ডোমারে গ্রাম পুলিশের কান্ড, চলাচলের রাস্তা বন্ধ করায় বড় ভাইয়ের পরিবার অবরুদ্ধ।

Print

ডোমারে গ্রাম পুলিশের কান্ড, চলাচলের রাস্তা বন্ধ করায় বড় ভাইয়ের পরিবার অবরুদ্ধ।

আনিছুর রহমান মানিক, ডোমার (নীলফামারী) প্রতিনিধি>>
নীলফামারী ডোমারে এক গ্রাম পুলিশের অত্যাচারে এলাকাবাসী অতিষ্ট, চলাচলের রাস্তা বন্ধ করায় বড় ভাইয়ের পরিবারকে অবরুদ্ধ করার অভিযোগ উঠেছে।

এ বিষয়ে উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা বরাবরে অভিযোগ করেও কোন ফল না পওয়ায় স্ত্রী সন্তান নিয়ে মানবেতর জীবন যাপন করছে ইউসুফ আলীর পরিবার। সরেজমিনে জানা যায়, ডোমার সদর ইউনিয়নের ছোট রাউতা জোরপাখুড়ী ২নং ওয়ার্ডের মৃত আফিজার রহমানের ছেলে ভ্যান চালক ইউসুফ আলী তার স্ত্রী ও ৪ কন্যা সন্তান নিয়ে বাবার বসত ভিটায় অতি কষ্টে জীবন যাপন করছে। জমিজমা নিয়ে ছোট ভাই উক্ত ওয়ার্ডের গ্রাম পুলিশ আকবর আলীর সাথে দীর্ঘদিন যাবত ঝগড়া বিবাদ চলে আসছে। এনিয়ে একাধীকবার স্থানীয় ভাবে আপোষ মিমাংসা করা হয়। এর পরেও সকল বাঁধা উপেক্ষা করে গত ৫ জানুয়ারী গ্রাম পুলিশ আকবর ও তার স্ত্রী হায়াতুন নেছা শত্রæতার জেরধরে ইউসুফ আলীর বাড়ীর চার পার্শ্বে বাঁশের বেড়া দিয়ে চলাচলের রাস্তা বন্ধ করে দিয়ে অবরুদ্ধ করে রাখে। অপরদিকে বেড়ার পাশদিয়ে ইউসুফ তার ভ্যানগাড়ী নিয়ে যাওয়ার চেষ্টা করলে, সেই রাস্তায় বড় ধরনের গর্ত করে প্রতিবন্ধকতার সৃষ্টি করে। ইউসুফ তার ভ্যানগাড়ী নিয়ে বাহিরে যেতে না পারায় পরিবার নিয়ে অনাহারে দিনাতিপাত করছে। এ বিষয়ে ইউসুফ আলীর স্ত্রী শরিফা বেগম গত ৯ফেব্রæয়ারী ডোমার উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা উম্মে ফাতিমার বরাবরে এর প্রতিকার চেয়ে অভিযোগ দায়ের করেন। উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা বিষটি আমলে নিয়ে ডোমার থানায় তদন্তের দায়ীত্ব দেন। ডোমার থানার এএসআই ফারুক ঘটনা স্থল তদন্ত করেও অদ্যবদী কোন সমাধান না হওয়ায় চরম বিপাকে পড়েছে ইউসুফ আলীর পরিবার। সংশ্লিষ্ট ওয়ার্ডের ইউপি সদস্য নুর ইসলাম জানান, তাদের বিষয়টি নিয়ে থানায় বসা হয়েছিল, কিন্তু সেখানে গ্রাম পুলিশের স্ত্রী হায়াতুন আমাদের চরম অপমান করে। বিষয়টি নিয়ে ওসি সাহেবের হস্তক্ষেপ কামনা করেন তিনি। এ বিষয়ে গ্রাম পুলিশ আকবর আলী বলেন, আমার জমিতে আমি খাল করেছি, তারা কোন রাস্তা দিয়ে যাতাযাত করবে সেটা আমার দেখার বিষয় না।

[ প্রিয় পাঠক, আপনিও বিডিসারাদিন24 ডট কম অনলাইনের অংশ হয়ে উঠুন। লাইফস্টাইল, স্বাস্থ্য, ভ্রমণ, ক্যারিয়ার, পরামর্শ, রান্নার রেসিপি, ফ্যাশন-রূপচর্চা ও ঘরোয়া টিপস নিয়ে লিখুন এবং সংশ্লিষ্ট বিষয়ে ছবিসহ মেইল করুন- bdsaradin24@gmail.com-এ ঠিকানায়। লেখা আপনার নামে প্রকাশ করা হবে। নারীকন্ঠ এবং মত-দ্বিমত বিভাগে প্রকাশিত লেখার বিষয়, মতামত, মন্তব্য লেখকের একান্ত নিজস্ব। লেখকের মতামত, বক্তব্যের বিষয়বস্তু বা এর যথার্থতা নিয়ে  bdsaradin24.com আইনগত বা অন্য কোনো ধরণের দায় গ্রহণ করে না। ]

প্রতি মুহুর্তের সর্বশেষ খবর পেতে এখানে ক্লিক করে আমাদের ফেইসবুক পেইজে লাইক দিন

(লেখাটি পড়া হয়েছে 75 বার)


Print
এই পাতার আরও সংবাদ
bdsaradin24.com