বিএনপির একদিকে ফুল অন্যদিকে অশ্রু!

Print

বিএনপির সর্বোচ্চ নীতি নির্ধারণী ফোরাম জাতীয় স্থায়ী কমিটিতে নতুন দুই সদস্য বেগম সেলিমা রহমান এবং ইকবাল হাসান মাহমুদ টুকু নিযুক্ত হওয়ার ঘোষণার পর একদিকে তারা যেমন ফুলের শুভেচ্ছায় সিক্ত হচ্ছেন। অন্যদিকে এই পদ ঘিরে আলোচনায় থাকা যারা বঞ্চিত হয়েছেন তাদের মধ্যে হতাশা সৃষ্টি হয়েছে।

আবার কেউ কেউ প্রশ্ন তুলেছেন, ক্ষমতাসীন জোটের ঘনিষ্ঠদের দিয়ে বিএনপির নীতি নির্ধারণী গোপনীয়তা রক্ষা হবে তো? ২০১৬ সালের ১৯ মার্চ বিএনপির ৬ষ্ঠ জাতীয় কাউন্সিলে ২ সদস্যের পদ ফাঁকা রেখে স্থায়ী কমিটি ঘোষণা করা হয়।

যার মধ্যে দলের চেয়ারপারসন বেগম খালেদা জিয়া, সিনিয়র ভাইস চেয়ারম্যান তারেক রহমান এবং মহাসচিব মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীর পদাধিকার বলে স্থায়ী কমিটির সদস্য রয়েছেন। পরবর্তীতে ৩ জন সদস্য মারা যাওয়ায় স্থায়ী কমিটিতে ৫টি পদ শূন্য হয়। বিএনপির ত্রি-বার্ষিক কাউন্সিলের পর থেকেই নেতা-কর্মীদের দাবি ছিল শূন্যপদ পূরণের জন্য।

আর এসব পদে যারা আলোচনায় ছিলেন, তাদের মধ্যে অন্যতম হলেন- ভাইস চেয়ারম্যান আব্দুল্লাহ আল নোমান, শাহ মোয়াজ্জেম হোসেন, এম মোরশেদ খান, মেজর (অব.) হাফিজ উদ্দিন আহমেদ, ব্যারিস্টার শাহজাহান ওমর, অ্যাডভোকেট খন্দকার মাহাবুব হোসেন, আব্দুল আউয়াল মিন্টু প্রমুখ।

দলীয় সূত্র জানায়, স্থায়ী কমিটির সদস্যদের অন্ধকারে রেখে গঠনতন্ত্র মোতাবেক দলের ভারপ্রাপ্ত চেয়ারম্যান তারেক রহমানের একক সিদ্ধান্তে স্থায়ী কমিটির নতুন দুই সদস্য নিযুক্ত করা হয়েছে। দলের সর্বোচ্চ ব্যক্তির সিদ্ধান্তের কারণে স্থায়ী কমিটির অন্যান্য সদস্যরা ক্ষুব্ধ হলেও এ নিয়ে তারা প্রকাশ্যে কোনো মন্তব্য করছেন না। তবে দলীয় অনুসারীদের কাছে প্রচণ্ড ক্ষোভ আর হতাশা প্রকাশ করেছেন।

[ প্রিয় পাঠক, আপনিও বিডিসারাদিন24 ডট কম অনলাইনের অংশ হয়ে উঠুন। লাইফস্টাইল, স্বাস্থ্য, ভ্রমণ, ক্যারিয়ার, পরামর্শ, রান্নার রেসিপি, ফ্যাশন-রূপচর্চা ও ঘরোয়া টিপস নিয়ে লিখুন এবং সংশ্লিষ্ট বিষয়ে ছবিসহ মেইল করুন- bdsaradin24@gmail.com-এ ঠিকানায়। লেখা আপনার নামে প্রকাশ করা হবে। নারীকন্ঠ এবং মত-দ্বিমত বিভাগে প্রকাশিত লেখার বিষয়, মতামত, মন্তব্য লেখকের একান্ত নিজস্ব। লেখকের মতামত, বক্তব্যের বিষয়বস্তু বা এর যথার্থতা নিয়ে  bdsaradin24.com আইনগত বা অন্য কোনো ধরণের দায় গ্রহণ করে না। ]

প্রতি মুহুর্তের সর্বশেষ খবর পেতে এখানে ক্লিক করে আমাদের ফেইসবুক পেইজে লাইক দিন

(লেখাটি পড়া হয়েছে 23 বার)


Print
এই পাতার আরও সংবাদ
bdsaradin24.com