ডিএসএলআরের দিন শেষ! ফোনে ১০৮ মেগাপিক্সেল ক্যামেরা

Print

৪৮ মেগাপিক্সেল এখন অতীত। বাজার কাঁপাতে এসে গেছে ৬৪ মেগাপিক্সেল ক্যামেরার স্মার্টফোন। তবে তা কতদিন টিকতে পারবে তা নিয়ে সন্দেহ রয়েছে। কারণ, স্যামসাং এনে ফেলেছে এমন এক প্রযুক্তি যা শুনলে আপনি হাঁ হয়ে যাবেন। আর তা হলো ১০৮ মেগাপিক্সেল ইমেজ সেন্সর। স্মার্টফোন ক্যামেরার সংজ্ঞা বদলে দেবে এই নয়া সেন্সর। পোশাকি নাম, ‘আইসোসেল ব্রাইট এইচএমএক্স’। কম আলোয় নাকি এই ক্যামেরায় দুর্দান্ত ছবি উঠবে। প্রথমে শোনা যাচ্ছিল, স্যামসাংয়ের নিজস্ব ফোনেই এই প্রযুক্তির প্রথম ব্যবহার হবে। কিন্তু না। আপাতত এ ব্যাপারেও পথিকৃৎ সেই চীনা সংস্থা শাওমি। স্যামসাংয়ের এই প্রযুক্তির সঙ্গে হাত মিলিয়েই তারা আনছে এক নতুন ফ্ল্যাগশিপ মডেল।

একটি-দু’টি নয়, ১০৮ মেগাপিক্সেল ক্যামেরাযুক্ত চার চারটি স্মার্টফোন নিয়ে পরীক্ষানিরীক্ষা চালাচ্ছে তারা। ৪৮ মেগাপিক্সেল ক্যামেরার পিছনে ছিল সোনির আইএমএক্স৫৮৬ ইমেজ সেন্সর। সোনির সঙ্গে হাত মিলিয়ে এই প্রযুক্তি সাধারণ মানুষের হাতের নাগালে এনে দিয়েছিল চীনা মোবাইল সংস্থা শাওমি। তারপর একে একে অন্যান্য মোবাইল ফোন নির্মতা সংস্থা তাদের স্মার্টফোনে এই ফিচার যোগ করেছে। হালে স্যামসাংও কম দামে ৪৮ মেগাপিক্সেল ক্যামেরার স্মার্টফোন এনেছে। কিন্তু, কোরীয় এই সংস্থাকে প্রতিযোগিতার মুখে ঠেলে ৬৪ মেগাপিক্সেল ক্যামেরার স্মার্টফোন এনে ফেলেছে আরেক চীনা সংস্থা রিয়ালমি। শিগগিরই শাওমিও একই প্রযুক্তির স্মার্টফোন আনছে। এক্ষেত্রে কিন্তু সোনিকে বিদায় জানিয়েছে তারা।

৬৪ মেগাপিক্সেলের পিছনে রয়েছে স্যামসাংয়ের একই প্রযুক্তি। নাম, ‘আইসোসেল ব্রাইট জিডব্লুওয়ান ইমেজ সেন্সর’। এর মধ্যে রয়েছে টেট্রাসেল প্লাস প্রযুক্তি। যা নিজস্ব অ্যালগরিদম ব্যবহার করে আলো অনুযায়ী ক্যামেরাকে পিক্সেলের সাইজ বদলানোর সুবিধা দেবে। এছাড়া এতে রয়েছে থ্রিডি এইচডিআর টেকনোলজিও। ফলে যে কোনও আলোতেই ঝকঝকে এবং স্পষ্ট তোলা যায়। কাগজে কলমে দেখলে ৬৪ মেগাপিক্সেল ক্যামেরায় ৪৮ মেগাপিক্সেলের তুলনায় ৩৮ শতাংশ বেশি পিক্সেল পাওয়া যাবে।

এই পর্যন্ত ঠিকই ছিল। কিন্তু, ১০৮ মেগাপিক্সেল? অনেকেই বলবেন একটু বাড়াবাড়ি। মানুষের চোখের রেজোলিউশন ৫৭৬ মেগাপিক্সেল। মানুষের চোখের রেটিনায় গড়ে ৫০ লক্ষ কোন রিসেপটর রয়েছে। যা দিয়ে মূলত আমরা রং বুঝতে পারি।

স্যামসাংয়ের এই নতুন ১০৮ মেগাপিক্সেল সেন্সর সুস্থ মানুষের দৃষ্টিক্ষমতার প্রায় এক পঞ্চমাংশের সমান। এই ক্যামেরা দিয়ে ৩০ ফ্রেম পার সেকেন্ড রেটে ৬-কে ভিডিও তোলা যাবে। বেশি রেজলিউশনের ছবি বাস্তবিক সবসময় কাজে লাগে না। সে কারণে সাধারণ মোডে চারটি মেগাপিক্সেলকে মিলিয়ে ২৭ মেগাপিক্সেলের উচ্চমানের ছবি উঠবে এই ক্যামেরায়।

[ প্রিয় পাঠক, আপনিও বিডিসারাদিন24 ডট কম অনলাইনের অংশ হয়ে উঠুন। লাইফস্টাইল, স্বাস্থ্য, ভ্রমণ, ক্যারিয়ার, পরামর্শ, রান্নার রেসিপি, ফ্যাশন-রূপচর্চা ও ঘরোয়া টিপস নিয়ে লিখুন এবং সংশ্লিষ্ট বিষয়ে ছবিসহ মেইল করুন- bdsaradin24@gmail.com-এ ঠিকানায়। লেখা আপনার নামে প্রকাশ করা হবে। নারীকন্ঠ এবং মত-দ্বিমত বিভাগে প্রকাশিত লেখার বিষয়, মতামত, মন্তব্য লেখকের একান্ত নিজস্ব। লেখকের মতামত, বক্তব্যের বিষয়বস্তু বা এর যথার্থতা নিয়ে  bdsaradin24.com আইনগত বা অন্য কোনো ধরণের দায় গ্রহণ করে না। ]

প্রতি মুহুর্তের সর্বশেষ খবর পেতে এখানে ক্লিক করে আমাদের ফেইসবুক পেইজে লাইক দিন

(লেখাটি পড়া হয়েছে 37 বার)


Print
এই পাতার আরও সংবাদ
bdsaradin24.com