তরুণদের চুলে প্রশাসনের নজর

Print

ইভ টিজিং আর যৌন হয়রানির ঘটনা নিয়ন্ত্রণে সব ছেড়েছুড়ে প্রশাসনের নজর এখন তরুণদের চুলের দিকে। কমপক্ষে আট জেলায় প্রশাসন, পুলিশ ও শিক্ষা কর্মকর্তারা কী করে চুল কাটতে হবে, তা নিয়ে নরসুন্দর সম্প্রদায়ের সঙ্গে বৈঠক করেছেন। কোথাও কোথাও শাসিয়েছেন কিশোর-তরুণদেরও।

এ ক্ষেত্রে সেনাশাসনের আমলে কিশোর-তরুণদের লম্বা চুল সেলুনে নিয়ে কাটানোর ঘটনা কেউ কেউ স্মরণ করছেন। অনেকে আবার উত্তর কোরিয়ার দৃষ্টান্তও টানছেন। রেডিও ফ্রি এশিয়াকে উদ্ধৃত করে ২০১৪ সালে বিবিসি একটি প্রতিবেদনে বলেছিল, দেশটির প্রেসিডেন্ট কিম জং-উনের মতো চুল কাটতে বিশ্ববিদ্যালয়ের ছাত্রদের নির্দেশ দেওয়া হয়েছে। যুক্তরাজ্যের খ্যাতনামা সংবাদপত্র দ্য গার্ডিয়ান ‘নর্থ কোরিয়া’জ ফ্যাশন পুলিশ’ শিরোনামে একটি প্রতিবেদন প্রকাশ করেছিল ওই বছরের ২৪ এপ্রিল। প্রতিবেদনে বলা হয়, চুল কীভাবে কাটতে হবে, রাষ্ট্রনিয়ন্ত্রিত টিভি লম্বা সময় ধরে তার প্রচার চালিয়েছে। সংবাদমাধ্যমের খবর উত্তর কোরিয়ায় নারীদের জন্য ১৮ ও পুরুষদের জন্য ১০ ধরনের চুল কাটার অনুমোদন আছে। সেলুনে কীভাবে চুল কাটতে হবে, তার ছবিও টাঙানো আছে। বাংলাদেশে অবশ্য এখনো ছবি টাঙানো হয়নি, তবে কোথাও কোথাও ক্যাটালগ সরিয়ে ফেলার সিদ্ধান্ত হয়েছে।

[ প্রিয় পাঠক, আপনিও বিডিসারাদিন24 ডট কম অনলাইনের অংশ হয়ে উঠুন। লাইফস্টাইল, স্বাস্থ্য, ভ্রমণ, ক্যারিয়ার, পরামর্শ, রান্নার রেসিপি, ফ্যাশন-রূপচর্চা ও ঘরোয়া টিপস নিয়ে লিখুন এবং সংশ্লিষ্ট বিষয়ে ছবিসহ মেইল করুন- bdsaradin24@gmail.com-এ ঠিকানায়। লেখা আপনার নামে প্রকাশ করা হবে। নারীকন্ঠ এবং মত-দ্বিমত বিভাগে প্রকাশিত লেখার বিষয়, মতামত, মন্তব্য লেখকের একান্ত নিজস্ব। লেখকের মতামত, বক্তব্যের বিষয়বস্তু বা এর যথার্থতা নিয়ে  bdsaradin24.com আইনগত বা অন্য কোনো ধরণের দায় গ্রহণ করে না। ]

প্রতি মুহুর্তের সর্বশেষ খবর পেতে এখানে ক্লিক করে আমাদের ফেইসবুক পেইজে লাইক দিন

(লেখাটি পড়া হয়েছে 24 বার)


Print
এই পাতার আরও সংবাদ
bdsaradin24.com