নিয়ম না মেনে পশুখাদ্যে অ্যান্টিবায়োটিক, মহা ঝুঁকিতে মানুষ

Print

পশুখাদ্য আইন অনুযায়ী, কোনো প্রাণীকে মোটাতাজা করার কাজে ব্যবহৃত পশুখাদ্য ও পোলট্রি ফিডে অ্যান্টিবায়োটিকের ব্যবহার সম্পূর্ণ নিষিদ্ধ। কেবল প্রাণীর চিকিৎসার কাজেই অ্যান্টিবায়োটিক ব্যবহারের অনুমতি রয়েছে। অথচ নিয়ম না মেনে হাঁস-মুরগি, মাছ ও গরু-ছাগলের খাবারে যথেচ্ছভাবে ব্যবহৃত হচ্ছে মানুষের ওষুধ হিসেবে তৈরি হওয়া অ্যান্টিবায়োটিক। এতে সেই অ্যান্টিবায়োটিকের সঙ্গে সংশ্লিষ্ট ব্যাকটেরিয়া জন্ম নিচ্ছে সেই প্রাণীর শরীরে, তা ডিম-দুধ-মাংসের মাধ্যমে ছড়িয়ে পড়ছে মানুষের শরীরেও।

মাছ-মাংস-মুরগি-গরু বা অন্য প্রাণীর মাধ্যমে মানবদেহে ছড়িয়ে পড়া অ্যান্টিবায়োটিকের বিপদজনক প্রভাব পড়ছে ক্যান্সার, হৃদরোগ, আলসারসহ কিডনি ও লিভারের বিভিন্ন অসুস্থতায়। পশুখাদ্যে ব্যবহৃত অ্যান্টিবায়োটিক তাই শেষ পর্যন্ত গিয়ে মানবদেহের অ্যান্টিবায়োটিক রেজিস্ট্যান্স বা অ্যান্টিবায়োটিক প্রতিরোধী ক্ষমতা গড়ে ওঠার কারণ হয়ে দাঁড়াচ্ছে। আর ওষুধ প্রশাসন অধিদফতর বলছে, অ্যান্টিবায়োটিক রেজিস্ট্যান্সের কারণে ২০৫০ সাল নাগাদ এক কোটি মানুষের মৃত্যু হবে। আর এ কারণে বর্তমানে প্রতিবছর মারা যাচ্ছে সাত লাখ মানুষ।

বিশেষজ্ঞরা বলছেন, অ্যান্টিবায়োটিক হচ্ছে এমন একটি ওষুধ যা দ্বারা ব্যাকটেরিয়ার সংক্রমণজনিত রোগের চিকিৎসা করা হয়। সেই ওষুধ যখন আর শরীরে কাজ করে না, তখনই সেই অ্যান্টিবায়োটিক ওই ব্যাকটেরিয়াটির বিরুদ্ধে অকার্যকর হয়ে যায়। ফলে ব্যাকটেরিয়ার সংক্রমণজনিত রোগের চিকিৎসা করা কঠিন হয়ে পড়ে। আর এমন চলতে থাকলে খুব সাধারণ ইনফেকশন বা সংক্রমণের চিকিৎসাও জটিল হয়ে পড়বে। সেই অ্যান্টিবায়োটিকের কার্যকারিতা বাংলাদেশসহ বিশ্বের অনেক দেশেই জনস্বাস্থ্যের জন্য বর্তমানে হুমকি হয়ে দাঁড়িয়েছে।

[ প্রিয় পাঠক, আপনিও বিডিসারাদিন24 ডট কম অনলাইনের অংশ হয়ে উঠুন। লাইফস্টাইল, স্বাস্থ্য, ভ্রমণ, ক্যারিয়ার, পরামর্শ, রান্নার রেসিপি, ফ্যাশন-রূপচর্চা ও ঘরোয়া টিপস নিয়ে লিখুন এবং সংশ্লিষ্ট বিষয়ে ছবিসহ মেইল করুন- bdsaradin24@gmail.com-এ ঠিকানায়। লেখা আপনার নামে প্রকাশ করা হবে। নারীকন্ঠ এবং মত-দ্বিমত বিভাগে প্রকাশিত লেখার বিষয়, মতামত, মন্তব্য লেখকের একান্ত নিজস্ব। লেখকের মতামত, বক্তব্যের বিষয়বস্তু বা এর যথার্থতা নিয়ে  bdsaradin24.com আইনগত বা অন্য কোনো ধরণের দায় গ্রহণ করে না। ]

প্রতি মুহুর্তের সর্বশেষ খবর পেতে এখানে ক্লিক করে আমাদের ফেইসবুক পেইজে লাইক দিন

(লেখাটি পড়া হয়েছে 19 বার)


Print
bdsaradin24.com