‘বিনা টিকিটে’র আড়ালে অতিরিক্ত যাত্রীর ফাঁদ!

Print

‘লঞ্চের নাকি টিকিট শেষ অইয়া গেছে, টিকিট শেষ অইয়া গেলে এহন আমরা যামু কেমনে, ছেলেপান নিয়া তো সকাল সকালই লঞ্চঘাটের দিকে রওনা হইছি।’ গতকাল বৃহস্পতিবার সকাল সোয়া ১০টায় মোহাম্মদপুরের বসিলা থেকে বাইপাস সড়ক ধরে সদরঘাটের দিকে যাওয়ার পথে মাইদুল ইসলাম এভাবেই উৎকণ্ঠার কথা জানান। একই বাসে পাশের আরেক যাত্রী অনেকটা কৌতূহল নিয়ে জানতে চান, ‘প্রতিবার ঈদের সময় ট্রেন আর বাসের টিকিটের জন্য অপেক্ষা-হুড়োহুড়ি ও লাইন দেওয়ার খবর দেখতে পাই, কিন্তু লঞ্চে লাখ লাখ মানুষ ঈদে বাড়ি ফিরলেও টিকিটের জন্য তো এমন কোনো ঘটনা আমাদের চোখে পড়ে না; তবে ঠিকই খবর শুনি যে লঞ্চের আগাম টিকিট শেষ, কারণটা কী?’

কারণটা জানা যায় একটু পরেই সদরঘাটে গিয়ে। গতকাল সকাল ১০টা নাগাদই লঞ্চ টার্মিনালে ভিড় করতে শুরু করছিল দূরপাল্লার বিভিন্ন রুটের যাত্রী। বিশেষ করে চাঁদপুর ও শরীয়তপুরগামী সাধারণ যাত্রীর ভিড় বেশি। বরিশাল অঞ্চলের কোনো কোনো রুটের যাত্রীও তখনই হাজির লঞ্চঘাটে। ঘাটে এসেই তারা যে যার মতো লঞ্চে উঠে ডেকে চাদর বিছিয়ে বসে পড়ে। কেউ বা বসে পাশের বেঞ্চে। ‘বিনা টিকিটেই’ সবাই উঠে বসেছে লঞ্চে।

টিকিট ছাড়া লঞ্চে উঠলেন কিভাবে, দূরপাল্লার বাসে বা ট্রেনে তো আগে টিকিট কাটতে হয়, এখানে লাগেনি? প্রশ্ন শুনে যেন আকাশ থেকে পড়লেন শরীয়তপুরগামী সাহানারা বেগম। বললেন, ‘এইডা আবার কী কন! কই কোনো কালেই তো লঞ্চে চড়নের আগে আমাগো টিকিট কাটতে অয় নাই, লঞ্চ অনেক দূর যাওনের পর মাঝরাইতে আইয়া টিকিট দিয়া যায়।’

[ প্রিয় পাঠক, আপনিও বিডিসারাদিন24 ডট কম অনলাইনের অংশ হয়ে উঠুন। লাইফস্টাইল, স্বাস্থ্য, ভ্রমণ, ক্যারিয়ার, পরামর্শ, রান্নার রেসিপি, ফ্যাশন-রূপচর্চা ও ঘরোয়া টিপস নিয়ে লিখুন এবং সংশ্লিষ্ট বিষয়ে ছবিসহ মেইল করুন- bdsaradin24@gmail.com-এ ঠিকানায়। লেখা আপনার নামে প্রকাশ করা হবে। নারীকন্ঠ এবং মত-দ্বিমত বিভাগে প্রকাশিত লেখার বিষয়, মতামত, মন্তব্য লেখকের একান্ত নিজস্ব। লেখকের মতামত, বক্তব্যের বিষয়বস্তু বা এর যথার্থতা নিয়ে  bdsaradin24.com আইনগত বা অন্য কোনো ধরণের দায় গ্রহণ করে না। ]

প্রতি মুহুর্তের সর্বশেষ খবর পেতে এখানে ক্লিক করে আমাদের ফেইসবুক পেইজে লাইক দিন

(লেখাটি পড়া হয়েছে 30 বার)


Print
bdsaradin24.com