দোহারে গৃহবধূর রহস্যজনক মৃত্যু,লাশ রেখে পালালো স্বামী

Print
দোহার-নবাবগঞ্জ(ঢাকা) প্রতিনিধিঃ
ঢাকার দোহারে সাদিয়া (১৮) এক গৃহবধূর রহস্যজনক মৃত্যু হয়েছে। শুক্রবার বিকেলে উপজেলার জয়পাড়া সাহেব-বাজার এলাকার কুঠিবাড়ী গ্রামে এ ঘটনা ঘটে। তিনি কুয়েত প্রবাসী মোস্তফার স্ত্রী এবং উপজেলার মাঝিরচর পূর্বচর গ্রামের জসিম খালাসির মেয়ে।
সাদিয়ার বাবা জসিম খালাসি জানান, শুক্রবার দুপুরে স্বামীর সাথে শশুর বাড়িতে যাওয়ার এক ঘন্টা পর সাদিয়াকে শশুর বাড়ির লোকজন উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে নিয়ে আসে। কর্তব্যরত চিকিৎসক মৃত ঘোষণা করার পর পরই স্বামী ও শাশুড়ীসহ সাদিয়ার লাশ হাসপাতালে রেখে পালিয়ে যায়। নিহতের পরিবারের দাবী এটি আত্মহত্যা নয়, এটি হত্যাকাণ্ড। সাদিয়াকে হত্যা করে ওরা হাসপাতালে নিয়ে এসেছে।
স্থানীয়রা জানায়, চার বছর পূর্বে মাঝিরচর পূর্বচর গ্রামের জসিম খালাসির মেয়ে সাদিয়া আক্তারের সাথে জয়পাড়া সাহেব-বাজার গ্রামের বিল্লাল শেখের ছেলে কুয়েত প্রবাসী মোস্তফা (৩০)’র প্রেমঘটিত বিয়ে হয়। গত রমজান মাসে কুয়েত থেকে ছুটিতে বাড়ীতে তৃতীয় বারের মত বেড়াতে আসেন সাদিয়ার স্বামী মোস্তফা। সাদিয়ার সাথে তার স্বামী মোস্তফার পারিবারিক সম্পর্ক ভাল ছিল। স্বামী প্রবাসী হওয়ায় অধিকাংশ সময় বাবার বাড়িতেই থাকতেন তিনি। তবে তার স্বামী ছুটিতে দেশে আসলে শশুর বাড়ীতে যাতায়াত করতেন।
শুক্রবার দুপুরে সাদিয়া বাবার বাড়ি থেকে শ্বশুর বাড়িতে এলে গলায় রশি দিয়ে আত্মহত্যা করেছে বলে সাদিয়ার স্বামী মোস্তফা টেলিফোনে সাদিয়ার বাবা মাকে জানায়। পরে দোহার স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে সাদিয়াকে নিয়ে আসলে কর্তব্যরত চিকিৎসক মৃত বলে ঘোষণা করলে স্বামীসহ শশুর শাশুরী পালিয়ে যায়। এবং সরেজমিনে ঘটনাস্থলে গিয়েও তাদের বসত বাড়ীতে কাউকে পাওয়া যায়নি। বাড়ি ঘরে তালাবদ্ধ ছিল।
দোহার স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সের মেডিকেল অফিসার ডাঃ কাজী ওমর ফারুক জানান, মৃত সাদিয়ার স্বামী ও শশুর বাড়ির লোকজন হাসপাতালে নিয়ে আসেন। হাসপাতালে নিয়ে আসার আগেই তার মৃত্যু হয়েছে। তার গলায় কালো দাগ ছিল। পুলিশকে খবর দিলে হাসপাতাল থেকে লাশ থানায় নিয়ে যায়।
[ প্রিয় পাঠক, আপনিও বিডিসারাদিন24 ডট কম অনলাইনের অংশ হয়ে উঠুন। লাইফস্টাইল, স্বাস্থ্য, ভ্রমণ, ক্যারিয়ার, পরামর্শ, রান্নার রেসিপি, ফ্যাশন-রূপচর্চা ও ঘরোয়া টিপস নিয়ে লিখুন এবং সংশ্লিষ্ট বিষয়ে ছবিসহ মেইল করুন- bdsaradin24@gmail.com-এ ঠিকানায়। লেখা আপনার নামে প্রকাশ করা হবে। নারীকন্ঠ এবং মত-দ্বিমত বিভাগে প্রকাশিত লেখার বিষয়, মতামত, মন্তব্য লেখকের একান্ত নিজস্ব। লেখকের মতামত, বক্তব্যের বিষয়বস্তু বা এর যথার্থতা নিয়ে  bdsaradin24.com আইনগত বা অন্য কোনো ধরণের দায় গ্রহণ করে না। ]

প্রতি মুহুর্তের সর্বশেষ খবর পেতে এখানে ক্লিক করে আমাদের ফেইসবুক পেইজে লাইক দিন

(লেখাটি পড়া হয়েছে 115 বার)


Print
এই পাতার আরও সংবাদ
bdsaradin24.com