নাটোরের মেধাবী কলেজ ছাত্রী রিশাত বাঁচতে চায়

Print
জেলা প্রতিনিধি, নাটোরঃ নাটোর শহরতলীর চকবৈদ্যনাথ মহল্লার মেধাবী কলেজ ছাত্রী নওশীন রহমান রিশাত (১৭) বাঁচতে চায়। তার দুটি কিডনী বিকল হয়ে গেছে। গত আট মাস থেকে সে ঢাকার আনোয়ার খান মডার্ন মেডিকেল কলেজের কিডনী রোগ বিশেষজ্ঞ ও বিভাগীয় প্রধান ডাঃ নাজনীন মাহ্মুদের অধিনে চিকিৎসাধীন। এখন পর্যন্ত রিশাতের চিকিৎসা বাবদ ব্যয় হয়েছে প্রায় ১৪ লাখ টাকা। তাকে একটি কিডনী দান করে বাঁচিয়ে তুলতে চান তার বাবা আতাউর রহমান।
ঢাকা শ্যামলীর সেন্টার ফর কিডনী ডিজিস এন্ড ইউরোলজি হসপিটালের ডাঃ মোঃ কামরুল ইসলাম জানিয়েছেন, প্রায় মৃত্যু পথযাত্রী রিশার কিডনী প্রতিস্থাপনে ব্যয় হবে আনুমানিক আরো ২০ লাখ টাকা। রিশাতের বাবা আতাউর রহমান বর্তমানে একেবারেই বেকার জীবনযাপন করছেন। বাড়িভিটা ছাড়া তার আর কোন সম্পদ নেই। তার ছেলেটিও মানসিক প্রতিবন্ধী। রিশাত নাটোর সিটি কলেজের উচ্চ মাধ্যমিক শ্রেণীর দ্বিতীয় বর্ষের শিক্ষার্থী। রিশাতের মামা-খালাদের সহযোগিতায় এতোদিন তার চিকিৎসা চলেছে। তার কলেজের শিক্ষক ও সহপাঠিরাও তার পাশে দাঁড়িয়েছেন। এখন এই মেধাবী ছাত্রীকে বাঁচাতে হলে দরকার আরো প্রায় ২০ লাখ টাকা। যা যোগাড় করা তার পরিবারের পক্ষে কোন ভাবেই সম্ভব নয়। তাই তার বাবা-মায়ের পাশাপাশি তার কলেজের অধ্যক্ষ মোঃ দেলোয়ার হোসেন খান সমাজের হৃদয়বান ও বিত্তবান মানুষদের কাছে আকুল আবেদন জানিয়ে বলেছেন, তাদের একটু সহযোগীতাই পারে বাবা-মায়ের একমাত্র মেয়ে মেধাবী ছাত্রী নওশীন রহমান রিশাতের জীবন বাঁচাতে। তার বিষয়ে আরো বিস্তারিত জানা যাবে ০১৭২৩-০৫৭৯৫৮ এবং ০১৭৪৯-২৯১৯২৯ মোবাইল নম্বরে। তাকে সহযোগিতা পাঠানো যাবে জনতা ব্যাংক নাটোর ষ্টেশনবাজার শাখার তার বাবার চলতি হিসাব ১৫৬১/০ নম্বরে।
[ প্রিয় পাঠক, আপনিও বিডিসারাদিন24 ডট কম অনলাইনের অংশ হয়ে উঠুন। লাইফস্টাইল, স্বাস্থ্য, ভ্রমণ, ক্যারিয়ার, পরামর্শ, রান্নার রেসিপি, ফ্যাশন-রূপচর্চা ও ঘরোয়া টিপস নিয়ে লিখুন এবং সংশ্লিষ্ট বিষয়ে ছবিসহ মেইল করুন- bdsaradin24@gmail.com-এ ঠিকানায়। লেখা আপনার নামে প্রকাশ করা হবে। নারীকন্ঠ এবং মত-দ্বিমত বিভাগে প্রকাশিত লেখার বিষয়, মতামত, মন্তব্য লেখকের একান্ত নিজস্ব। লেখকের মতামত, বক্তব্যের বিষয়বস্তু বা এর যথার্থতা নিয়ে  bdsaradin24.com আইনগত বা অন্য কোনো ধরণের দায় গ্রহণ করে না। ]

প্রতি মুহুর্তের সর্বশেষ খবর পেতে এখানে ক্লিক করে আমাদের ফেইসবুক পেইজে লাইক দিন

(লেখাটি পড়া হয়েছে 752 বার)


Print
এই পাতার আরও সংবাদ
bdsaradin24.com