বড় হুজুররা এলেই ওরা বিভক্ত হয়ে পড়ে

Print

কাকরাইলের কেন্দ্রীয় মসজিদে তারা একসঙ্গে নামাজ পড়ছে। এক প্লেটে খাবার খাচ্ছে। রাতে পাশাপাশি ঘুমাচ্ছে। অথচ ‘বড় হুজুররা’ এলে তারা দুই ধারায় ভাগ হয়ে যাচ্ছে। সংঘর্ষের মানসিকতাও তৈরি হচ্ছে তাদের মধ্যে।

গতকাল মঙ্গলবার দুপুরে কাকরাইল মসজিদে গিয়ে মুসল্লিদের সঙ্গে কথা বলে এ তথ্য জানা যায়। এদের মধ্যে তাবলিগ জামাতের দিল্লির নিজামুদ্দিন মারকাজের বর্তমান মুরব্বি মাওলানা সাদ কান্ধলভীর অনুসারী এবং মাওলানা জুবায়েরের অনুসারীরাও আছেন। এসব সাধারণ মুসল্লি বিরোধ নিয়ে ভিন্ন ভিন্ন কথা বললেও কিছু বিষয়ে একমত। বিশেষ করে তারা বলছে, কাকরাইল মসজিদ ও টঙ্গীর বিশ্ব ইজতেমা ময়দানকে আলাদা করা ঠিক হবে না। এতে বিরোধের সৃষ্টি হবে। আগের মতোই তাবলিগ জামাতের মাঠ ও কাকরাইল মসজিদ সরকারের হাতে রেখে এবং দুটি অংশকে বসিয়ে সংঘাতময় পরিস্থিতি থেকে উত্তরণের চেষ্টা করতে হবে।

কেন বিশ্ব ইজতেমা নিয়ে তাবলিগ জামাতের অনুসারীরা দুই ভাগে বিভক্ত হয়ে পড়েছে, সংঘর্ষের নেপথ্যে কারা রয়েছে, দেশের বাইরে থেকে কেন উসকানি দেওয়া হচ্ছে, কোনো কোনো শীর্ষ পর্যায়ের হুজুরের এখানে ব্যক্তিগত স্বার্থ আছে এমন আরো অনেক গুরুত্বপূর্ণ বিষয়ে মুসল্লিরা কথা বলে। প্রায় সবারই কথা, তাবলিগ জামাতের ‘বড় হুজুরদের’ স্বার্থের বিরোধের কারণেই গাজীপুরের টঙ্গীতে ইজতেমা মাঠের দখল নিয়ে সহিংসতা ছড়িয়ে পড়ছে।

[ প্রিয় পাঠক, আপনিও বিডিসারাদিন24 ডট কম অনলাইনের অংশ হয়ে উঠুন। লাইফস্টাইল, স্বাস্থ্য, ভ্রমণ, ক্যারিয়ার, পরামর্শ, রান্নার রেসিপি, ফ্যাশন-রূপচর্চা ও ঘরোয়া টিপস নিয়ে লিখুন এবং সংশ্লিষ্ট বিষয়ে ছবিসহ মেইল করুন- bdsaradin24@gmail.com-এ ঠিকানায়। লেখা আপনার নামে প্রকাশ করা হবে। নারীকন্ঠ এবং মত-দ্বিমত বিভাগে প্রকাশিত লেখার বিষয়, মতামত, মন্তব্য লেখকের একান্ত নিজস্ব। লেখকের মতামত, বক্তব্যের বিষয়বস্তু বা এর যথার্থতা নিয়ে  bdsaradin24.com আইনগত বা অন্য কোনো ধরণের দায় গ্রহণ করে না। ]

প্রতি মুহুর্তের সর্বশেষ খবর পেতে এখানে ক্লিক করে আমাদের ফেইসবুক পেইজে লাইক দিন

(লেখাটি পড়া হয়েছে 23 বার)


Print
এই পাতার আরও সংবাদ
bdsaradin24.com