ডোমারে খেজুর রস নিতে ব্যাস্ত সময় পার করছেন গাছি।

Print

 

আনিছুর রহমান মানিক, ডোমার (নীলফামারী) প্রতিনিধি>>
পিঠা,পায়েস সহ নানা স্বাদের সুস্বাদু খাবার তৈরীর অন্যতম অনুসর্গ খেজুরের রস। প্রাচীন গ্রাম বাংলার ঐতিহ্য হিসাবে পরিচিত খেজুর গাছ ও গাছি। যাহা কালের আবর্তনে হারিয়ে যেতে বসেছে। উত্তরের জনপদ নীলফামারী জেলার ডোমার উপজেলায় এই ঐতিহ্যকে মনে প্রানে ধারণ করে শীতে খেজুর গাছের রস সংগ্রহে ব্যাস্ত সময় পার করছে গাছি। গতকাল নীলফামারীর নীলসাগর ভ্রমন শেষে ডোমার সদর ইউনিয়নের পশ্চিম চিকনমাটি দোলাপাড়া পথধরে আসার সময় চোখে পড়ে এই দৃশ্যটি। ধমকে দাঁড়িয়ে ছবিটি ক্যামেরা বন্দিকরে, কথা হয় গাছি আব্দুল মজিদ (৫৫) সাথে। তিনি জানান, তার বাড়ী জয়পুরহাট জেলার আক্কেলপুর উপজেলার মৃত আব্বাছ আলীর ৪র্থ পুত্র। দির্ঘ ৩৫ বছর ধরে ডোমারে এসে রাজকুমার বাবুর লাগানো ৪০টি খেজুরগাছ সিজিন অনুযায়ী গাছ প্রতি ৩শত টাকা হারে চুক্তি নিয়ে গাছের পরির্চচা মাধ্যমে রস সংগ্রহ করে ডোমার এলাকার হাটে বাজারে বিক্রি করেন তিনি। ৪০টি গাছ হতে প্রতিদিন ১৫ থেকে ২০ কেজি পর্যন্ত রস বের হয়, যা বাজারে বিক্রি করলে ৫/৬ শত টাকা পাওয়া যায়। তিনি আরো জানান, গাছ মালিককে টাকা দেওয়ার পড়েও ১০ থেকে ১৫ হাজার টাকা নিয়ে বাড়ী যেতে পাড়ে আব্দুল মজিদ। রাজকুমার বাবুর খেজুর বাগান দেখে এলাকার কিছু মানুষ খেজুর বাগান নাগাতে আগ্রহী হয়ে উঠেছে। গ্রাম বাংলার ঐতিহ্যবাহী স্মৃতিকে ধরে রাখতে প্রত্যেকের বাড়িতে খেজুর গাছ লাগানো প্রয়োজন বলে মনে করেন গাছের মালিক বাবু রতন রায় মাষ্টার ।

[ প্রিয় পাঠক, আপনিও বিডিসারাদিন24 ডট কম অনলাইনের অংশ হয়ে উঠুন। লাইফস্টাইল, স্বাস্থ্য, ভ্রমণ, ক্যারিয়ার, পরামর্শ, রান্নার রেসিপি, ফ্যাশন-রূপচর্চা ও ঘরোয়া টিপস নিয়ে লিখুন এবং সংশ্লিষ্ট বিষয়ে ছবিসহ মেইল করুন- bdsaradin24@gmail.com-এ ঠিকানায়। লেখা আপনার নামে প্রকাশ করা হবে। নারীকন্ঠ এবং মত-দ্বিমত বিভাগে প্রকাশিত লেখার বিষয়, মতামত, মন্তব্য লেখকের একান্ত নিজস্ব। লেখকের মতামত, বক্তব্যের বিষয়বস্তু বা এর যথার্থতা নিয়ে  bdsaradin24.com আইনগত বা অন্য কোনো ধরণের দায় গ্রহণ করে না। ]

প্রতি মুহুর্তের সর্বশেষ খবর পেতে এখানে ক্লিক করে আমাদের ফেইসবুক পেইজে লাইক দিন

(লেখাটি পড়া হয়েছে 107 বার)


Print
এই পাতার আরও সংবাদ
bdsaradin24.com