুর্তের সর্বশেষ খবর পেতে এখানে ক্লিক করে আমাদের ফেইসবুক পেইজে লাইক দিন

(লেখাটি পড়া হয়েছে 54 বার)


Print
এই পাতার আরও সংবাদ
bdsaradin24.com