‘জাহালমের কারাভোগে দায় নেই সোনালী ব্যাংকের’

Print

২০১৭ সালের ২৩ ফেব্রুয়ারি নিরীহ জাহালমকে ঢাকার বিশেষ জজ আদালত–৬ এ হাজির করা হয়। শুনানি শেষে জাহালমকে সেদিন ঢাকার আদালতের হাজতখানার দিকে নিয়ে যাচ্ছে পুলিশ। ছবি: আসাদুজ্জামান

সোনালী ব্যাংকের সাড়ে ১৮ কোটি টাকা আত্মসাতে জড়িত আবু সালেকের পরিবর্তে নিরীহ পাটকলশ্রমিক জাহালমকে শনাক্তকরণে সোনালী ব্যাংকের কোনো দায় নেই। সোনালী ব্যাংকের কোনো কর্মকর্তা আবু সালেকের পরিবর্তে জাহালমকে শনাক্ত করেননি।

সোনালী ব্যাংক কর্তৃপক্ষ গত বৃহস্পতিবার এক প্রতিবেদন দিয়ে হাইকোর্টকে এই তথ্য জানিয়েছে। বিচারপতি এফ আর এম নাজমুল আহসান ও বিচারপতি কামরুল কাদেরের সমন্বয়ে গঠিত হাইকোর্ট বেঞ্চে এই প্রতিবেদন জমা দিয়েছে সোনালী ব্যাংক।

সোনালী ব্যাংকের আইনজীবী শেখ মো. জাকির হোসেন বলেন, সোনালী ব্যাংকের টাকা আত্মসাতের ঘটনায় সরাসরি জড়িত ছিলেন আবু সালেক। কিন্তু আবু সালেকের পরিবর্তে নিরীহ জাহালমকে শনাক্তকরণে সোনালী ব্যাংকের কোনো দায় ছিল না। এ ঘটনায় সোনালী ব্যাংকের কোনো কর্মকর্তা জড়িত ছিলেন না।

সোনালী ব্যাংকের এই আইনজীবী জানান, সোনালী ব্যাংকের ঋণ জালিয়াতির ঘটনায় সোনালী ব্যাংকের আটজন কর্মকর্তা-কর্মচারীর বিরুদ্ধে বিভাগীয় ব্যবস্থা নেওয়া হয়। এসব কর্মকর্তার কারও বেতন বৃদ্ধি বন্ধ করা হয়।

সোনালী ব্যাংকের ঋণ জালিয়াতির ঘটনার সব মামলাতেই আবু সালেক নামের এক ব্যক্তির নাম ছিল। তবে তদন্তে অন্যতম প্রধান আসামি আবু সালেকের পরিবর্তে টাঙ্গাইলের পাটকলশ্রমিক জাহালামের নামে অভিযোগপত্র দেয় দুর্নীতি দমন কমিশন (দুদক)। পরে জাহালমকে গ্রেপ্তার করা হয় এবং বিনা দোষে তিন বছর কারাভোগও করেন তিনি।

গত ৩০ জানুয়ারি  ‘স্যার, আমি জাহালম, সালেক না’ শীর্ষক প্রতিবেদন প্রকাশিত হয়। ওই প্রতিবেদনটি সেদিন বিচারপতি এফ আর এম নাজমুল আহসান ও বিচারপতি কামরুল কাদেরের সমন্বয়ে গঠিত হাইকোর্ট বেঞ্চের নজরে আনেন সুপ্রিম কোর্টের আইনজীবী অমিত দাশ গুপ্ত। এরপর শুনানি নিয়ে জাহালমের আটকাদেশ কেন অবৈধ ঘোষণা করা হবে না, তা জানতে চেয়ে স্বতঃপ্রণোদিত রুল জারি করেন হাইকোর্ট। এরপর হাইকোর্টের আদেশে গত ৩ ফেব্রুয়ারি পাটকলশ্রমিক জাহালম কারাগার থেকে ছাড়া পান।

[ প্রিয় পাঠক, আপনিও বিডিসারাদিন24 ডট কম অনলাইনের অংশ হয়ে উঠুন। লাইফস্টাইল, স্বাস্থ্য, ভ্রমণ, ক্যারিয়ার, পরামর্শ, রান্নার রেসিপি, ফ্যাশন-রূপচর্চা ও ঘরোয়া টিপস নিয়ে লিখুন এবং সংশ্লিষ্ট বিষয়ে ছবিসহ মেইল করুন- bdsaradin24@gmail.com-এ ঠিকানায়। লেখা আপনার নামে প্রকাশ করা হবে। নারীকন্ঠ এবং মত-দ্বিমত বিভাগে প্রকাশিত লেখার বিষয়, মতামত, মন্তব্য লেখকের একান্ত নিজস্ব। লেখকের মতামত, বক্তব্যের বিষয়বস্তু বা এর যথার্থতা নিয়ে  bdsaradin24.com আইনগত বা অন্য কোনো ধরণের দায় গ্রহণ করে না। ]

প্রতি মুহুর্তের সর্বশেষ খবর পেতে এখানে ক্লিক করে আমাদের ফেইসবুক পেইজে লাইক দিন

(লেখাটি পড়া হয়েছে 33 বার)


Print
এই পাতার আরও সংবাদ
bdsaradin24.com