নিজের অপরাধ ঢাকতে বাবা মার নাম জড়ালেন শ্রীশান্ত

Print

ফ্র্যাঞ্চাইজিভিত্তিক টুর্নামেন্ট ইন্ডিয়ান প্রিমিয়ার লিগে (আইপিএল) ফিক্সিং করার অপরাধে আজীবনের নিষেধাজ্ঞা পেয়েছিলেন রাজস্থান রয়্যালসের হয়ে খেলা ভারতীয় ক্রিকেট দলের পেসার শ্রীশান্ত। তবে সম্প্রতি তার এ নিষেধাজ্ঞা তুলে নিয়েছে দেশটির সুপ্রিম কোর্ট।

যার ফলে আগামী বছর সবধরনের ক্রিকেটে ফিরতে পারবেন ডানহাতি এ গতিতারকা। তবে নিষেধাজ্ঞা তুলে নেয়া হলেও, অভিযোগ থেকে পুরোপুরি মুক্তি পাননি শ্রীশান্ত। কোর্টের পক্ষ থেকে ভারতীয় ক্রিকেট বোর্ডকে শ্রীশান্তের শাস্তি পুনঃবিবেচনার জন্য তিন মাস সময় দেয়া হচ্ছে। বিসিসিআই সন্তুষ্ঠ হলেই কেবল আগামী বছরের ১৩ সেপ্টেম্বর থেকে পুরোপুরি মুক্ত হবেন শ্রীশান্ত।

এদিকে শুরু থেকেই নিজেকে নিরপরাধ দাবি করে আসছেন শ্রীশান্ত। একই কথা তিনি বলছেন ফিক্সিং কান্ডের ৬ বছর পর এসেও। এবার তিনি অপরাধ অস্বীকার করতে কসম কেটেছেন নিজের পরিবারের সদস্যদের। নিজেকে যেকোনো অর্থে নিরপরাধ প্রমাণ করতে বাবা, মা ও সন্তানদের নামে শপথ করেছেন তিনি।

ভারতীয় সংবাদমাধ্যমকে দেয়া এক সাক্ষাৎকারে শ্রীশান্ত বলেন, ‘আমি আমার বাচ্চাদের নামে শপথ করছি, আমার বাবার নামে শপথ করছি, যিনি গত সাড়ে পাঁচ বছর ধরে অসুস্থ তবু বেঁচে আছেন আমার একটি ম্যাচ দেখার জন্য, আমি আমার মায়ের নামে শপথ করছি যিনি তার পায়ের সমস্যায় ভুগছেন তবু আশা ছাড়েননি আমাকে মাঠে খেলতে দেখার- তাদের নাম নিয়ে বলছি আমি কখনোই স্পট ফিক্সিং করিনি। আমাকে ১০০ কোটি টাকা দেয়া হলেও ফিক্সিং করবো না।’

এসময় তিনি ফিক্সিংয়ের সঙ্গে জড়িত নাম প্রকাশের হুমকি দিয়ে আরও বলেন, ‘যারা সত্যিই ফিক্সিং করেছিল এবং এখনও হাসিমুখে খেলে যাচ্ছে- তাদের আমি বলতে চাই আমি তোমাদের লোক নই। আমি সহজেই তোমাদের নাম প্রমাণসহ বলে দিতে পারি কিন্তু এমনটা করবো না। আমার জীবন ফিরে পেতে ৭ বছর অপেক্ষা করতে হয়েছে। চাই না কারও সঙ্গে এমন হোক। অনেকেই অবসরে গিয়েছে, অনেকে এখনও খেলছে। শুধু ভারতেই নয়, সারা বিশ্বজুড়েই তাদের বিচরণ। তাদের অনেকেই অভিযুক্ত, আমি তাদের নাম বলতে চাই না।’

[ প্রিয় পাঠক, আপনিও বিডিসারাদিন24 ডট কম অনলাইনের অংশ হয়ে উঠুন। লাইফস্টাইল, স্বাস্থ্য, ভ্রমণ, ক্যারিয়ার, পরামর্শ, রান্নার রেসিপি, ফ্যাশন-রূপচর্চা ও ঘরোয়া টিপস নিয়ে লিখুন এবং সংশ্লিষ্ট বিষয়ে ছবিসহ মেইল করুন- bdsaradin@gmail.com-এ ঠিকানায়। লেখা আপনার নামে প্রকাশ করা হবে। নারীকন্ঠ এবং মত-দ্বিমত বিভাগে প্রকাশিত লেখার বিষয়, মতামত, মন্তব্য লেখকের একান্ত নিজস্ব। লেখকের মতামত, বক্তব্যের বিষয়বস্তু বা এর যথার্থতা নিয়ে  bdsaradin24.com আইনগত বা অন্য কোনো ধরণের দায় গ্রহণ করে না। ]

প্রতি মুহুর্তের সর্বশেষ খবর পেতে এখানে ক্লিক করে আমাদের ফেইসবুক পেইজে লাইক দিন

(লেখাটি পড়া হয়েছে 47 বার)


Print
এই পাতার আরও সংবাদ
bdsaradin24.com