দাওয়াত দিয়ে ডেকে জামাইকে পুঁতে ফেলল শ্বশুরবাড়ির লোকজন

Print

বাগেরহাটের কচুয়া উপজেলায় শ্বশুরবাড়ি বেড়াতে গিয়ে আজিম (২৫) নামের এক যুবক খুনের ঘটনায় জড়িত অভিযোগে নারীসহ তিনজনকে গ্রেফতার করেছে পুলিশ।

গ্রেফতারকৃতরা হলেন মো. বিপ্লব মোল্লা (২৫), তার স্ত্রী রিনা বেগম (২০) ও তার কিশোর শ্যালক। তাদের বাড়ি পাবনার সদর উপজেলার মিনদাহ গ্রামে। পরে তাদের দেয়া তথ্য অনুযায়ী উপজেলার ছোট চরকাঠি গ্রামে মাটির নিচে পুঁতে রাখা নিহত আজিমের দেহাবশেষ উদ্ধার করেছে পুলিশ। নিহত আজিম সুনামগঞ্জের তাহেরপুর উপজেলার কাউকান্দি গ্রামের মো. মনজুল হকের ছেলে। তিনি ঢাকার একটি পোশাক কারখানার কর্মী ছিলেন।

সোমবার দুপুরে বাগেরহাটের পুলিশ সুপারের কার্যালয়ে প্রেস ব্রিফিংয়ে সাংবাদিকদের এসব তথ্য জানান পুলিশ সুপার পঙ্কজ চন্দ্র রায়।

পুলিশ সুপার পঙ্কজ চন্দ্র রায় বলেন, মূলত দাওয়াত দিয়ে ডেকে নিয়ে জামাইকে হত্যা করে শ্বশুরবাড়ির লোকজন। এক বছর আগে শ্বশুরবাড়িতে দাওয়াত খেতে গিয়ে হত্যার শিকার হন আজিম। তাকে কচুয়া উপজেলার ছোট চরকাঠি গ্রামে বসে পরিকল্পিতভাবে হত্যা করে শ্বশুরবাড়ির লোকজন। পরে তার লাশ গুম করতে বাড়ির পাশে মাটির নিচে পুঁতে রাখেন তারা। প্রাথমিক জিজ্ঞাসাবাদে এ কথা স্বীকার করেছেন গ্রেফতার তিনজন। এ ঘটনায় কচুয়া থানা পুলিশের উপপরিদর্শক (এসআই) মো. আবুল হাসান বাদী হয়ে হত্যা মামলা করেন।

[ প্রিয় পাঠক, আপনিও বিডিসারাদিন24 ডট কম অনলাইনের অংশ হয়ে উঠুন। লাইফস্টাইল, স্বাস্থ্য, ভ্রমণ, ক্যারিয়ার, পরামর্শ, রান্নার রেসিপি, ফ্যাশন-রূপচর্চা ও ঘরোয়া টিপস নিয়ে লিখুন এবং সংশ্লিষ্ট বিষয়ে ছবিসহ মেইল করুন- bdsaradin24@gmail.com-এ ঠিকানায়। লেখা আপনার নামে প্রকাশ করা হবে। নারীকন্ঠ এবং মত-দ্বিমত বিভাগে প্রকাশিত লেখার বিষয়, মতামত, মন্তব্য লেখকের একান্ত নিজস্ব। লেখকের মতামত, বক্তব্যের বিষয়বস্তু বা এর যথার্থতা নিয়ে  bdsaradin24.com আইনগত বা অন্য কোনো ধরণের দায় গ্রহণ করে না। ]

প্রতি মুহুর্তের সর্বশেষ খবর পেতে এখানে ক্লিক করে আমাদের ফেইসবুক পেইজে লাইক দিন

(লেখাটি পড়া হয়েছে 52 বার)


Print
এই পাতার আরও সংবাদ
bdsaradin24.com