দোহারে-নবাবগঞ্জে পুজা মন্ডপ গুলোতে প্রতিমা মঞ্চ ও সাজ সজ্জায় ব্যস্ত কারিগররা

Print

মো. শাকির মৃধা: আসছে পূজা, বাড়ছে ব্যস্ততা সাথে মিলবে অনন্দ আর মা দূর্গার দর্শন। সনাতন ধর্মাবলম্বিদের জন্য সর্ববৃহৎ উৎসব শারদীয় দূর্গা পূজা। নদীর ধারের ফুটন্ত কাশ ফুলগুলো যেনো তারই জানান দিচ্ছে। আর তাই পুজোকে আরো যাক-জমক করে তুলতে কারিগরদের জুরি নেই। প্রতিমাকে আপন রূপে তৈরি করতে ব্যস্ত সময় পার করছে প্রতিমা শিল্পিকেরা। ঠিক এমনটাই চোখে পরেছে দোহার-নবাবগঞ্জের পুজা মন্ডপ গুলোতে। বিভিন্ন পুজা মন্ডপ ঘুড়ে দেখা যায়, বিভিন্ন আকার আর ঢংয়ের কারুকাজে দেবী দূর্গার প্রতিমা বানানোর ব্যস্ততা। সকাল থেকে গভীর রাত পর্যন্ত কাঁদা-মাটি, খড়, কাঠ, বাঁশ আর সুতলি দিয়ে তৈরি করা হচ্ছে প্রতিমাগুলো। প্রতিমাকে পূর্ন শৈল্পিক রূপ দেওয়ার জন্য ব্যস্ত সময় পাড় করছে প্রতিমা শিল্পিরা। তাদের নিপুন হাতের ছোয়াঁয় তৈরি হচ্ছে এক একটি অসাধারণ সুন্দর প্রতিমা। ইতি মধ্যে মঞ্চ তৈরি শেষে প্রতিমা তৈরির কাজও শেষ হয়ে গিয়েছে। এখন প্রতিমা সাজ সজ্জায় আর রং তুলির কাজে রাত-দিন কঠোর ব্যস্ততম সময় পার করছে প্রতিমা শিল্পিরা। আসন্ন দূর্গা পূজাকে সামনে রেখে, প্রতি বছরের মতো এবারো পূজোকে সাফল্য মন্ডিত ও কোনোরূপ অপৃকর ঘটনা ছাড়া সনাতন ধর্মাবলম্বির শারদীয় দূর্গা উৎসব পালনের জন্য দোহার-নবাবগঞ্জ থানা প্রশাসন নিরবচ্ছিন্ন নিরাপওার ব্যবস্থা গ্রহন করেছে।

