বোরহানউদ্দিনে মানুষকে সমবেত করার উদ্দেশ্য কী, প্রশ্ন প্রধানমন্ত্রীর

Print

ফেসবুক স্ট্যাটাসকে ঘিরে ভোলায় যে তুলকালাম কাণ্ড ঘটেছে তা নিয়ে প্রশ্ন তুলেছেন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা। অনাকাঙিক্ষত এ ঘটনার জন্য সবাইকে ধৈর্য্য ধারনের আহ্বান জানিয়ে তিনি বলেন, ‘এই ঘটনাকে কেন্দ্র করে ঘোলা পানিতে মাছ শিকার করতে চায় তাদের উদ্দেশ্যে খুঁজে বের করে তাদের বিরুদ্ধে ব্যবস্থা নিতে হবে।’

রবিবার গণভবনে যুবলীগের নেতাদের সঙ্গে বৈঠকের সূচনা বক্তব্যে তিনি এসব কথা বলেন।

শেখ হাসিনা বলেন, ‘ভোলার বোরহানউদ্দিনে একটি হিন্দু ছেলে তার ফেসবুকের আইডি হ্যাকিং করে মিথ্যাচার করা হয়েছে। যার ফেসবুক হ্যাক করেছে তাকে আবার ফোন করে বিশ হাজার টাকা চেয়েছে। বিশ হাজার টাকা না দিলে তার ফেসবুক আইডিতে এমন সমস্ত কথা লিখবে সেটা তার জন্য ক্ষতি হবে।’

‘এই কথাটা পাওয়ার পরপরই ওই হিন্দু ছেলেটা পুলিশ স্টেশনে গেছে। সে সেখানে একটা জিডিও করেছে। জিডি করা সত্ত্বেও সেখানে তাকে কিন্তু পুলিশ গ্রেপ্তার করে রেখেছে। সঙ্গে সঙ্গে যে টেলিফোনটা করেছিল তাকেও গ্রেপ্তার করা হয়েছে। ফেসবুক আইডি হ্যাকিং হলে পরে ফেসবুক অপারেটর যারা তাদের সঙ্গে আমরা যোগাযোগ করেছি। তাদের কাছ থেকে আমরা সমগ্র তথ্য জোগাড় করতে পারবো।’

প্রধানমন্ত্রী বলেন, ‘পুলিশের ওপর চড়াও হলে, পুলিশ নিজেদেরকে বাঁচানোর জন্য একটা ঘরে আশ্রয় নেয়। আশ্রয় নেওয়ার পরও তারা পুলিশের ওপর চড়াও হয়। সেখানে একজন এসআইয়ের গায়ে গুলি পর্যন্ত লাগে। সেই সময় সেখানে ডিসি, এসপি সকলেই পৌঁছে যায়।’

‘পুলিশকে রক্ষা করা এবং অন্যান্য সাধারণ মানুষ যারা ছিল সেখানে, যারা তাদেরকে বোঝাতে গিয়েছিল তাদেরকে রক্ষার জন্য গুলি ছোড়ে ফলে বেশ অনেক জন আহত হয়। এর মধ্যে তিনজনের মৃত্যু কনফার্ম বলা হয়েছে আরেকজনের অবস্থা মুমূর্ষ।’

সরকার প্রধান বলেন, ‘পুলিশের ওপর আক্রমণ করলো তাদের উদ্দেশ্যেটা কী ছিল সেটাই বড় কথা। এরপর থেকে দেখা যাচ্ছে ফেসবুকে নানা ধরণের অপপ্রচার সব জায়গায় ছড়ানো হচ্ছে অশান্ত পরিবেশ সৃষ্টি করার জন্য। তাহলে এরা কারা? এদের উদ্দেশ্যেটা কী? ’

তিনি আরও বলেন, ‘যখনই দেখা যায় দেশটা একটু ভালোভাবে চলছে, অগ্রগতি হচ্ছে। তখনই একটা শ্রেণী আছে নানা ভাবে একটা অশান্ত পরিবেশ সৃষ্টি করতে চায়। এইটা যেন কোনোভাবে করতে না পারে সেই জন্য আমি সাধারণ মানুষ তাদের কাছে সহযোগিতা চাই।’

[ প্রিয় পাঠক, আপনিও বিডিসারাদিন24 ডট কম অনলাইনের অংশ হয়ে উঠুন। লাইফস্টাইল, স্বাস্থ্য, ভ্রমণ, ক্যারিয়ার, পরামর্শ, রান্নার রেসিপি, ফ্যাশন-রূপচর্চা ও ঘরোয়া টিপস নিয়ে লিখুন এবং সংশ্লিষ্ট বিষয়ে ছবিসহ মেইল করুন- bdsaradin24@gmail.com-এ ঠিকানায়। লেখা আপনার নামে প্রকাশ করা হবে। নারীকন্ঠ এবং মত-দ্বিমত বিভাগে প্রকাশিত লেখার বিষয়, মতামত, মন্তব্য লেখকের একান্ত নিজস্ব। লেখকের মতামত, বক্তব্যের বিষয়বস্তু বা এর যথার্থতা নিয়ে  bdsaradin24.com আইনগত বা অন্য কোনো ধরণের দায় গ্রহণ করে না। ]

প্রতি মুহুর্তের সর্বশেষ খবর পেতে এখানে ক্লিক করে আমাদের ফেইসবুক পেইজে লাইক দিন

(লেখাটি পড়া হয়েছে 43 বার)


Print
এই পাতার আরও সংবাদ
bdsaradin24.com