জলঢাকায় ইভটিজিংকারী  যুবকের ভ্রাম্যমাণ আদালতে  ৬ মাসের জেল।

Print

মনোয়ার হোসেন লিটন জলঢাকা নীলফামারী প্রতিনিধিঃ 

নীলফামারীর  জলঢাকায় ইভটিজিং করার দায়ে একরামুল হক ( ২২ ) নামের এক যুবক কে ভ্রাম্যমাণ আদালতে ৬ মাসের  জেল প্রদান করেছেন উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা  ও নির্বাহী ম্যাজিষ্ট্রেট সুজাউদৌলা সুজা।
শনিবার দুপুরে উপজেলা  নির্বাহী কর্মকর্তার  কার্যালয়ে ভ্রাম্যমান আদালত পরিচালনার মাধ্যমে এ সাজা দেওয়া হয়।
সুত্র মতে, পৌর শহরের ৪ নং ওয়ার্ড বগুলাগাড়ী  গ্রামের বাসিন্দা হাফিজুর রহমান (৪৮) এর কলেজ পড়ুয়া কন্যা কে পাশ্ববর্তী  একই এলাকার ছাইদুল ইসলাম ( ৫০ ) এর পুত্র রংপুর কারমাইকেল কলেজের মাস্টার্সের ছাত্র একরামুল হক প্রায় কয়েক মাস ধরে উত্যক্ত করে আসছিল।   বিষয়টি মেয়েটি তার  বাবা-মা সহ পরিবারের কাছে জানালে, ছেলেটি কে মৌখিক ভাবে স্থানীয় ভাবে শাষন করে, কোন কাজ না হওয়ায়, মেয়েটির বাবা হাফিজুল ইসলাম উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা  বরারব একটি লিখিত অভিযোগ করেন।
এ  অভিযোগের প্রেক্ষিতে শনিবার সকালে থানা পুলিশের সহায়তায় একরামুল কে তার নিজ  বাড়ি থেকে আটক করা হয় এবং পরে তাকে  ভ্রাম্যমান আদালতের মাধ্যমে  ৬ মাসের জেল প্রদান করেন উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা  ও নির্বাহী ম্যাজিষ্ট্রেট সুজাউদ্দৌলা সুজা।

[ প্রিয় পাঠক, আপনিও বিডিসারাদিন24 ডট কম অনলাইনের অংশ হয়ে উঠুন। লাইফস্টাইল, স্বাস্থ্য, ভ্রমণ, ক্যারিয়ার, পরামর্শ, রান্নার রেসিপি, ফ্যাশন-রূপচর্চা ও ঘরোয়া টিপস নিয়ে লিখুন এবং সংশ্লিষ্ট বিষয়ে ছবিসহ মেইল করুন- bdsaradin24@gmail.com-এ ঠিকানায়। লেখা আপনার নামে প্রকাশ করা হবে। নারীকন্ঠ এবং মত-দ্বিমত বিভাগে প্রকাশিত লেখার বিষয়, মতামত, মন্তব্য লেখকের একান্ত নিজস্ব। লেখকের মতামত, বক্তব্যের বিষয়বস্তু বা এর যথার্থতা নিয়ে  bdsaradin24.com আইনগত বা অন্য কোনো ধরণের দায় গ্রহণ করে না। ]

প্রতি মুহুর্তের সর্বশেষ খবর পেতে এখানে ক্লিক করে আমাদের ফেইসবুক পেইজে লাইক দিন

(লেখাটি পড়া হয়েছে 79 বার)


Print
এই পাতার আরও সংবাদ
bdsaradin24.com