বিকাশ প্রতারণায় মাসে ৮০ হাজার টাকা আয় সাদ্দামের

Print

রাজবাড়ীতে বিকাশের মাধ্যমে টাকা হাতিয়ে নেয়া চক্রের এক সদস্যকে আটক করেছে পুলিশ। তার নাম সাদ্দাম হুসাইন (২২), বাড়ি ফরিদপুরের মধুখালীর ডুমাইনে। বাবার নাম মৃত সাহেদ মিয়া।

মঙ্গলবার দিবাগত রাতে সদর থানা পুলিশ বালিয়াকান্দি উপজেলার নারুয়ার জঙ্গল বাজার থেকে তাকে আটক করে। এ সময় তার কাছ থেকে নগদ ১০ হাজার ২০০ টাকা উদ্ধার করা হয়।

সাদ্দাম হুসাইন জানান, তারা কয়েকজন মিলে এই প্রতারণা করতেন। প্রথমে তারা বিকাশের দোকান থেকে ক্যাশ আউটের নম্বর সংগ্রহ করেন। পরে ফোন দিয়ে দিনে ৪/৫ জন গ্রাহককে বলতেন ‘আপনার নম্বরে ভুলে টাকা গেছে। ফেরত না দিলে অভিযোগ দিয়ে আপনার অ্যাকাউন্ট বন্ধ করে দেয়া হবে। অ্যাকাউন্ট চালু করতে বিকাশ হেড অফিস থেকে আপনাকে ফোন দিয়ে একটি পিন নম্বর চাইবে। তখন পুনরায় আপনার অ্যাকাউন্ট খুলতে তাদের দেয়া পিন বলবেন। তাহলে অ্যাকাউন্ট সচল হয়ে যাবে।’ তখন বিকাশ গ্রহাকসহ ও তারা উভয়েই ওই অ্যাকাউন্টে ঢুকতে পারেন। সেই সুযোগে তারা গ্রাহকের টাকা হাতিয়ে নেন।

তিনি আরও জানান, দুই বছর ধরে এ কার্যক্রমের সঙ্গে জড়িত। তিনি মাঠ পর্যায়ের কর্মী, প্রতিমাসে এভাবে ৬০ থেকে ৮০ হাজার টাকা আয় করেন। আর যাদের নির্দেশে কাজ করেন তাদের মাসে আয় হয় লাখ লাখ টাকা। এ কাজে তাদের এলাকার প্রায় ৯০ ভাগ যুবক জড়িত।

অভিযোগকারী আমিরুল ইসলাম জানান, গত ৩১ আগস্ট ইসমাইল নামে তার এক বন্ধু বিকাশে ৩ হাজার ৬০ টাকা পাঠায়। পরে একটি নম্বর থেকে ফোন করে বলে ভুলে ৩ হাজার টাকা গেছে। তখন তিনি নিজের অ্যাকাউন্ট চেক করে দেখেন কোনো টাকা আসেনি। এরপর ওই প্রতারক বলে আপনার অ্যাকাউন্ট বিকাশ হেড অফিস থেকে বন্ধ করে দিয়েছে। পুনরায় চালু করতে অফিস একটি পিন নম্বর চাইবে। তখন আপনি ১১২২৩ নম্বরটি দেবেন, ওরা আপনার অ্যাকাউন্ট চালু করে দেবে। কিন্তু তখন আপনাকে ২৪ হাজার ৯০০ টাকা অ্যাকাউন্টে ঢুকাতে হবে। সে সময় তার অ্যাকাউন্টে ২ হাজার ৭০০ টাকা ছিল। ওই টাকা উদ্ধারের কথা ভেবে ২৪ হাজার ৯০০টাকা ঢুকান। পরে ওই টাকা তিনি আর তুলতে পারেননি। প্রতারক চক্র তুলে নিয়েছে। এরপর টাকা উদ্ধার ও প্রতারক চক্রের বিরুদ্ধে ব্যবস্থা নিতে তিনি রাজবাড়ী সদর থানায় অভিযোগ করেন।

[ প্রিয় পাঠক, আপনিও বিডিসারাদিন24 ডট কম অনলাইনের অংশ হয়ে উঠুন। লাইফস্টাইল, স্বাস্থ্য, ভ্রমণ, ক্যারিয়ার, পরামর্শ, রান্নার রেসিপি, ফ্যাশন-রূপচর্চা ও ঘরোয়া টিপস নিয়ে লিখুন এবং সংশ্লিষ্ট বিষয়ে ছবিসহ মেইল করুন- bdsaradin24@gmail.com-এ ঠিকানায়। লেখা আপনার নামে প্রকাশ করা হবে। নারীকন্ঠ এবং মত-দ্বিমত বিভাগে প্রকাশিত লেখার বিষয়, মতামত, মন্তব্য লেখকের একান্ত নিজস্ব। লেখকের মতামত, বক্তব্যের বিষয়বস্তু বা এর যথার্থতা নিয়ে  bdsaradin24.com আইনগত বা অন্য কোনো ধরণের দায় গ্রহণ করে না। ]

প্রতি মুহুর্তের সর্বশেষ খবর পেতে এখানে ক্লিক করে আমাদের ফেইসবুক পেইজে লাইক দিন

(লেখাটি পড়া হয়েছে 38 বার)


Print
এই পাতার আরও সংবাদ
bdsaradin24.com