প্রতি মাসে ১৯ কোটি টাকার বাণিজ্য

Print

বনানীর কড়াইল বস্তিতে প্রতি মাসে প্রায় ১৯ কোটি টাকার অবৈধ লেনদেন হয়। সরকারি জমিতে গড়ে ওঠা বস্তির ঘরভাড়া এবং অবৈধ সংযোগের গ্যাস, পানি ও বিদ্যুতের বিলের নামে এ টাকা হাতিয়ে নিচ্ছেন তথাকথিত মালিক ও সন্ত্রাসী সিন্ডিকেট। এরাই বস্তির সামগ্রিক কর্মকাণ্ড নিয়ন্ত্রণ করেন।

তাদের অনেকেই এখন কোটিপতি। যারা এক সময় ছিলেন ভাঙারি ব্যবসায়ী, রিকশাচালক, বাসের হেলপার, হোটেল বয় ও নৌকার মাঝি। কিন্তু এসব অপকর্মের ব্যাপারে সরকারের সংশ্লিষ্টরা একরকম নির্বিকার।

রাজধানীর কড়াইল বস্তিতে গত সোম ও মঙ্গলবার সরেজমিন ঘুরে এবং বস্তিবাসীর সঙ্গে আলাপ করে জানা গেছে এসব তথ্য। বস্তিবাসীর অভিযোগ, গরিবের রক্ত চুষে তারা (নিয়ন্ত্রক) কোটিপতি হয়েছেন।

এখন তারা ‘বস্তির রাজা’। ক্ষমতাসীন দল ও অঙ্গসংগঠনের নাম ভাঙিয়ে ভয়ংকর হয়ে উঠছেন এই রাজারা। শুধু তাই নয়, তাদের তত্ত্বাবধানে রাতভর বস্তিতে চলে মাদক ও জুয়ার আসরও।

খোঁজ নিয়ে জানা গেছে, ১৯৫৬ সালে তৎকালীন টিএন্ডটির নামে ১৭০ একর জমি অধিগ্রহণ করে সরকার। এর মধ্যে এখন ১৬০ একর জমিতেই গড়ে উঠেছে কড়াইল বস্তি। স্বাধীনতার পর ধীরে ধীরে এ বস্তি প্রসার লাভ করে।

১৯৮৮ সালের বন্যার পর দেশের নদী ভাঙনপ্রবণ বিভিন্ন এলাকার মানুষ এ বস্তিতে আশ্রয় নিলে এটি বিশাল আকার ধারণ করে। এ বস্তিতে প্রায় ৮০ হাজার ঘর রয়েছে। এখানে বসবাসকারী ৭৫ হাজার পরিবারে প্রায় চার লাখ লোক বসবাস করেন।

বস্তির রাজারা শুধু গ্যাস, বিদ্যুৎ এবং পানির অবৈধ বিলের নাম করে বস্তিবাসীর কাছ থেকে মাসে ৮ কোটি টাকা হাতিয়ে নেন। আর ঘরভাড়া বাবদ আদায় করা হয় প্রায় ১১ কোটি টাকা।

অভিযোগ রয়েছে- এ টাকার ভাগ বিদ্যুৎ বিভাগ, তিতাস গ্যাস, ওয়াসা এবং পুলিশসহ নানা সংস্থার কাছে চলে যায়। এ কারণেই স্থানীয় প্রশাসন ও আইনশৃঙ্খলা বাহিনীর নাকের ডগায় বসে নানা অপরাধমূলক কর্মকাণ্ড করলেও দেখার কেউ নেই।

এমনকি কড়াইল বস্তির নিয়ন্ত্রণ নিয়ে গত ৮ বছরে তিনটি খুনের ঘটনা ঘটেছে।

[ প্রিয় পাঠক, আপনিও বিডিসারাদিন24 ডট কম অনলাইনের অংশ হয়ে উঠুন। লাইফস্টাইল, স্বাস্থ্য, ভ্রমণ, ক্যারিয়ার, পরামর্শ, রান্নার রেসিপি, ফ্যাশন-রূপচর্চা ও ঘরোয়া টিপস নিয়ে লিখুন এবং সংশ্লিষ্ট বিষয়ে ছবিসহ মেইল করুন- bdsaradin24@gmail.com-এ ঠিকানায়। লেখা আপনার নামে প্রকাশ করা হবে। নারীকন্ঠ এবং মত-দ্বিমত বিভাগে প্রকাশিত লেখার বিষয়, মতামত, মন্তব্য লেখকের একান্ত নিজস্ব। লেখকের মতামত, বক্তব্যের বিষয়বস্তু বা এর যথার্থতা নিয়ে  bdsaradin24.com আইনগত বা অন্য কোনো ধরণের দায় গ্রহণ করে না। ]

প্রতি মুহুর্তের সর্বশেষ খবর পেতে এখানে ক্লিক করে আমাদের ফেইসবুক পেইজে লাইক দিন

(লেখাটি পড়া হয়েছে 21 বার)


Print
এই পাতার আরও সংবাদ
bdsaradin24.com