পরীমণি- তামিমের বিচ্ছেদের গুঞ্জন

Print

তিন বছর আগে ১৪ ফেব্রুয়ারি বিশ্ব ভালোবাসা দিবসে প্রেমের যাত্রা শুরু। তিন বছর চুটিয়ে প্রেম। এ বছর ভালোবাসা দিবসে বাগদান।

জানা গেছে, বাগদান হয়েছে দুই পরিবারের সম্মতিতেই। পরীমণির বারিধারার বাসায় দুই পরিবারের সদস্যদের উপস্থিতিতে তাঁর বাগদান সম্পন্ন হয়েছে। তামিম নিজের ফেসবুকে দেওয়া এক পোস্টে পরীমনির সঙ্গে বাগদানের ব্যাপারটি নিশ্চিত করেছেন। পরীমণিও ফেসবুক পেজে ভালোবাসা দিবসে কিছু ছবি পোস্ট করে ভালোবাসা ও বাগদানের ব্যাপারটি নিশ্চিত করেছেন।

বিয়েটাও ভালোবাসা দিবসেই করতে চান এমনটি জানিয়ে পরীমণি বলেন, কোনো এক ১৪ ফেব্রুয়ারি ভালোবাসা দিবসে বিয়ে করতে চাই।

পরিমণি যাকে জীবনসঙ্গী হিসেবে বেছে নিয়েছেন, তিনি গণমাধ্যমকর্মী। এ ছাড়া একটি বেসরকারি রেডিও স্টেশনের জনপ্রিয় অনুষ্ঠান ‘লাভগুরু’র উপস্থাপক।

২০১৬ সালের ১৪ ফেব্রুয়ারি প্রেমের ঘোষণা আর ২০১৯ সালের ১৪ ফেব্রুয়ারি তাঁদের বাগদান সম্পন্ন হয়। যদিও পরীমণি ও তামিম অনেক আগেই গোপনে বিয়ে করেছেন- এমন গুঞ্জনও শোনা যাচ্ছে।

শোনা যায়, তারা বিচ্ছেদের দিকে হাঁটছেন। ঘটনার সূত্রপাত এক অ্যাওয়ার্ড অনুষ্ঠানকে কেন্দ্র করে। সেখানে পরীমণির সঙ্গে বাক বিতণ্ডা হয় তামিমের। পরীমনিকে পুরস্কার না দিয়ে অন্য কোন নায়িকাকে সেরা অভিনেত্রীর পুরস্কার দিলে তামিম তার জন্য ক্ষেপে যান পরীমণির ওপর। তার ভাষ্য, পরীমনি অনুষ্ঠানে নেচেছেন। কিন্তু কোন পুরস্কার মিলেনি তার। তা নিয়ে দুজনের ঝগড়া বেধে যায়। পরীমণি কান্নাকাটিও করেন। এক কথায় দু’কথায় বেধে যায় সম্পর্কে তুমুল হট্টগোল। যা এখনো মিটেনি বলে জানা যায়।

পরে আয়োজক কমিটি এর মিমাংসার জন্য পরীমণিকে বিশেষ পুরস্কার দেয়। যদিও নাম প্রকাশ না করার শর্তে আয়োজক কমিটির একজন জানিয়েছেন, আমরা গত বছর থেকেই বিশেষ পুরস্কার দিচ্ছি। স্পেশাল কোন ঘটনার জন্য পরীমণিকে বিশেষ পুরস্কার দেওয়া হয়নি।

অ্যাওয়ার্ড অনুষ্ঠানে এমন কাণ্ডের পরই তামিম তার ফেসবুক ডিঅ্যাক্টিভ করে দেন। পরীমণির ফেসবুকও খুঁজে পাওয়া যাচ্ছে না। অনেকে বলে পরীমণিও ইচ্ছে করে নিজের ফেসবুক ডিঅ্যাক্টিভ করে রেখেছেন। কেউবা বলেন সেই ঝামেলার মিমাংসা হয়েছে। তবে সময়ই বলে দিবে কি হচ্ছে তাদের জীবনে। তাকে অবশ্য কয়েকবার চেষ্টা করেও ফোনে পাওয়া যায়নি।

[ প্রিয় পাঠক, আপনিও বিডিসারাদিন24 ডট কম অনলাইনের অংশ হয়ে উঠুন। লাইফস্টাইল, স্বাস্থ্য, ভ্রমণ, ক্যারিয়ার, পরামর্শ, রান্নার রেসিপি, ফ্যাশন-রূপচর্চা ও ঘরোয়া টিপস নিয়ে লিখুন এবং সংশ্লিষ্ট বিষয়ে ছবিসহ মেইল করুন- bdsaradin24@gmail.com-এ ঠিকানায়। লেখা আপনার নামে প্রকাশ করা হবে। নারীকন্ঠ এবং মত-দ্বিমত বিভাগে প্রকাশিত লেখার বিষয়, মতামত, মন্তব্য লেখকের একান্ত নিজস্ব। লেখকের মতামত, বক্তব্যের বিষয়বস্তু বা এর যথার্থতা নিয়ে  bdsaradin24.com আইনগত বা অন্য কোনো ধরণের দায় গ্রহণ করে না। ]

প্রতি মুহুর্তের সর্বশেষ খবর পেতে এখানে ক্লিক করে আমাদের ফেইসবুক পেইজে লাইক দিন

(লেখাটি পড়া হয়েছে 20 বার)


Print
bdsaradin24.com