ভোলায় পুলিশের সাথে বন্ধুক যুদ্ধে মাদক ব্যবসায়ী জাকির নিহত ॥ ৫ পুলিশ আহত

Print


নিরব হোসেন, ভোলা॥
ভোলায় ডিবি পুলিশের সাথে বন্ধুক যুদ্ধে জাকির হোসেন (৫০) নামে এক মাদক ব্যসায়ী নিহত হয়েছে। ওই সময় ডিবি পুলিশের ৫ সদস্য আহত হয়েছে । এ সময় একটি দেশীয় বন্ধুক, ৫ রাউন্ড গুলি,বগি দা ও ১ কেজি গাঁজা উদ্ধার করা হয়। এদিকে পুলিশ বন্ধুক যুদ্ধে জাকির নিহত হয়েছে বলে দাবী করলেও নিহতের পরিবারের সদস্যরা বলছে জাকির জেলখানায় ছিলো। সোমবার আদালত থেকে তার জামিন হলেও তাকে পরিবারের কাছে হস্তান্তর করা হয়নি। মঙ্গলবার ১০ টায় তাকে জেলখানা থেকে ছাড়ার কথা ছিলো। প্রশ্ন উঠেছে তা হলে সে কিভাবে বন্ধুক যুদ্ধে নিহত হয়। ভোলা সদর উপজেলার দক্ষিন দিঘলদী ইউনিয়নের বাগমারা গ্রামের বেড়ি বাঁধ এলাকায় সোমবার রাতে কতিপয় মাদক ব্যবসায়ী বাগমারা এলাকায় মাদক বন্টন নিয়ে বৈঠক করে। এ সময় তাদের নিজেদের সাথে বিরোধ সৃষ্টি হয়। ডিবি ওসি শহিদুল ইসলাম জানান,ওই বৈঠকের খবর পেয়ে তার নেতৃত্বে রাত ৩ টা ৪৫ মিনিটের সময় ২দিক থেকে ডিবি পুলিশ মাদক ব্যবসায়ীদের ঘোরাও করে। পুলিশের উপস্থিতি টের পেয়ে তাদের উপর মাদক ব্যবসায়ীরা গুলি করে। পুলিশ আতœরক্ষার্থে পাল্টা গুলি ছুড়ে। এসময় কয়েক জন দৌড়ে পালিয়ে যায়। এক জন গুলি বিদ্ধ হয় বলে পুলিশ দাবী করেন। এ সময় তার কাছ থেকে দেশীয় এলজি নল কাটা বন্ধুক,কোমরে থাকা ৫ রাউন্ড গুলি,৩টি রামদা ও এক কেজি গাঁজা পাওয়া যায়। ডিবি পুলিশ আরো জানায়, নিহত জাকির হোসেনের নামে হত্যা,চাঁদাবাজী,মাদক,অস্ত্রসহ ১৯টি মামলা রয়েছে। এদিকে পুলিশের দাবী বন্দুক যুদ্ধে এসআই মাসুম,কনষ্টবল মোকসেদুল,কনষ্টবল মিজান,কনষ্টবল জাহিদুল,কনষ্টবল শহিদুল। তাদেরকে প্রাথমিক ভাবে চিকিৎসা দেয়া হয়। এদিকে পুলিশ লাশ উদ্ধার করে ভোলা সদর হাসপাতালের মর্গে প্রেরন করা হয়েছে। এসময় নিহতের স্ত্রী রাশিদা বেগম ও পরিবারের সদস্য জানান, নিহত জাকির ৪/৫টি মামলার সাথে সম্পিক্ত থাকলেও বাকি মামলা শত্রুতা বশত দেয়া হয়েছে। ৪১ পিচ ইয়াবা ট্যাবলেট সহ জাকিরকে গত ৬ মে পুলিশ গ্রেফতার করে। ওই মামলায় তার সোমবার আদালত থেকে তার জামিন হয়। জামিনের পর বিকালে নিহতের স্ত্রী তার স্বামীকে জেলখানা থেকে আনার জন্য যান। কিন্তু তাকে জেল কর্তৃপক্ষ জাকিরকে মুক্ত করেননি। তার সাথে দেখাও করতে দেয়নি। জাকিরের স্ত্রীকে বলা হয় আজ মঙ্গলবার তাকে জেলখানা থেকে ছাড়া হবে। জাকিরের স্ত্রী’র প্রশ্ন আইনের লোক যদি বেআইনী কাজ করে তা হলে কি করার আছে? নিহত মাদক ব্যবসায়ী জাকিরের বাড়ি ভোলা সদরের উত্তর দিঘলদী ইউনিয়নে। জাকির নিহত হওয়ার খবরে কান্নায় ভেঙ্গে পড়েছে তারস্ত্রীসহ পরিবারের সদস্যরা। জাকিরের লাশ নিতে ভোলা হাসপাতালের মর্গের সামনে অপক্ষো করে।এদিকে ভোলা জেলখানার জেলার মাসুদ হাসান জুয়েল জানান, সোমবার ৫ টা ২০ মিনিটে জামিনের কাগজ তারা পেয়েছেন । তাকে ৫ টা ৫২ মিনিটে তাকে ছেড়ে দেয়া হয়। তার কাছে কেউ জাকিরকে নিতে সোমবার বিকালে যোগাযোগ করেননি।

[ প্রিয় পাঠক, আপনিও বিডিসারাদিন24 ডট কম অনলাইনের অংশ হয়ে উঠুন। লাইফস্টাইল, স্বাস্থ্য, ভ্রমণ, ক্যারিয়ার, পরামর্শ, রান্নার রেসিপি, ফ্যাশন-রূপচর্চা ও ঘরোয়া টিপস নিয়ে লিখুন এবং সংশ্লিষ্ট বিষয়ে ছবিসহ মেইল করুন- bdsaradin@gmail.com-এ ঠিকানায়। লেখা আপনার নামে প্রকাশ করা হবে। নারীকন্ঠ এবং মত-দ্বিমত বিভাগে প্রকাশিত লেখার বিষয়, মতামত, মন্তব্য লেখকের একান্ত নিজস্ব। লেখকের মতামত, বক্তব্যের বিষয়বস্তু বা এর যথার্থতা নিয়ে  bdsaradin24.com আইনগত বা অন্য কোনো ধরণের দায় গ্রহণ করে না। ]

প্রতি মুহুর্তের সর্বশেষ খবর পেতে এখানে ক্লিক করে আমাদের ফেইসবুক পেইজে লাইক দিন

(লেখাটি পড়া হয়েছে 279 বার)


Print
এই পাতার আরও সংবাদ
bdsaradin24.com