জিয়া, এরশাদ ও খালেদা সরকার বঙ্গবন্ধুর খুনিদের পুনর্বাসন করেছে

Print

গৃহায়ণ ও গণপূর্তমন্ত্রী শ ম রেজাউল করিম বলেছেন, স্বাধীনতাবিরোধী ও প্রতিক্রিয়াশীল দেশি-বিদেশি চক্র মিলে জাতির জনক বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের হত্যাকাণ্ড সংগঠিত করে। পরে জিয়া, এরশাদ ও খালেদার অগণতান্ত্রিক সরকারগুলো বঙ্গবন্ধুর খুনিদের পুনর্বাসন করেছে। শুক্রবার (৩০ আগস্ট) দুপুরে স্বরুপকাঠি উপজেলা পরিষদ চত্বরে জাতীয় শোক দিবসের আলোচনায় মন্ত্রী এসব কথা বলেন।

মন্ত্রী অভিযোগ করেন, বঙ্গবন্ধুকে স্বপরিবারে হত্যার পর জিয়াউর রহমান খুনিদের দেশের বাইরে পুনর্বাসন করেন। তিনি (জিয়াউর রহমান) বঙ্গবন্ধুর হত্যার মদতদাতা ও উপকারভোগী। এরপর এরশাদ ও খালেদা জিয়া বঙ্গবন্ধুর আত্মস্বীকৃত খুনিদের রাজনীতিতে পুনর্বাসন করেছেন। যা এদেশের রাজনীতির ইতিহাসে কলঙ্কজনক অধ্যায়।

গণপূর্তমন্ত্রী বলেন, ১৯৭৫ সালের ১৫ আগস্টের ঘটনা শুধু বঙ্গবন্ধুকে হত্যার মধ্যে সীমাবদ্ধ নয়। ৭১-এর পরাজিত শক্তি প্রতিশোধ নিতে জেলখানায় জাতীয় চার নেতাকেও হত্যা করে। তারপরও তারা শঙ্কামুক্ত হতে না পেরে ২০০৪ সালের ২১ আগস্ট আওয়ামী লীগকে নেতৃত্ব শূন্য করার জন্য শেখ হাসিনার ওপর গ্রেনেড হামলা করে। ৭১, ৭৫ এর ১৫ আগস্ট ও ৩ নভেম্বর, ২০০৪ সালের ২১ আগস্টের আঘাতকারীরা এবং ১৯ বার শেখ হাসিনাকে হত্যার চেষ্টাকারীরা একইসূত্রে গাঁথা।

মন্ত্রী বঙ্গবন্ধুর পরিবারের আত্মত্যাগকে শক্তিতে পরিণত করে আগামী দিনের সমৃদ্ধ সোনার বাংলাদেশ গড়তে সবাইকে এক হয়ে কাজ করার আহ্বান জানান।

উপজেলা আওয়ামী লীগের সভাপতি আব্দুল হামিদের সভাপতিত্বে এসময় আরও বক্তব্য রাখেন সাবেক সংসদ সদস্য অধ্যক্ষ মো. শাহ আলম, বাংলাদেশ কলেজ বিশ্ববিদ্যালয় শিক্ষক সমিতির সাবেক সভাপতি অধ্যাপক এম এ বারী, সাবেক সচিব এম সামসুল হক, জেলা আওয়ামী লীগের যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক অ্যাড. কানাই লাল বিশ্বাস, কেন্দ্রীয় যুবলীগের সদস্য মো. কামরুজ্জামান শামিম, জেলা যুবলীগের সভাপতি মো. আক্তারুজ্জামান ফুলু, স্বরূপকাঠি উপজেলা চেয়ারম্যান আব্দুল হক, উপজেলা আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক এস এম ফুয়াদ, পৌর মেয়র গোলাম কবির, জেলা পরিষদ সদস্য অ্যাড. জাকারিয়া খান স্বপন, উপজেলা মহিলা ভাইস চেয়ারম্যান নার্গিস জাহান প্রমুখ।

[ প্রিয় পাঠক, আপনিও বিডিসারাদিন24 ডট কম অনলাইনের অংশ হয়ে উঠুন। লাইফস্টাইল, স্বাস্থ্য, ভ্রমণ, ক্যারিয়ার, পরামর্শ, রান্নার রেসিপি, ফ্যাশন-রূপচর্চা ও ঘরোয়া টিপস নিয়ে লিখুন এবং সংশ্লিষ্ট বিষয়ে ছবিসহ মেইল করুন- bdsaradin24@gmail.com-এ ঠিকানায়। লেখা আপনার নামে প্রকাশ করা হবে। নারীকন্ঠ এবং মত-দ্বিমত বিভাগে প্রকাশিত লেখার বিষয়, মতামত, মন্তব্য লেখকের একান্ত নিজস্ব। লেখকের মতামত, বক্তব্যের বিষয়বস্তু বা এর যথার্থতা নিয়ে  bdsaradin24.com আইনগত বা অন্য কোনো ধরণের দায় গ্রহণ করে না। ]

প্রতি মুহুর্তের সর্বশেষ খবর পেতে এখানে ক্লিক করে আমাদের ফেইসবুক পেইজে লাইক দিন

(লেখাটি পড়া হয়েছে 27 বার)


Print
এই পাতার আরও সংবাদ
bdsaradin24.com