পারিবারিকভাবে দ্বিতীয় বিয়ে করছেন অপু বিশ্বাস

Print

শাকিব খানের সঙ্গে গোপনে বিয়ে। তারপর গোপনে সন্তান আব্রাম খান জয়ের জন্ম। অতঃপর সব জানাজানির পর এই তারকা দম্পতির বিচ্ছেদ। শাকিবকে বিয়ে করার পরই হিন্দু ধর্ম ছেলে ইসলাম ধর্ম গ্রহণ করেছিলেন ঢালিউড অভিত্রেী অপু বিশ্বাস। কিন্তু ছাড়াছাড়ির বছর দুই পর আবারও অপুর মনে হচ্ছে, সুযোগ থাকলে আবারও তিনি ইসলাম ছেলে হিন্দুধর্মে ফিরে যেতেন।

এ ব্যাপারে অপুর ভাষ্য, ‘আমি একজন সনাতন ধর্মের মেয়ে ছিলাম। শাকিবকে বিয়ে করে ইসলাম ধর্ম গ্রহণ করেছি। এখন ডিভোর্সের পর অপশন থাকলে হয়তো আবারও সনাতন ধর্মে ফিরে যেতাম। তবে এখন আমার সন্তা আমার কাছে সবচেয়ে বড় অপশন। ছেলের জন্য আমি ইসলাম ধর্মই পালন করবো।’

শাকিবের সঙ্গে গোপনে ঘরসংসার অতঃপর বিচ্ছেদের পরও বিভিন্ন সংবাদ মাধ্যমে অপুর ইসলাম ধর্ম গ্রহণ নিয়ে কথা উঠে। সম্প্রতি কথা হচ্ছে তার দ্বিতীয় বিয়ে নিয়ে।

আবারও বিয়ে করার কোনও পরিকল্পনা আছে কিনা- জানতে চাইলে অপু বিশ্বাস সরাসরি না বললেও বিয়ের ইঙ্গিত দিয়েছেন। প্রতিটি ক্ষেত্রে পরিবারের সহযোগিতা পেয়েছেন, তাই তারা যা চাইবেন সে ইচ্ছাই পূরণ করবেন বলে জানান।

বিয়ে নিয়ে পরিকল্পনা কী জানতে চাওয়া হলে অপু বলেন, ‘নট শিওর, বাট দেখা যাক। যেহেতু বরাবরই আমার পরিবার আমাকে সবচেয়ে বেশি হেল্প করেছে। আমার ধর্ম আমাকে যেখানে প্রেফার করছে, তো দেখা যাক।’

তবে অপু বিশ্বাস বলেন, ‘সব ধর্মের প্রতি আমার শ্রদ্ধা রয়েছে। কিন্তু অল্প সময়ের মধ্যে শাকিবের সঙ্গে বিচ্ছেদ হয়েছে। আমি ওর কথা ভেবে মনেপ্রাণেই ইসলাম ধর্ম গ্রহণ করেছিলাম। কিন্তু আমার বাবা-মার সঙ্গে থেকে তো আমি ওটা পালন করতে পারি না।’

অপু বলেন, ‘তবে আগামী দিনে পরিকল্পনা আছে পারিবারিকভাবেই কিছু একটা করার। কারণ আমি গরুর মাংস খেয়ে বা হজ্ব করে মুসলিম হইনি। একজনকে ভালোবেসে মুসলিম ধর্মকে সম্মান দেখিয়েছি, আজও দেখাই।’

নায়িকার ভাষ্য, ‘ঈদ এবং ইসলাম ধর্মের প্রতি আমার যথেষ্ট সম্মান রয়েছে। কিন্তু আমার কখনো ঈদ উদযাপন করা হয়নি। কোরবানি ঈদ থেকে শুরু করে কোনো ঈদে কোনোদিন কিংবা এখনও আমি গো-মাংস স্পর্শ করিনি। আমার বাসার কাজের লোকদের জন্য আমি খাসি কোরবানির ব্যবস্থা করি।’

[ প্রিয় পাঠক, আপনিও বিডিসারাদিন24 ডট কম অনলাইনের অংশ হয়ে উঠুন। লাইফস্টাইল, স্বাস্থ্য, ভ্রমণ, ক্যারিয়ার, পরামর্শ, রান্নার রেসিপি, ফ্যাশন-রূপচর্চা ও ঘরোয়া টিপস নিয়ে লিখুন এবং সংশ্লিষ্ট বিষয়ে ছবিসহ মেইল করুন- bdsaradin24@gmail.com-এ ঠিকানায়। লেখা আপনার নামে প্রকাশ করা হবে। নারীকন্ঠ এবং মত-দ্বিমত বিভাগে প্রকাশিত লেখার বিষয়, মতামত, মন্তব্য লেখকের একান্ত নিজস্ব। লেখকের মতামত, বক্তব্যের বিষয়বস্তু বা এর যথার্থতা নিয়ে  bdsaradin24.com আইনগত বা অন্য কোনো ধরণের দায় গ্রহণ করে না। ]

প্রতি মুহুর্তের সর্বশেষ খবর পেতে এখানে ক্লিক করে আমাদের ফেইসবুক পেইজে লাইক দিন

(লেখাটি পড়া হয়েছে 64 বার)


Print
এই পাতার আরও সংবাদ
bdsaradin24.com