ডিম-সবজিতে স্বস্তি, ঝাঁজ বেড়েছে পেঁয়াজ-আদার

Print

আপাতত কিছু কিছু নিত্যপণ্যের দাম কমেছে। এর মধ্যে রয়েছে মাছ, সবজি ও ডিম। তবে, ঈদ উপলক্ষে ঝাঁজ বেড়েছে পেঁয়াজ-রসুন-আদাসহ বিভিন্ন ধরনের মসলার। একইসঙ্গে দাম বেড়েছে দেশি মুরগি, ব্রয়লার ও লাল লেয়ার মুরগিরও। সেই ঝাঁজে-দামে নাভিশ্বাস উঠেছে মধ্যবিত্ত-নিম্নবিত্তের। শুক্রবার (২৪ মে) রাজধানীর একাধিক বাজার ঘুরে এমন চিত্র পাওয়া গেছে।

বিভিন্ন কাঁচাবাজার ঘুরে দেখা গেছে, সপ্তাহের ব্যবধানে দাম কমেছে শসা, বেগুন, টমেটো, পটল, ঝিঙা, বরবটি, ধুন্দুলের। তবে, আগের মতোই চড়া দামে বিক্রি হচ্ছে কাঁচা পেঁপে। বাজার ভেদে পেঁপে বিক্রি হচ্ছে ৫০-৭০ টাকা কেজি দরে।

শসা বিক্রি হচ্ছে ২০-৩০ টাকা, যা গত সপ্তাহে ছিল ৪০-৫০ টাকা। গত সপ্তাহে ৬০-৭০ টাকা কেজি বিক্রি হওয়া বেগুনের দাম কমে ৪০-৫০ টাকা হয়েছে। পাকা টমেটো বিক্রি হচ্ছে ২৫-৩০ টাকায়, যা গত সপ্তাহে ছিল ৩০-৪০ টাকা।

এদিকে, কয়েক মাস ধরে চড়া দামে বিক্রি হওয়া মাছের দাম আরও চড়া রয়েছে। পাঙ্গাশ বিক্রি হচ্ছে ১৫০-১৮০ টাকা কেজি দরে। রুই ২৮০-৬০০, পাবদা ৬০০-৭০০, টেংরা ৫০০-৮০০, শিং ৫০০-৬০০ এবং চিতল মাছ বিক্রি হচ্ছে ৬০০-৮০০ টাকা কেজি।

বিভিন্ন বাজারের একাধিক ব্যবসায়ী জানিয়েছেন, রোজার সময় যে সব নিত্যপণ্যের চাহিদা বেশি থাকে, তা বিক্রি করা হয়েছে। এখন ক্রেতারা ঈদের বাজার করছেন। তাই ঈদে যে সব পণ্যের প্রয়োজন সেসব পণ্যের চাহিদা বেড়েছে। ফলে দাম কিছুটা বেশি।

[ প্রিয় পাঠক, আপনিও বিডিসারাদিন24 ডট কম অনলাইনের অংশ হয়ে উঠুন। লাইফস্টাইল, স্বাস্থ্য, ভ্রমণ, ক্যারিয়ার, পরামর্শ, রান্নার রেসিপি, ফ্যাশন-রূপচর্চা ও ঘরোয়া টিপস নিয়ে লিখুন এবং সংশ্লিষ্ট বিষয়ে ছবিসহ মেইল করুন- bdsaradin24@gmail.com-এ ঠিকানায়। লেখা আপনার নামে প্রকাশ করা হবে। নারীকন্ঠ এবং মত-দ্বিমত বিভাগে প্রকাশিত লেখার বিষয়, মতামত, মন্তব্য লেখকের একান্ত নিজস্ব। লেখকের মতামত, বক্তব্যের বিষয়বস্তু বা এর যথার্থতা নিয়ে  bdsaradin24.com আইনগত বা অন্য কোনো ধরণের দায় গ্রহণ করে না। ]

প্রতি মুহুর্তের সর্বশেষ খবর পেতে এখানে ক্লিক করে আমাদের ফেইসবুক পেইজে লাইক দিন

(লেখাটি পড়া হয়েছে 27 বার)


Print
bdsaradin24.com