আজ ২৯ সেপ্টেম্বর মহালয়ার মাধ্যমে শুরু হবে শারদীয় দূর্গা পূজার আনুষ্ঠানিকতা। ৩ অক্টোবর মহাপঞ্চমী, ৪ অক্টোবর ষষ্ঠি, ৫ অক্টোবর সপ্তমী, ৬ অক্টোবর অষ্টমী , ৭ অক্টোবর মহানবমী ও ৮ অক্টোবর বৃহস্পতিবার বিজয়া দশমীর মাধ্যমে শেষ হবে এ বছরের সনাতন ধর্মাবলম্বির শারদীয় দূর্গা উৎসব। সনাতন ধর্মাবলম্বির শাএ মতে এবার দেবী দূর্গার আগমন ঘটবে ঘোড়ায়(ঘোটকে) ,যার ফল-ছএভঙ্গ। এ নিয়ে অনেক পন্ডিতেরা বলেন, ঘোড়ায় চড়ে দেবীর আগমন খুব একটা শুভ নয়। শাষ্এ মতে তা কোনো দূর্যোগের সম্ভাবনার ইঙ্গিত দেয়। যা সামাজিক, রাজনৈতিক ও সাংসারিক ক্ষেএে অস্থিরতার প্রকাশ করে পাশাপাশি নানা দূর্যোগের সম্ভাবনার ইঙ্গিত দেয়। তবে, সকল দুর্যোগ থেকে সকলকে রক্ষার জন্য পূজোর প্রার্থনাতে পুরোহিতদের গুরুত্ব অপরিসীম। দূর্গাপূজোর ফর্দ তৈরি করতেই লেগে যায় এক মাস। বোধন ,অষ্টমীর অঞ্জলি, সন্ধিপূজো সহ রয়েছে অনেক মন্ত ও অনেক উপাচার। তাই যাদের এই পেশায় চুল পাকালেন তাঁদেরও ভুলচুক পেরিয়ে সব ঝালিয়ে নিতে পুঁথি পএ ঝেড়ে নিয়ে তৈরি হচ্ছেন পুরোহিতরা।
তবে প্রতিমা তৈরিতে খড়, রং ও চুলের দাম গত কয়েক বছরের তুলনায় এবার কিছুটা কম বলে জানায় প্রতিমা তৈরির কারিগররা। এবার প্রতিমা তৈরিতে দেশী-বিদেশী কেমিক্যাল দুটোই ব্যবহৃত হচ্ছে বলে জানা যায়। সব কিছু পেরিয়ে চাহিদা মত প্রতিমা তৈরির পরেও গত কয়েক বছর যাবত তেমন সন্তুষ্টি মূলক মজুরী পান না বলে জানান প্রতিমা শিল্পিরা।
প্রতিবারের মতো এবার দোহারে মোট ৩৭ টি ও নবাবগঞ্জে ১৭০ টি পূজা মন্ডপে শারদীয় দূর্গা পূজা অনুষ্ঠিত হবে।
এ বিষয়ে দোহার থানা ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা মো. সাজ্জাদ হোসেন বলেন, দূর্গা পুজা হিন্দু সম্প্রদায়ের জন্য সর্ববৃহৎ উৎসব। আর তাই আমাদের জেলা পুলিশ সুপারের নির্দেশে পুজোকে শান্তিপূর্ন ভাবে পালনে দোহার থানা পুলিশ নিরবচ্ছিন্ন নিরাপওার ব্যবস্থা গ্রহণ করেছে। পাশাপাশি পুলিশকে সাহায্য করতে আনসার বাহিনীর সদস্যরা, সাদা পুলিশ ও র‌্যাব সদস্যরা ও আইন শৃঙ্খলা রক্ষার্থে কাজ করবে বলে জানান তিনি।
নবাবগঞ্জ থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা মো. মোস্তফা কামাল জানান, প্রতিবারের মতো এবারো শারদীয় দূর্গা উৎসবকে সামনে রেখে নবাবগঞ্জ থানা পুলিশ বিশেষ আইনি ব্যবস্থা গ্রহণ করেছে। আমাদের জেলা পুলিশ সুপারের নির্দেশে উপজেলার পূজা মন্ডপ গুলোতে যেনো কোনো প্রকার অপৃতিকর ঘটনা না ঘটে, সেই লক্ষ্যে নবাবগঞ্জ থানা পুলিশের পাশাপাশি আনসার ভিডিপি, সাদা পুলিশ ও র‌্যাব সদস্যরা আইন শৃঙ্খলা রক্ষার্থে কাজ করবে।

[ প্রিয় পাঠক, আপনিও বিডিসারাদিন24 ডট কম অনলাইনের অংশ হয়ে উঠুন। লাইফস্টাইল, স্বাস্থ্য, ভ্রমণ, ক্যারিয়ার, পরামর্শ, রান্নার রেসিপি, ফ্যাশন-রূপচর্চা ও ঘরোয়া টিপস নিয়ে লিখুন এবং সংশ্লিষ্ট বিষয়ে ছবিসহ মেইল করুন- bdsaradin24@gmail.com-এ ঠিকানায়। লেখা আপনার নামে প্রকাশ করা হবে। নারীকন্ঠ এবং মত-দ্বিমত বিভাগে প্রকাশিত লেখার বিষয়, মতামত, মন্তব্য লেখকের একান্ত নিজস্ব। লেখকের মতামত, বক্তব্যের বিষয়বস্তু বা এর যথার্থতা নিয়ে  bdsaradin24.com আইনগত বা অন্য কোনো ধরণের দায় গ্রহণ করে না। ]

প্রতি মুহুর্তের সর্বশেষ খবর পেতে এখানে ক্লিক করে আমাদের ফেইসবুক পেইজে লাইক দিন

(লেখাটি পড়া হয়েছে 41 বার)


Print
এই পাতার আরও সংবাদ
bdsaradin24.com