পরীক্ষা হলেই ৫০ ছাত্রের চুল কেটে দিলেন শিক্ষক

Print

বগুড়ার ধুনটে পরীক্ষা চলাকালীন সময়ে বিদ্যালয়ের শ্রেণিকক্ষে ঢুকে ছাত্রদের মাথার চুল কেটে দিয়েছেন দুই শিক্ষক। এতে ক্ষুদ্ধ হয়ে পরীক্ষা বর্জন করেছে বিক্ষুদ্ধ ছাত্ররা।

শনিবার সকাল ১১টায় ধুনট আদর্শ উচ্চ বিদ্যালয়ে এ ঘটনা ঘটে।

জানা গেছে, ধুনট আদর্শ উচ্চ বিদ্যালয়ে অর্ধবার্ষিক পরীক্ষা অনুষ্ঠিত হচ্ছে। শনিবার সকাল ১০টায় নবম শ্রেণির গনিত-১ ও দশম শ্রেণির গনিত-২ পরীক্ষায় প্রায় ৯০ জন শিক্ষার্থী অংশ নেয়। কিন্তু পরীক্ষা শুরুর অধাঘণ্টা পরই শ্রেণিকক্ষে ঢুকে ওই বিদ্যালয়ের সহকারী শিক্ষক সাজ্জাদ হোসেন ও রিক্তা আক্তার মারধর করে প্রায় ৫০/৬০ জন ছাত্রের মাথার চুল কেটে দেন। বিদ্যালয়ে পরীক্ষা চলাকালীন সময়ে ছাত্রদের মাথার চুল কেটে দেওয়ায় ছাত্র ও অভিভাবকদের মাঝে ক্ষোভ দেখা দিয়েছে।

নাম প্রকাশে অনিচ্ছুক নবম ও দশম শ্রেণির কয়েক ছাত্র জানায়, পরীক্ষা শুরুর অধা ঘণ্টা পরই বিদ্যালয়ের সহকারী শিক্ষক সাজ্জাদ হোসেন ও রিক্তা আক্তার শ্রেণিকক্ষে ঢুকেই ছাত্রদের মারধর করতে থাকে। এরপর এক এক করে প্রায় সকল ছাত্রের মাথার চুলই কেঁচি দিয়ে আঁকাবাঁকা করে কেটে দিয়েছেন তারা। একারণে নবম ও দশম শ্রেণির প্রায় সকল ছাত্রই পরীক্ষা বর্জন করে বিদ্যালয় ত্যাগ করেছে।

এবিষয়ে ধুনট আদর্শ উচ্চ বিদ্যালয়ের সহকারী শিক্ষক সাজ্জাদ হোসেন বলেন, বিদ্যালয়ের কারিগরি শাখার নবম ও দশম শ্রেণির কিছু ছাত্র নিয়মিত ক্লাসে আসে না। তারা বিদ্যালয়ের কোন নিয়ম কানুনও মানে না। অনেকদিন যাবত তাদেরকে মাথার চুল কেটে আসতে বললেও তারা কথা শোনে না। তাই পরীক্ষার হলেই তাদেরকে চুল কেটে দেওয়া হয়েছে।

তবে ধুনট আদর্শ উচ্চ বিদ্যালয়ের ভারপ্রাপ্ত প্রধান শিক্ষক আব্দুল্লাহ হেল বাকী বলেন, এবিষয়ে তিনি কিছুই জানেন না।

[ প্রিয় পাঠক, আপনিও বিডিসারাদিন24 ডট কম অনলাইনের অংশ হয়ে উঠুন। লাইফস্টাইল, স্বাস্থ্য, ভ্রমণ, ক্যারিয়ার, পরামর্শ, রান্নার রেসিপি, ফ্যাশন-রূপচর্চা ও ঘরোয়া টিপস নিয়ে লিখুন এবং সংশ্লিষ্ট বিষয়ে ছবিসহ মেইল করুন- bdsaradin24@gmail.com-এ ঠিকানায়। লেখা আপনার নামে প্রকাশ করা হবে। নারীকন্ঠ এবং মত-দ্বিমত বিভাগে প্রকাশিত লেখার বিষয়, মতামত, মন্তব্য লেখকের একান্ত নিজস্ব। লেখকের মতামত, বক্তব্যের বিষয়বস্তু বা এর যথার্থতা নিয়ে  bdsaradin24.com আইনগত বা অন্য কোনো ধরণের দায় গ্রহণ করে না। ]

প্রতি মুহুর্তের সর্বশেষ খবর পেতে এখানে ক্লিক করে আমাদের ফেইসবুক পেইজে লাইক দিন

(লেখাটি পড়া হয়েছে 31 বার)


Print
এই পাতার আরও সংবাদ
bdsaradin24.com