টেন্ডুপাতায় উত্থান ওমর ফারুকের, বিনাশ ক্যাসিনোয়

Print

২৩ নভেম্বর আওয়ামী যুবলীগের ৭ম জাতীয় কংগ্রেস। সাত বছর ধরে দোর্দণ্ড প্রতাপে চেয়ারম্যানের দায়িত্ব পালন করা ওমর ফারুক চৌধুরীর ইচ্ছা ছিল ওই কংগ্রেসে সভাপতিত্ব করা। এ কারণে ক্যাসিনোবিরোধী অভিযান শুরু হওয়ার পর যুবলীগ থেকে বাদ পড়ছেন এই আঁচ পেয়ে কংগ্রেসে যেন সভাপতিত্ব করার শেষ সুযোগটুকু তাকে দেয়া হয় সে জন্য দেনদরবার করছিলেন। কিন্তু তার সেই আকাঙ্ক্ষা পূরণ হলো না। তাকে যুবলীগের চেয়ারম্যানের পদ থেকে অব্যাহতি দিয়েছেন যুবলীগের সাংগঠনিক নেত্রী ও আওয়ামী লীগ সভাপতি শেখ হাসিনা। এর মধ্য দিয়ে তার যুবলীগে রাজনীতি করার অধ্যায়ের পরিসমাপ্তি ঘটল।

ওমর ফারুক চৌধুরীর বিষয়ে অভিযোগের অন্ত নেই সংগঠনটির নেতাকর্মীদের। তিনি যুবলীগের রাজনীতিতে এসে অনেকটাই আঙুল ফুলে কলাগাছ। একসময় তামাকের বিকল্প টেন্ডুপাতার ব্যবসা করা ওমর ফারুক যুবলীগের রাজনীতির সুবাদে এখন গাড়ি-বাড়ির মালিক। তার অঢেল সম্পদের তথ্য বেরিয়ে আসছে। এসব করেও পার পেয়ে যাচ্ছিলেন ওমর ফারুক। অবশেষে ধরা খান ক্যাসিনোকাণ্ডে। ঢাকার ক্লাব ব্যবসার আড়ালে যারা অবৈধ জুয়ার ব্যবসা করে আসছেন, তাদের সঙ্গে দীর্ঘদিনের সখ্য ওমর ফারুকের। বিশেষ করে ঢাকা মহানগর দক্ষিণ যুবলীগের বহিষ্কৃত সভাপতি ইসমাইল হোসেন সম্রাট, সাংগঠনিক সম্পাদক খালেদ মাহমুদ ভূঁইয়া, যুগ্ম সম্পাদক কাউন্সিলর মমিনুল হক সাঈদ, সহসভাপতি এনামুল হক আরমানের ক্যাসিনো ব্যবসার সুবিধাভোগী ছিলেন তিনি। রিমান্ডে দেয়া জিজ্ঞাসাবাদে এসবের সত্যতা স্বীকার করেছেন সম্রাট ও খালেদ। সম্রাট জানিয়েছেন, ভিআইপিরা তার কাছ থেকে কাঁড়ি কাঁড়ি টাকা নিয়েছেন। তার ডেরা থেকে প্রতি মাসে ব্যাগভর্তি টাকা নিয়ে বেরিয়েছেন তারা। এসব ভিআইপির মধ্যে ওমর ফারুকও রয়েছেন বলে ধারণা করা হচ্ছে।

ক্যাসিনো সম্রাট ছিলেন ওমর ফারুকের অত্যন্ত আস্থাভাজন। ঢাকা দক্ষিণ যুবলীগের সাংগঠনিক সম্পাদক থেকে সভাপতি পদে সম্রাটের পদোন্নতি হয়েছে ওমর ফারুকের হাত ধরেই। সম্রাটকে যুবলীগের শ্রেষ্ঠ সংগঠক আখ্যা দিয়েছিলেন খোদ যুবলীগের তৎকালীন সভাপতি ওমর ফারুক।

ওমর ফারুকের বিরুদ্ধে দলীয় পদ বাণিজ্যের অভিযোগও রয়েছে। এ ছাড়া স্বেচ্ছাচারিতা, ইচ্ছামাফিক পদ দেয়া-পদ বাতিল করা ও নেতাকর্মীদের সঙ্গে অসদাচরণের অভিযোগ রয়েছে ওমর ফারুকের বিপক্ষে।

[ প্রিয় পাঠক, আপনিও বিডিসারাদিন24 ডট কম অনলাইনের অংশ হয়ে উঠুন। লাইফস্টাইল, স্বাস্থ্য, ভ্রমণ, ক্যারিয়ার, পরামর্শ, রান্নার রেসিপি, ফ্যাশন-রূপচর্চা ও ঘরোয়া টিপস নিয়ে লিখুন এবং সংশ্লিষ্ট বিষয়ে ছবিসহ মেইল করুন- bdsaradin24@gmail.com-এ ঠিকানায়। লেখা আপনার নামে প্রকাশ করা হবে। নারীকন্ঠ এবং মত-দ্বিমত বিভাগে প্রকাশিত লেখার বিষয়, মতামত, মন্তব্য লেখকের একান্ত নিজস্ব। লেখকের মতামত, বক্তব্যের বিষয়বস্তু বা এর যথার্থতা নিয়ে  bdsaradin24.com আইনগত বা অন্য কোনো ধরণের দায় গ্রহণ করে না। ]

প্রতি মুহুর্তের সর্বশেষ খবর পেতে এখানে ক্লিক করে আমাদের ফেইসবুক পেইজে লাইক দিন

(লেখাটি পড়া হয়েছে 66 বার)


Print
এই পাতার আরও সংবাদ
bdsaradin24.com