মসজিদে ধর্ষণ করে এক লাখ টাকায় আপোষের প্রস্তাব মুয়াজ্জিনের

Print

কক্সবাজারের উখিয়ায় ৭ বছরের শিশুকে মসজিদের ভেতর ধর্ষণের অভিযোগ ওঠেছে মুয়াজ্জিনের বিরুদ্ধে। এ ঘটনার পর থেকে উপজেলার রাজাপালং ইউনিয়নের ডেইলপাড়া মসজিদের মুয়াজ্জিন হাফেজ নুরুল আমিন পলাতক রয়েছে।

নির্যাতিতা শিশুর চাচা বলেন, গত ১১ জুলাই দুপুর ১২ টার দিকে স্থানীয় প্রাথমিক বিদ্যালয় থেকে বাড়ি ফেরার পথে দ্বিতীয় শ্রেণির ওই ছাত্রীকে মসজিদ ঝাড়ু দেয়ার কথা বলে ডেকে নিয়ে যায় মুয়াজ্জিন হাফেজ নুরুল আমিন।

মসজিদের ভেতর ঢুকিয়ে তাকে ধর্ষণ করে সে। পরে মেয়েটি রক্তাক্ত অবস্থায় ঘরে এসে তার মাকে বিষয়টি জানায়। এই ঘটনা পুরো এলাকায় জানাজানি হওয়ায় ধর্ষক স্থানীয় মেম্বারের মাধ্যমে সমঝোতার চেষ্টা করে। নির্যাতিতার পরিবারকে এক লাখ টাকা দেয়ার জন্যও প্রস্তাব দেন ধর্ষক। কিন্তু নির্যাতিতার পরিবার না মানায় তা স্থানীয়ভাবে সমঝোতা হয়নি।

পরে শিশুটির পরিবার এই ঘটনার বিষয়ে পুলিশের কাছে অভিযোগ করে।

উখিয়া থানার ওসি (তদন্ত) নুরুল ইসলাম মজুমদার গণমাধ্যমকে ঘটনার সত্যতা নিশ্চিত করে বলেন, এই ঘটনার বিষয়ে আমরা অভিযোগ পেয়েছি। ধর্ষক মুয়াজ্জিনকে আটকের জন্য আমরা সর্বাত্মক চেষ্টা চালিয়ে যাচ্ছি।

[ প্রিয় পাঠক, আপনিও বিডিসারাদিন24 ডট কম অনলাইনের অংশ হয়ে উঠুন। লাইফস্টাইল, স্বাস্থ্য, ভ্রমণ, ক্যারিয়ার, পরামর্শ, রান্নার রেসিপি, ফ্যাশন-রূপচর্চা ও ঘরোয়া টিপস নিয়ে লিখুন এবং সংশ্লিষ্ট বিষয়ে ছবিসহ মেইল করুন- bdsaradin24@gmail.com-এ ঠিকানায়। লেখা আপনার নামে প্রকাশ করা হবে। নারীকন্ঠ এবং মত-দ্বিমত বিভাগে প্রকাশিত লেখার বিষয়, মতামত, মন্তব্য লেখকের একান্ত নিজস্ব। লেখকের মতামত, বক্তব্যের বিষয়বস্তু বা এর যথার্থতা নিয়ে  bdsaradin24.com আইনগত বা অন্য কোনো ধরণের দায় গ্রহণ করে না। ]

প্রতি মুহুর্তের সর্বশেষ খবর পেতে এখানে ক্লিক করে আমাদের ফেইসবুক পেইজে লাইক দিন

(লেখাটি পড়া হয়েছে 41 বার)


Print
এই পাতার আরও সংবাদ
bdsaradin24.com