বিয়ের প্রলোভন দেখিয়ে শারীরিক সম্পর্ক :সন্তান মেনে না নেয়ায় ধর্ষকের যাবজ্জীবন

Print

সালেকিন মিয়া সাগর,চুযাডাঙ্গা প্রতিনিধি::

সন্তান মেনে না নেয়ায়   চুয়াডাঙ্গা নারী ও শিশু নির্যাতন দমন আদালতে এক ধর্ষকেরযাবজ্জীবন কারাদণ্ড ও ১০ হাজার টাকা জরিমানা অনাদায়ে আরো এক মাসের সশ্রম কারাদনণ্ড দেয়া হয়েছে।

আজ রবিবার দুপুরে আসামি হাশেম আলীর উপস্থিতিতে এ রায় দেন চুয়াডাঙ্গা নারী ও শিশু নির্যাতন দমন আদালতের বিচারক জিয়া হায়দার।

এ মামলার বাদী চুয়াডাঙ্গার দামুড়হুদা উপজেলার সুলতানপুর বাগানপাড়ার কাজুলী খাতুন গত ২০১৪ সালের ২ সেপ্টেম্বর চুয়াডাঙ্গা নারী ও শিশু নির্যাতন দমন আদালতে এক লিখিত অভিযোগ দিলে তারই ভিত্তিতে জানা যায়, ২০১৩ সালের ২৬ ডিসেম্বর রাত আনুমানিক ৯ টার দিকে তার বাবার বাড়িতে বিয়ের প্রলোভন দেখিয়ে একই গ্রামের হাশেম আলী তার সঙ্গে শারীরিক সম্পর্কে লিপ্ত হয়। এরপর সে গর্ভবতী হয়ে পড়ে। হাশেম আলীকে বিয়ের কথা বললে সে সেটা অস্বীকার করে। তারপর আদালত এ বিষয়টি তদন্তের জন্য দামুড়হুদা উপজেলা শিক্ষা কর্মকর্তা নূরজাহান খানমকে আদেশ দেয়। নূরজাহান খানমসহ চার সদস্যের একটি কমিটি ওই ঘটনার তদন্ত করে ডিএনএ পরীক্ষা করার জন্য আদালতে মত প্রকাশ করেন।

আদালত সেই মোতাবেক প্রমান করা যায়, এমন উপাত্ত দামুড়হুদা মডেল থানার মাধ্যমে সংশ্লিষ্ট দপ্তরে পাঠানোর আদেশ দেয়। সেই আদেশ পেয়ে দামুড়হুদা মডেল থানা কর্তৃপক্ষ ঢাকা সিআইডি দপ্তরে ডিএনএ পরীক্ষা করার জন্য পাঠায় উপাত্ত গুলো পাঠায়। সেখান থেকে পরীক্ষা শেষে সে গুলো আদালতে উপস্থাপন করা হয়। এরই মধ্যে কাজুলী খাতুন একটি মেয়ে সন্তানের জন্ম দেয়। তার নাম হাসিলা খাতুন (৩)। এ ঘটনার ব্যাপারে চুয়াডাঙ্গা নারী ও শিশু নির্যাতন দমন আদালতে ১৩৫/১৫ মামলা দায়ের হয়।

 

চার জন সাক্ষীর সাক্ষ্য প্রমানে আদালতে সন্দেহাতীতভাবে প্রমানিত হওয়ায় আদালতের বিজ্ঞ বিচারক জিয়া হায়দার উল্লেখিত রায় ঘোষনা করেন।

আসামী পক্ষের কৌশলী এ্যাডভোকেট সেলিম উদ্দিন খান ও রাস্ট্রে পক্ষের কৌশলী পিপি এ্যাডভোকেট আব্দুল মালেক মামলাটি পরিচালনা করেন।

সালেকিন মিয়া সাগর
[ প্রিয় পাঠক, আপনিও বিডিসারাদিন24 ডট কম অনলাইনের অংশ হয়ে উঠুন। লাইফস্টাইল, স্বাস্থ্য, ভ্রমণ, ক্যারিয়ার, পরামর্শ, রান্নার রেসিপি, ফ্যাশন-রূপচর্চা ও ঘরোয়া টিপস নিয়ে লিখুন এবং সংশ্লিষ্ট বিষয়ে ছবিসহ মেইল করুন- bdsaradin@gmail.com-এ ঠিকানায়। লেখা আপনার নামে প্রকাশ করা হবে। নারীকন্ঠ এবং মত-দ্বিমত বিভাগে প্রকাশিত লেখার বিষয়, মতামত, মন্তব্য লেখকের একান্ত নিজস্ব। লেখকের মতামত, বক্তব্যের বিষয়বস্তু বা এর যথার্থতা নিয়ে  bdsaradin24.com আইনগত বা অন্য কোনো ধরণের দায় গ্রহণ করে না। ]

প্রতি মুহুর্তের সর্বশেষ খবর পেতে এখানে ক্লিক করে আমাদের ফেইসবুক পেইজে লাইক দিন

(লেখাটি পড়া হয়েছে 107 বার)


Print
এই পাতার আরও সংবাদ
bdsaradin24.com