পরীক্ষার্থী একজন, দায়িত্বে ১৪জন কর্মকর্তা!

Print


জেলা প্রতিনিধি, নাটোরঃ চলমান এসএসসি পরীক্ষায় নাটোরের লালপুরে  একটি কেন্দ্রে একজন অনিয়মিত শিক্ষার্থীর পরীক্ষা নিতে ১৪ জন কর্মকর্তা-কর্মচারী দায়িত্বে ছিলেন।সোমবার (৪ ফেব্রুয়ারি) সকালে উপজেলার লালপুর ‘বি’-২১৫ কেন্দ্রে অনুষ্ঠিত শারিরীক শিক্ষা বিষয়ে পরীক্ষায় সাথি খাতুন নামের এক পরীক্ষার্থী অংশগ্রহণ করে। সে উপজেলার করিমপুর উচ্চ বিদ্যালয়ের ২০১৫-২০১৬ শিক্ষা বর্ষের (পুরাতন সিলেবাসে) ২০১৭ সালের পরীক্ষার্থী ছিল। 
কেন্দ্র একজন পরীক্ষার্থী পরীক্ষায় অংশগ্রহণ করলেও পরীক্ষা নেওয়ার ব্যাপারে আয়োজনে কোন প্রকার কমতি ছিলনা।   প্রতিদিনের মতো কেন্দ্র জুড়ে ১৪৪ ধারা জারি, কেন্দ্র পরিদর্শক, একজন কেন্দ্র সচিব, একজন সহকারী কেন্দ্র সচিব, একজন হল সুপার, দুই জন কক্ষ পরিদর্শক, দুইজন পুলিশ ও চতুর্থ শ্রেণির কর্মচারীসহ মোট ১৪কর্মকর্তা-কর্মচারী সকাল ৯টা থেকে বেলা ১টা পর্যন্ত কেন্দ্রে দায়িত্ব পালন করেছেন।
লালপুর ‘বি’-২১৫ কেন্দ্রের কেন্দ্র সচিব হযরত আলী বলেন, সাথি খাতুন নামের শিক্ষার্থী পুরাতন সিলেবাসের উপজেলার করিমপুর উচ্চ বিদ্যালয়ের ২০১৫-২০১৬ শিক্ষা বর্ষের ২০১৭ সালের পরীক্ষার্থী ছিল। সে ২০১৭ সালে শারিরীক শিক্ষা পরীক্ষায় লিখিত বিষয়ে অংশ নিলেও ব্যবহারিক পরীক্ষায় অংশ নেয়নি। ফলে উক্ত বিষয়ে সে অকৃতকার্য হয়। এবছর আবার পুনরায় পরীক্ষায় অংশ নেয়। ওই বিষয়ে আর কোন পরীক্ষার্থী ছিলনা।  সকল নিয়োম মেনে ঐ পরীক্ষার্থীর পরীক্ষা নেওয়া হয়েছে। মাত্র একজন পরীক্ষার্থী থাকলেও পরীক্ষা গ্রহণের জন্য নিয়ম অনুয়ায়ী তার সব ব্যবস্থাই গ্রহণ করা হয়েছে।

[ প্রিয় পাঠক, আপনিও বিডিসারাদিন24 ডট কম অনলাইনের অংশ হয়ে উঠুন। লাইফস্টাইল, স্বাস্থ্য, ভ্রমণ, ক্যারিয়ার, পরামর্শ, রান্নার রেসিপি, ফ্যাশন-রূপচর্চা ও ঘরোয়া টিপস নিয়ে লিখুন এবং সংশ্লিষ্ট বিষয়ে ছবিসহ মেইল করুন- bdsaradin24@gmail.com-এ ঠিকানায়। লেখা আপনার নামে প্রকাশ করা হবে। নারীকন্ঠ এবং মত-দ্বিমত বিভাগে প্রকাশিত লেখার বিষয়, মতামত, মন্তব্য লেখকের একান্ত নিজস্ব। লেখকের মতামত, বক্তব্যের বিষয়বস্তু বা এর যথার্থতা নিয়ে  bdsaradin24.com আইনগত বা অন্য কোনো ধরণের দায় গ্রহণ করে না। ]

প্রতি মুহুর্তের সর্বশেষ খবর পেতে এখানে ক্লিক করে আমাদের ফেইসবুক পেইজে লাইক দিন

(লেখাটি পড়া হয়েছে 101 বার)


Print
এই পাতার আরও সংবাদ
bdsaradin24.com